এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > অভিষেকের উপরেই তৃণমূলের সব দায়িত্ব দিতে চলেছেন মমতা? নেতাদের বক্তৃতায় জল্পনা

অভিষেকের উপরেই তৃণমূলের সব দায়িত্ব দিতে চলেছেন মমতা? নেতাদের বক্তৃতায় জল্পনা

বারবার প্রশ্ন উঠেছে, মমতা ব্যানার্জির পর তৃণমূলের হাল কে ধরবে? মমতা স্বয়ং এই প্রশ্নের সরাসরি কোনও উত্তর দেননি। এড়িয়ে গিয়েছেন। একটি সর্বভারতীয় চ্যানেলকে শুধু বলেছিলেন, ‘সেসব ঠিক করা আছে।’ এতদিনে বোধহয় সেই প্রশ্নের উত্তর মিলল। সঙ্গে জন্ম দিয়ে গেল আরও অনেক অনেক প্রশ্নের।

গতকাল অর্থাৎ শনিবার ধর্মতলায় শহীদ দিবসের মঞ্চ মুখ্যমন্ত্রী মমতা থেকে ভারত দখল করতে বিরোধী ঐক্য সংহত করার ডাক দিয়েছেন। সেই শহীদ দিবসের মঞ্চ থেকেই মমতার দলের অন্যান্য নেতা এবং বক্তারা প্রাণ খুলে মমতার ভাইপো তথা রাজ্য তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি অভিষেক ব্যানার্জির প্রশংসা করলেন। ঠিক যেমন অভিষেক-স্তুতিতে ভরিয়ে দিলেন উত্তর কলকাতার সাংসদ তথা তৃণমূল কংগ্রেসের বিশিষ্ট নেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। বক্তব্য পেশ করতে গিয়ে সুদীপবাবু বলেন, ‘অভিষেককে আশীর্বাদ করব। যাতে ও আগামীদিনে আরো সাফল্যের সঙ্গে দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে।’ এদিন যাঁরাই বক্তব্য পেশ করেছেন প্রত্যেকের মুখেই এই তরুণ তুর্কি নেতার প্রশংসার খই ফুটেছে। অভিষেকের নেতৃত্বের প্রতি দলের বাকি কর্মী সদস্যদের যে আস্থা আছে, সেটাই পরিস্কার হয়ে গেল এদিনের শহীদ স্মরণের মঞ্চে।
এই ঘটনা থেকেই দুয়ে-দুয়ে চার করে নিচ্ছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। মমতার পর অভিষেকই যে তৃণমূল দলের কাণ্ডারি হবেন ধীরে ধীরে সেটাই স্পষ্ট হচ্ছে। দলের অন্যান্য হেভিওয়েট নেতাদেরও যে অভিষেকের নেতৃত্ব স্বীকারে আপত্তি নেই সেটাও পরিষ্কার।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এদিকে যাকে নিয়ে দলের নেতৃত্বদের এতো হইচই ২১ -এর মঞ্চে সেই অভিষেককে পাওয়া গেল স্বমহিমায়। কড়া ভাষায় বিরোধীদের আক্রমণ করেছেন ডায়মন্ডহারবারের সাংসদ। উপস্থিত জনতার একাংশের মতে, এদিনের বক্তাদের মধ্যে অভিষেকবাবুর ভাষণই ছিল মারকাটারি। এভাবে বিরোধীদের তোপ দাগতে আগে কখনো দেখা যায়নি তৃণমূলের এই যুব নেতাকে। শুধু চাঁচাছোলা বক্তব্য পেশ নয়, বাড়ির কর্তার মতো সভা তদারকি থেকে অতিথি আপ্যায়ণও করে গেলেন একা হাতে। যা দেখে দলেরই কিছু কর্মীর মন্তব্য, ‘ভাইপোই ভবিষ্যৎ।’
এই মুহূর্তে জাতীয় রাজনীতি ব্যস্ত ২০১৯ এর লোকসভা ভোট নিয়ে। এই ভোটে নিঃসন্দেহে বিজেপি জোটের প্রধান মুখ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বলা যায়, একপ্রকার তাঁর তদারকিতেই মোদী বিরোধী জোট সঙ্ঘবদ্ধ হচ্ছে। ওয়াকিবহাল মহল আন্দাজ করছে, যদি মোদী সরকারকে কেন্দ্র থেকে হটানো যায়, তবে প্রধানমন্ত্রীর কুর্সিতে তৃনমূল নেত্রীর বসার সম্ভাবনা প্রবল। সেক্ষেত্রে স্বাভাবিকভাবে রাজ্যের শাসনভার ছাড়তে হবে মমতাকে। তাই এখন থেকেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে তৈরি করে নিচ্ছেন তিনি। এতে ভবিষ্যতে তৃণমূলের রাশ ধরতেও সুবিধা হবে অভিষেকের। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের আন্দাজকেই নিজেদের বক্তব্যে সিংহভাগ সত্যি করে দিলেন তৃণমূলের প্রবীন নেতারা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!