এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > দাপুটে তরুণ নেতা আবার আসরে নামতেই তৃণমূলকে “পাল্টা” দেওয়ার “জোশ” ফিরে পাচ্ছেন বিজেপি কর্মীরা

দাপুটে তরুণ নেতা আবার আসরে নামতেই তৃণমূলকে “পাল্টা” দেওয়ার “জোশ” ফিরে পাচ্ছেন বিজেপি কর্মীরা

লোকসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূল ত্যাগ করে বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন নিশীথ প্রামাণিক। আর তারপরই বিজেপির তরফ সেই নিশীথবাবুকে কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করে দেওয়া হয়। তবে প্রাক্তন দল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে লড়াই করে তিনি আদৌ নিজের জয় নিশ্চিত করতে পারবেন কিনা, তা নিয়ে প্রথম থেকেই ধন্দে ছিল রাজনৈতিক মহল।

তবে শেষ পর্যন্ত কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির টিকিটে জয়লাভ করেন নিশীথ প্রামাণিক। এদিকে বিজেপি কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্র জয়নাভের পরই তৃণমূলের দখলে থাকা একাধিক পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি নিজেদের দখলে নিতে শুরু করে গেরুয়া শিবির। কিন্তু কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ হলেও সেইভাবে জেলা রাজনীতিতে সক্রিয় হতে দেখা যায়নি নিশীথ প্রামাণিককে।

সাম্প্রতিককালে একসময় বিজেপির দখলে চলে যাওয়া পঞ্চায়েতগুলো আবার ফের তৃণমূল দক্ষ নেতৃত্বের সহকারে নিজেদের দখলে নিয়ে আসতে শুরু করেছে। আর এই পরিস্থিতিতে এবার কোচবিহার জেলায় “গান্ধী সংকল্প যাত্রার” কর্মসূচি মোতাবেক ময়দানে নামতে দেখা গেল প্রাক্তন তৃণমূল নেতা তথা বর্তমান বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামাণিককে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

জানা গেছে, বুধবার কোচবিহার চকচকা শিল্পকেন্দ্র থেকে বিজেপির উদ্যোগে গান্ধী সংকল্প যাত্রার নেতৃত্বে ছিলেন কোচবিহারের বিজেপি সাংসদ। আর নিশীথবাবুর সাথে একসময় তৃণমূল ছেড়ে যে সমস্ত কর্মীরা বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন, তারা ফের এহেন দাপুটে নেতাকে সক্রিয় অবস্থায় পেয়ে ফের রাস্তায় নামতে শুরু করেছেন।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশ বলছেন, কোচবিহার জেলাজুড়ে বিজেপির বাড়বাড়ন্তের জেরে বর্তমানে তৃণমূল তাদের শক্তি বাড়াতে শুরু করেছে। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে আগামী বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে নিজেদের হাল শক্ত হাতে না ধরলে যে অবস্থা বেগতিক হতে পারে, তা বুঝে প্রাক্তন তৃণমূল নেতা তথা বর্তমান বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামাণিককে গান্ধী সংকল্প যাত্রার মধ্য দিয়ে কোচবিহার জেলার রাজনৈতিক ময়দানে নামিয়ে দিল গেরুয়া শিবির।

আর নিশীথবাবুর মত হেভিওয়েট নেতা ফের ময়দানে নামায় এখন বাড়তি অক্সিজেন পেতে শুরু করেছে কোচবিহার জেলা বিজেপি নেতৃত্ব। তাহলে কি তৃণমূলের বাড়বাড়ন্তের জেরেই তাকে ময়দানে নামতে হল! এদিন এই প্রসঙ্গে নিশীথ প্রামাণিক বলেন, “আমরা গান্ধীজিকে স্মরণ করে কোচবিহার জেলায় সংকল্প যাত্রার সূচনা করলাম।

গোটা কোচবিহার জেলাকে যারা অশান্ত করার চেষ্টা করছে, তাদের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের থাকার জন্যই আমাদের এই যাত্রা। জেলায় যে সমস্ত জনপ্রতিনিধি আমাদের দলে এসেছিলেন, তৃণমূলের সন্ত্রাস ও জুলুমবাজের জন্য তারা আবার তৃণমূলের ফিরে যেতে বাধ্য হয়েছেন। বিধানসভা ভোটের আগেই এরা আবার বিজেপিতে ফিরে আসবেন।”

এদিকে সাংসদকে ময়দানে নামানো নিয়ে এদিন কোচবিহার জেলা বিজেপির সভানেত্রী মালতি রাভা রায় বলেন, “রাজ্য ও কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নির্দেশ অনুসারে এলাকার সংসদ সদস্য এই গান্ধী সংকল্প যাত্রার নেতৃত্ব দেবেন। তৃণমূল ও পুলিশ বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে আমরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেব।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!