এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ভোট জেতা নিয়ে কি বললেন তৃণমূল প্রার্থী দুলাল দাস

ভোট জেতা নিয়ে কি বললেন তৃণমূল প্রার্থী দুলাল দাস

সম্প্রতি শেষ হওয়া পঞ্চায়েত ভোটের মতো মা মাটি মানুষের দামামা বাজতে চলেছে মহেশতলা উপনির্বাচনেও। মহেশতলার বিধায়ক কস্তুরি দাসের অকাল প্রয়াণের কারণেই ২৮ মে উপনির্বাচন হয়েছিলো এখানে। আর এদিন উপনির্বাচনে ভোট গননার পরই দেখা যাচ্ছিলো তৃণমূল প্রার্থী দুলাল দাস এগিয়ে রয়েছেন অন্য বিরোধী প্রার্থীদের তুলনায় । স্বাভাবিকভাবেই খুশির জোয়ারে ভাসছেন প্রার্থী। সদ্য পাওয়া খবর অনুযায়ী তিনি জিতে গেছেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে গিয়েই এদিন তিনি মন্তব্যে বলেন যে, তাঁর এই জয় আসলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তথা মা মাটি মানুষের জয়। মানুষ উন্নয়ন দেখেই জোড়াফুলের হাত ধরেছে। মানুষ মহেশতলাতেও উন্নয়ন চান তাই এ রাজ্যের উন্নয়নের কর্ণধার নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রাণ খুলে আশির্বাদ করেছেন। এছাড়া তিনি আরো জানান যে বিরোধী দল গুলোর সঙ্গে তাঁদের প্রাপ্ত আসন সংখ্যার পার্থক্য আরো বাড়বে বলেই জানাচ্ছেন তিনি। ভোট গননা সম্পূর্ণ হলেই মানুষ জানতে পারবেন সেটা। এরপর তিনি সরব হন সংখ্যাগরিষ্ঠতার নিরিখে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসা বিজেপির অবস্থান সম্পর্কে বলতে। জানান যে, তিনি বিজেপির এই উত্থানকে তিনি উত্থান বলেই মানতে নারাজ। এটা নাকি একটা যোগসাজস। কিন্তু কীসের যোগসাজস্ সে ব্যাপারে মুখের কুলুপ এঁটে রইলেন এই জয়ী তৃণমূল প্রার্থী দুলালবাবু। জেতার পর তিনি বললেন, এই জয় মা মাটি মানুষের জয়। পঞ্চায়েতে বিরোধীরা অভিযোগ তুলেছিলেন সন্ত্রাসের আর তাই নাকি তৃণমূল জিতেছে কিন্তু এখানে তো তেমন কিছু হয়নি তবুও বিপুল ভোট তিনি জিতেছেন। তাই মানুষ শুধু তৃণমূলকে ভরসা করে। এদিকে তিনি আরো জানান যে মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছিলেন যে যেন এই নির্বাচনে কোনো অশান্তি না হয়। কেউ যদি পায়ে পা দিয়ে ঝগড়া করে তবুও যেন চুপ করে থাকা হয়। তাতেও এই জয়।

Top
error: Content is protected !!