এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > রজত জয়ন্তীতে এসে তৃনমৃল কংগ্রেসের হৃদয়ের 21শে জুলাইয়ের নাম পরিবর্তন হচ্ছে

রজত জয়ন্তীতে এসে তৃনমৃল কংগ্রেসের হৃদয়ের 21শে জুলাইয়ের নাম পরিবর্তন হচ্ছে

প্রত্যেক বছর 21 শে জুলাই “শহীদ দিবস” হিসাবে পালন করে তৃনমূল কংগ্রেস। কিন্তু গত বছর ধর্মতলায় দলের এই শহীদ সমাবেশ থেকেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষনা করেছিলেন, “আগামী বছর 21 শে জুলাইয়ের 25 বছর পূর্তি হবে। তাই আগামী বছল এই দিনটা অঙ্গীকার দিবস হিসাবে পালন করা হবে।” তাই সেদিক থেকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন এবারের 21 শে জুলাই। অপরদিকে “অঙ্গীকার দিবস” নামকরনের পেছনে অন্য কারন তুলে ধরছেন অনেক তৃনমূল নেতারা।তাঁদের মতে, গোটা দেশে মোদী বিরোধীতায় প্রধান মুখ বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই 2019 র লোকসভার আগে এই সভা থেকে বিজেপিকে সরানোর বার্তা দিয়ে এই বাংলার মাটি থেকেই সাম্প্রদায়িক শক্তিকে সরানোর অঙ্গীকার নেওয়া হবে। আর তাই এই সভা এবার অঙ্গীকার দিবস হিসেবেই পালন করা হচ্ছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সোশাল মিডিয়ায় তৃনমূলের পক্ষ থেকে 1993 সালের 21 শে জুলাইয়ের সমস্ত ঘটনা, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লড়াই তুলে ধরে এই সমাবেশকে জনসমাগমের রূপ দিতে জোর প্রচার চালানো হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে তৃনমূলের এক নেতা বলেন, “লোকসভার আগে পঞ্চায়েত নির্বাচন ছিল একটা ছায়াযুদ্ধ। একুশের মঞ্চেই আগামীদিনের বার্তা দেবেন জননেত্রী। আর মন্ত্রের মত সেই বার্তা নিয়েই লোকসভায় বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নামবেন তৃনমূল সৈনিকরা।” এদিকে জেলাগুলি থেকেও 21 শে জুলাইয়ের আসার জন্যে প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে। তৃনমূল কংগ্রেসের সবাই উপস্থিত থাকলেও আসলে এই অনুষ্ঠানের মূল উদ্যোক্তা তৃনমূল যুব। তাই সেক্ষেত্রে তৃনমূল যুবর সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর বাড়তি দ্বায়িত্ব রয়েছে এই সভার। সম্প্রতি বাম চোখে চিকিৎসার কারনে কদিন বাড়িতে থাকলেও মিলনমেলায় জেলা থেকে আসা কর্মীসমর্থকদের থাকার জায়গা পরিদর্শনে যাওয়া থেকে শুরু করে সমস্ত আয়োজনের খুঁটিনাটি তিনি নিজে দেখছেন। আর তাঁরপরেই কর্মসূচীর শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি ঠিক কেমন সেই ব্যাপারে তৃনমূল ভবনে বৈঠকও করার কথা তাঁর। সব মিলিয়ে 21শে জুলাইকে এবার “অঙ্গীকার দিবস” পালন করতে প্রস্তুতি জোরকদমে ঘাসফুল শিবিরে।

আপনার মতামত জানান -
Top