এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > তৃণমূল নয় – বাঁকুড়ার ‘ভয়’ এখন বিজেপিই? বামফ্রন্টের ‘পার্টি ক্লাস’ শুরু জল্পনা

তৃণমূল নয় – বাঁকুড়ার ‘ভয়’ এখন বিজেপিই? বামফ্রন্টের ‘পার্টি ক্লাস’ শুরু জল্পনা

2011 সালে রাজ্যে পালাবদলের পর ক্রমাগত রক্তক্ষরণ হতে শুরু করেছে সিপিএমের। একের পর এক নির্বাচনে ভরাডুবি হওয়া নেতারা এখন কার্যত ঘরে বসা। পতাকা এবং ভবনটি থাকলেও নেতাদের কার্যত দেখাই নেই। আর সঠিক নেতৃত্ব না থাকায় ঘরে বসে পড়েছেন কর্মীরাও। এক সময় বামদুর্গ বলে পরিচিত ছিল বাঁকুড়া। কিন্তু বিগত পঞ্চায়েত ভোটে সারা রাজ্যের মত এই বাঁকুড়াতেও দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে গেরুয়া শিবির। ফলে এখন সেই বিজেপিকে সরিয়ে দ্বিতীয় স্থানে নিজেদের নিয়ে আসতে শীতঘুম থেকে উঠতে শুরু করেছেন বাম নেতারা।

জানা গেছে, এক সময় এই বাঁকুড়া জেলায় যেখানে সিপিএমের সদস্য সংখ্যা ছিল 13 হাজারেরও বেশি, বর্তমানে তা কমে দাঁড়িয়েছে 11 হাজারের কাছাকাছি। ক্ষমতায় আসার আগেই যে জেলায় নিয়মিত দলীয় সদস্যদের নিয়ে পার্টি ক্লাস করতেন সিপিএম নেতারা, সেখানে আজ ক্লাস তো দূর অস্ত, পার্টি অফিসও ঠিকঠাক খোলা পড়ে না।

স্বাভাবিকভাবেই বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকেই সেই দোর্দণ্ডপ্রতাপ সিপিএম দলকে সরিয়ে দ্বিতীয় স্থানে এসে এই জেলায় দাপট বেড়েছে বিজেপির। আর এতেই ঠেলায় পড়ে এখন সিপিএম নামক বিড়াল বাবাজিরা গাছে ওঠার স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছেন। দলীয় সূত্রে খবর, বন্ধ হয়ে যাওয়া পার্টি ক্লাস ফের অনুষ্ঠিত করার পথে হাঁটছে সিপিএম।

সোমবার বাঁকুড়ার স্কুলডাঙ্গার জেলা কার্যালয়ে এই পার্টি ক্লাসে উপস্থিত ছিলেন সিপিএমের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অমিয় পাত্র, শ্রীদীপ ভট্টাচার্য এবং বাঁকুড়া জেলা সম্পাদক অজিত পতি সহ দলের জেলা নেতৃত্বরা। আর এই বৈঠক থেকেই আগামী 5 ই নভেম্বর জেলার সমস্ত ব্লকে এবং 11 ই নভেম্বরের মধ্যে সমস্ত শাখা স্তরের দলের পার্টি ক্লাস শেষ করার নির্দেশ দিয়েছে সিপিএম নেতৃত্ব।

বিজেপি জুজুতেই যে ফের মাঠে নামতে হচ্ছে তাদের তা ঘুরিয়ে কার্যত স্বীকার করে নিয়েছেন বাঁকুড়া জেলা সিপিএমের সম্পাদক অজিত পতি। এদিন তিনি বলেন, আগেও এই পার্টি ক্লাস হতো। কিন্তু 2011 সালের পর থেকে তা অনিয়মিত হয়ে পড়ে। বর্তমানে বিজেপি- আরএসএস-এর জুটি রাজ্যে মেরুকরণের রাজনীতি করছে তাই মতাদর্শগত লড়াইয়ের প্রয়োজন হয়ে পড়েছে।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

রাজনৈতিক মহলের মতে, বর্তমানে বামেরা যে জায়গায় দাঁড়িয়ে রয়েছে তাতে শাসকদল তৃণমূলকে সরানোর মত শক্তি তাদের নেই। আর তাই লোকসভা ভোটের আগে রাজ্যে দ্বিতীয় স্থানে চলে যাওয়া বিজেপিকে সরাতেই এখন তৎপর বাম শিবির।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!