এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বনধে বাস না চলানোয় তৃনমূলের হুমকি পোস্টার, পাল্টা বনধ বাস মালিকদের

বনধে বাস না চলানোয় তৃনমূলের হুমকি পোস্টার, পাল্টা বনধ বাস মালিকদের

বনধে এমনিতেই বিপর্যস্ত ছিল জনজীবন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সরকারের তরফে অতিরিক্ত বাসও পথে নামানো হয়েছিল। কিন্তু কোথাও এমন কিছু নির্দেশ ছিল না যে এই বনধে যদি কেউ না বেরোয় তবে তাঁর ক্ষতি করা হবে! তবে এবারে সেই অঘোষিত নির্দেশ পালন করলেন শাসকদলের নেতা কর্মীরা। বিজেপির ডাকা বনধে গাড়ি বের হয়েছিল জন্য যখন বেশ কয়েকটি বাস পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ আসছে বিজেপির বিরুদ্ধে ঠিক তখনই বনধ পালন করার অপরাধের হুমকি পোস্টার দেওয়ার অভিযোগ উঠল শাসকদল তৃনমূলের বিরুদ্ধে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, হাওড়া স্টেশন, কোলকাতা সহ গ্রামীন হাওড়ার মোট 17 টি রুটে প্রায় 300 টি বাস এই আমতা বাসস্ট্যান্ড থেকে প্রতিদিন যাতায়াত করে। তবে গত বুধবার বিজেপির ডাকা 12 ঘন্টার বাংলা বনধের জেরে কোনোও রুটেই বাস চলাচল করেনি। আর এতেই চরম ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন তৃনমূল কর্মীরা। এদিকে বৃহস্পতিবার সকালে বাস চালাতে এলে বাস মালিকরা দেখেন যে, তাঁদের চাকার হাওয়া খুলে নিয়ে বাস না চালানোর জন্য পোস্টার টাঙিয়ে দিয়েছে শাসকদলের কর্মীসমর্থকেরা। আর যার জেরে এদিন হাওড়া-আমতা ও আন্দুল বাসস্ট্যান্ডে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। এই ঘটনায় বাস মালিকরা রাস্তায় গাড়ি না নামানোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার পাশাপাশি তাঁদের গাড়ির হাওয়া খুলে দেওয়ার জন্য কিছু ক্ষতিপূরনের দাবি করেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এদিকে এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে পুলিশ এলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি। বাস চলাচল বন্ধের কারনে চরম ভোগান্তিতে পড়েন নিত্যযাত্রীরা। তবে এই ঘটনায় শাসকদলের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠায় তা সম্পূর্নরুপে অস্বীকার করে হাওড়া জেলা (গ্রামীন) তৃনমূলের সভাপতি পুলক রায় বলেন, “রাতের অন্ধকারে কে বা করা এই কাজ করেছে তা জানি না। তবে সরকারের নির্দেশ থাকা সত্তেও বাসমালিকরা বাস না চালানোয় অন্যায় করেছেন। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। বাস মালিকদের সাথেও আলোচনা হয়েছে।” তবে শুধু আমতা নয়, এই একই কারনে হাওড়ার সাকরাইলেও বাসের হাওয়া খুলে নেওয়ার অভিযোগ ওঠে তৃনমূল কর্মীদের বিরুদ্ধে। ফলে এদিন এইখানেও বাস না চলায় চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয় নিত্যযাত্রীদের।

Top
error: Content is protected !!