এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ‘গায়ের জোরে’ তৃণমূলের দখল করা বোর্ড অবশেষে ‘নির্দলের’ সমর্থনে ছিনিয়ে নিল বিজেপি

‘গায়ের জোরে’ তৃণমূলের দখল করা বোর্ড অবশেষে ‘নির্দলের’ সমর্থনে ছিনিয়ে নিল বিজেপি

Priyo Bandhu Media


তৃণমূলের কব্জায় থাকা বোর্ড শেষ পর্যন্ত বিজেপির সমর্থন পেয়ে ছিনিয়ে নিল নির্দল। কোচবিহারের মাথাভাঙা ১ পঞ্চায়েত সমিতির কুর্শামারি গ্রাম পঞ্চায়েতের ঘটনা এটি। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে,১৩ টি আসন্ন বিশিষ্ট এই গ্রাম পঞ্চায়েতে তৃণমূল বিজেপি উভয়ই পাঁচটি করে আসনে জয় পেয়ে সমান ফলাফল করে।

অন্যদিকে,নির্দল ৩ টি আসনে জয়লাভ করে। গত ১৩ সেপ্টেম্বর নাগাদ অন্যায়ভাবে এই পঞ্চায়েত বোর্ড গঠন করে তৃণমূল কংগ্রেস। তারপর থেকেই তৃণমূলের এভাবে বোর্ড গঠনকে কেন্দ্র করে ক্ষোভে ফুঁসতে থাকে বিজেপি।

বিজেপির অভিযোগ ছিল,বোর্ড গঠনের সময় পাঁচ জয়ী বিজেপি এবং ৩ জন নির্দল প্রার্থীদের গ্রাম পঞ্চায়েতে ঢুকতেই দেয়নি তৃণমূল। গায়ের জোরেই পাঁঁচ জন সদস্য নিয়েই পঞ্চায়েত প্রধান হন তৃণমূল কংগ্রেসের জুলজুলাল মিয়াঁ। এরপর বোর্ডের বৈধতা নিয়ে সরব হয় গেরুয়াশিবির।

এভাবে অন্যায়ভাবে বোর্ডগঠনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে হাইকোর্টে মামলাও দায়ের করে বিরোধীরা। সেই মামলায় সম্প্রতি জয় হয়েছে বিজেপির। হাইকোর্ট কুর্শামারি গ্রাম পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠনের প্রক্রিয়াকেই অবৈধ বলে ঘোষণা করে দিল। হাইকোর্টের রায়দানের পরই এদিন বোর্ড গঠন করল বিজেপি।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিন বোর্ড গঠনকে কেন্দ্র করেও এলাকায় টানটান উত্তেজনা ছিল। সকাল থেকেই গ্রাম পঞ্চায়েত অফিস চত্বরে ব্যাপক পরিমান পুলিশ মোতায়েত করা হয়েছিল। তবে এদিন অবশ্য বোর্ড গঠন প্রক্রিয়ায় অংশ নেননি তৃণমূল কংগ্রেসের পাঁচ সদস্য। তৃণমূলের দাবী,অবৈধভাবে বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

তবে তৃণমূলের পাঁচ সদস্য উপস্থিত না থাকলেও বোর্ড গঠনে কোনো অসুবিধা হয়নি। বিজেপির ৫ জন এবং নির্দলদের ৩ জন সদস্যদের উপস্থিতিতেই কোচবিহারের কুর্শামারি গ্রাম পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠিত হল। নির্দল সদস্য মুজিবর রহমান, উপপ্রধান নির্বাচিত হয়েছে আরেক নির্দল সদস্য টুম্পা বর্মন।

বোর্ড গঠন করার পর এদিন পঞ্চায়েত প্রধান মুজিবর রহমান বললেন,’মানুষ আমাদের সমর্থন করেছে তাই আমি প্রধান হয়েছি, বিজেপি আমাদের সমর্থন করেছে।’ অন্যদিকে,কোচবিহার জেলা বিজেপির সম্পাদক মনোজ ঘোষ বলেন ‘মানুষ তৃণমূল কংগ্রেসকে চায়না,তাঁরা বিজেপি ও নির্দলকে চাইছিল তাই আমরা জোট করেছি’।

এদিকে, বিরোধীদের এই বোর্ড গঠনকে ভালোভাবে মেনে নিল না তৃণমূল। এই বোর্ডগঠন নিয়ে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আপিল করা হয়েছে। সেই রায় ঘোষণার আগে এই বোর্ড গঠন অবৈধ,এমনটাই অভিযোগে জানালেন তৃণমূল কংগ্রেসের পঞ্চায়েত সদস্য জুলজুলাল মিয়াঁ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!