এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > শাসকদল ছেড়ে বিজেপিতে, আর বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে – দলবদলে জমজমাট রাজ্য রাজনীতি

শাসকদল ছেড়ে বিজেপিতে, আর বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে – দলবদলে জমজমাট রাজ্য রাজনীতি


আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে এক দল থেকে অন্য দলে আসার রেওয়াজ বড় আকার ধারণ করেছে বঙ্গ রাজনীতিতে। সম্প্রতি রাজ্যের শাসকদলের অনেক হেভিওয়েট নেতাকে বিজেপিতে যোগদান করিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে টালমাটাল করে দিয়েছিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়।

আর এবার রাজ্যভিত্তিক সেই দলবদলের ট্র্যাডিশন শুরু হল আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রেও। প্রসঙ্গত, সম্প্রতি আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রের পাণ্ডবেশ্বর এলাকায় এখানকার তৃণমূল প্রার্থী তথা অভিনেত্রী মুনমুন সেনের উপস্থিতিতে সিপিএম ও বিজেপি ছেড়ে শতাধিক নেতাকর্মী তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন। আর এই ঘটনার একদিন পরেই এবার সেই আসানসোলেরই তৃণমূল মহিলা কংগ্রেসের প্রায় শতাধিক কর্মী তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, এদিন তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন আসানসোল বিজেপির মহিলা মোর্চার সম্পাদিকা সোনালি গিরি। কিন্তু এইভাবে দলবদলে ট্রাডিশন শুরু হল কেন! এদিন এই প্রসঙ্গে সেই সোনালি গিরি বলেন, “বেশ কিছুদিন ধরেই পাণ্ডবেশ্বরের তৃণমূল কর্মীরা আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছিলেন। এদিন তারা যোগদান করেছেন। তৃণমূলে আর কেউ থাকবে না। ধীরে ধীরে তৃণমূল শূন্য হয়ে যাবে।”

তবে শুধু আসানসোল নয়, এদিন কুচবিহারের পুন্ডিবাড়ি এলাকাতেও শতাধিক তৃণমূল কর্মী বিজেপিতে যোগদান করেন। সব মিলিয়ে দিকে দিকে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের নিচুতলা ভেঙে লোকসভা নির্বাচনের আগে বিজেপিতে যোগ দেওয়ায় ঘাসফুল শিবিরের চিন্তা যে দিনকে দিন বাড়তে শুরু করেছে সেই ব্যাপারে একপ্রকার নিশ্চিত রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!