এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বিজেপিকে হঠাতে কি তৃণমূলের সঙ্গে জোট? কি জানালেন সীতারাম ইয়েচুরি

বিজেপিকে হঠাতে কি তৃণমূলের সঙ্গে জোট? কি জানালেন সীতারাম ইয়েচুরি

“তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি আদতে একই মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ” এমনভাবেই ব্যাখ্যা দিলেন এদিন সিপিএম এর সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি। আসন্ন ২০১৯ এর লোকসভা ভোটে কেন্দ্র থেকে মোদী সরকারকে হঠাতে বিরোধীরা জোট বাঁধার খবর নতুন কিছু নয়, তবে সিপিএম আর তৃণমূল এবারের লোকসভা ভোটে জোট বাঁধতে চলেছে এরকম একটা তথ্য রাজনৈতিক স্তরে ঘুরে বেড়ালেও তাকে কার্যত মিথ্যে বলেই ঘোষণা করলেন ইয়েচুরি এদিন সর্বভারতীয় চ্যানেলের সাক্ষাৎকারে গিয়ে। জানালেন যে লোকসভা ভোটকে সামনে রেখে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে মহাজোটের ডাক দিয়েছেন তাতে যোগ দেওয়ার বিন্দুমাত্র ইচ্ছে নেই সিপিএম-এর। তিনি আরো জানালেন যে কেন্দ্র থেকে বিজেপি হটাও কর্মসূচি যেমন তাঁরা গ্রহণ করেছেন, তেমনি বাংলা থেকে একইভাবে জোড়াফুলের সমূলে বিনাশ চান তাঁরা।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

বিজেপি প্রসঙ্গে ইয়েচুরি এদিন জানান যে, বিজেপি এবারের ভোটে হিন্দুদের ভোটে কবজা করতে চাইছে বলেই প্রথমবার শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের (হিন্দু জাতীয়তাবাদী রাজনৈতিক দল ভারতীয় জন সংঘের প্রতিষ্ঠাতা) মৃত্যুবার্ষিকী ঘটা করে পালন করেছে। আগে কখনোই বিজেপিকে এসব নিয়ে হইচই করতে দেখা যায়নি। সবই ভোটব্যাঙ্ক বৃদ্ধির স্বার্থে। অন্যদিকে, তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও সংখ্যালঘু শ্রেনীদের আবেগ নিয়ে রাজনীতি করেই চলেছেন। আদতে তৃণমূল ও বিজেপি মিথোজীবী সম্পর্কে লিপ্ত হয়ে একে অন্যের খাবার জোগাতেই ব্যস্ত। এই বলেই গর্জে উঠলেন এদিন সিপিএম এর সাধারণ সম্পাদক।
অন্যদিকে,তিনি আরো জানালেন যে তেলেঙ্গনা রাষ্ট্র সমিতিতে বঙ্গের কোনো ভূমিকাই নেই। এর থেকে বোঝাই যায়, রাজ্যের বাইরে বাংলার কী হাল! তেলেগু দেশম পার্টিও রাজ্যেরই দল। ফলত নিজ নিজ রাজ্য ছাড়া জোট বেঁধে লাভ নেই। এদিন তৃণমূল-কংগ্রেসের ঘনিষ্ঠতা নিয়েও প্রশ্ন তুললেন তিনি। এবং জানালেন, বিজেপিবিরোধী জোট গড়ার থেকেও তাঁর গুরুত্বপূর্ণ মনে হয় সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোটা। কংগ্রেসও এদিন সাম্প্রদায়িক দলে খানিকটা টেনেই কথা বললেন তিনি। তবে শেষে বঙ্গের তৃণমূল সরকার উচ্ছদের কথাই জোর গলায় বললেন। তাই এই সরকারকে হঠাতে মাঝেমাঝে অন্যান্য রাজনৈতিক দলের সাহায্য নেওয়ার প্রসঙ্গ একেবারে অস্বীকারও করলেন না তিনি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!