এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > তিন তালাক বিলের ভাগ্য এখন নির্ভর করছে মমতা ব্যানার্জী সহ তিন প্রভাবশালীর ওপর

তিন তালাক বিলের ভাগ্য এখন নির্ভর করছে মমতা ব্যানার্জী সহ তিন প্রভাবশালীর ওপর

“তিন তালাক” বিল । সুপ্রিম কোর্টে স্বীকৃতি পাওয়ার পর লোকসভায় পাশ হলেও এখনও রাজ্যসভায় আটকে রয়েছে এই ঐতিহাসিক বিল। সূত্রের খবর, সম্প্রতি কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ এ প্রসঙ্গে রাজ্যসভায় বলেন,” কেন্দ্রীয় সরকার তিন তালাক বিরোধী আইন চালু করতে দায়বদ্ধ।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তাই রাজনৈতিক ভেদাভেদ ভুলে সকলকে এই বিল পাশের সমর্থনে পাশে থাকার আহ্বান জানাই।” রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে শুধু এই আবেদন করেই থেমে থাকেননি কেন্দ্রের আইনমন্ত্রী, পাশাপাশি সনিয়া গান্ধী, মমতা বন্যোপাধ্যায় ও মায়াবতী কে “প্রভাবশালী মহিলা” বলে উল্লেখ করে রাজ্যসভায় এই বিল পাশে সমর্থনের আবেদন জানান। রাজনৈতিক মহলের ধারনা, বর্তমানে রাজ্যসভায় এনডিএ জোটের সংখ্যাগরিষ্টতা নেই বললেই চলে। তাই এই বিল পাশ করাতে বিরোধী দলের সুপ্রিমোদের প্রশংসা করে সমর্থন পাওয়ারই চেষ্টা করছেন রবিশঙ্কর প্রসাদ।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

জানা যায়,  বিলের নিয়মানুযায়ী তড়িঘড়ি তিন তালাক দিলে সেটাকে যেমন অবৈধ ঘোষনা করা যাবে তেমনি আইন অনুসারে তিন বছর জেলও হবে স্বামীর। এমনকী এক্ষেত্রে যদি নাবালক সন্তান থাকে তবে সন্তানকে নিজের কাছে রাখতে বিচারকের কাছে আবেদন জানানোর মত ক্ষমতার দেওয়া হয়েছে মুসলিম মহিলাদের। শুধু তাই নয়, সোশাল নেটওয়ার্কিং সাইট বা লিখিত আকারেও এই তালাক দিলে তা তে গন্য হবে না, সেকথাও স্পষ্ট রয়েছে বিলে। এখন দেখার যে রাজ্যসভার এই “তিন তালাক বিরোধী বিল” পেশ করতে কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদের ডাকে আদৌ সারা দেন কি না এই বিজেপি বিরোধী তিন প্রভাবশালী নেত্রীরা!

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!