এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > আর টিকিট কাটতে গিয়ে ট্রেন মিস হবে না,লোকাল ট্রেনে নয়া ব্যাবস্থা

আর টিকিট কাটতে গিয়ে ট্রেন মিস হবে না,লোকাল ট্রেনে নয়া ব্যাবস্থা

দঃ পূঃ রেলওয়ের আর্দ্রা বিভাগের বিভাগীয় ম্যানেজার শ্রী শরদ কুমার শ্রীবাস্তব এদিন মোবাইল অ্যাপ ইউটিএস’র মাধ্যমে আর্দ্রা থেকে বার্ণপুর অবধি অসংরক্ষিত আসনে প্রথম টিকিট বুকিং পরিষেবার সূচনা করলেন। এদিনের সমস্ত অনুষ্ঠান টি আয়োজিত হলো খোদ রেলকর্তার কনফারেন্স রুমে। এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়ার ডিভিশনাল কমারশিয়াল ম্যানেজার শ্রী আদিত্য কুমার চৌধুরী, মুখ্য স্বাস্থ্য অধিকর্তা শ্রী কে বি সাহা, সিনিয়ার ডিভিশনাল ইঞ্জিনিয়ার ( কো- অর্ডিনেশন) শ্রী হরসিমরন সিং, সিনিয়ার ডিভিশনাল নিরপত্তা কমিশনার আর এ আনসারি, সিনিয়ার ডিভিশনাল পার্সোনেল অফিসার শ্রী অমিত সিং মেহরা সহ সমগ্র আর্দ্রা বিভাগের সমস্ত বিভাগীয় অফিসারেরা । সেন্টার ফর রেলওয়ে ইনফরমেশান সিস্টেম (CRIS) ইউটিএস নামক মোবাইল ভিত্তিক পরিষেবার সূচনা করল। রেলবিভাগের এই নতুন পরিষেবা সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে অবগত করতে এদিনের অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের আমন্ত্রন জনানো হয়েছিলো। এদিনের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত সকল সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে আর্দ্রা বিভাগের বিভাগীয় ম্যানেজার শ্রী শরদ কুমার শ্রীবাস্তব জানালেন এদিন থেকেই এই ডিভিশনে নতুন এই মোবাইল অ্যাপ টি কার্যকর হচ্ছে। একই সাথে তিনি জানালেন এই অ্যাপের কিছু কার্যকরীতা –

১। এই ইউটিএস অ্যাপ মূলত অসংরক্ষিত আসনের বুকিং, তৎকাল টিকিটের বর্তমান অবস্থা ও তার অগ্রগতি, প্ল্যাট ফর্ম টিকিট বুকিং, রেল ওয়ালেটে টাকা জমা করা জমা টাকার পরিমান চেক করা, গ্রাহকের প্রোফাইল পরিচালনা করা এবং পূর্বেকার টিকিট বুকিং সংক্রান্ত ইতিহাস জানা প্রভৃতি ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে।
২। এই ইউটিএস অ্যাপলিকেশন খুবই সহজ পরিচালনযোগ্য , অ্যানড্রয়েড , উইন্ডোস এবং আইওএস ফোনের উপযুক্ত । গ্রাহকেরা অতি সহজেই এই অ্যাপ , গুগ্যল প্লে স্টোর, উইন্ডোস স্টোর, অথবা অ্যাপেল স্টোর থেকে বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে।
৩। প্রথমেই যাত্রীকে এই অ্যাপে নিজের নাম , ফোন নম্বর, শহর ইত্যাদি প্রাথমিক তথ্য দিয়ে রেজিস্টার করতে হবে। এছাড়াও এই অ্যাপে থাকছে ট্রেন এবং টিকিটের ধরণ, ট্রেন রুট , যাত্রীর আসন সংখ্যা প্রভৃতি তথ্য পূরণ করার জন্যে আলাদা অপশান।
৪। রেজিস্ট্রেশান প্রক্রিয়া সফল ভাবে সম্পন্ন হলে গ্রাহকের শূন্য ব্যলেন্সের রেলওয়ে ওয়ালেট স্বয়ংক্রিয় ভাবেই তৈরী হয়ে যাবে। এই রেলওয়ে ওয়ালেট তৈরীর জন্যে গ্রাহককে কোনোও টাকা খরচ করতে হবেনা। জানা যাচ্ছে আগামী ২৩ শে অগাষ্ট অবধি এই ওয়ালেট রিচার্জের ৫% অর্থ ওয়ালেটে জমা থাকবে।
৫। এই রেলওয়ে ওয়ালেট রিচার্জ করা যাবে যে কোনোও ইউটিএস কাউন্টার থেকে অথবা  www.utsonmobile.indianrail.gov.in এই ওয়েযসাইটে প্রাপ্ত রিচার্জ অপশানের মাধ্যমে।
৬। যদি মোবাইল ফোনের ইন্টারনেট পরিষেবা উপযুক্ত না থাকে সেক্ষেত্রে টিকিট বুকিং করা সম্ভব হবেনা।
৭। আগাম টিকিট বুকিং এর কোনো সুযোগ থাকছেনা। অর্থাৎ রেল যাত্রার তারিখ এবং টিকিট বুকিং এর তারিখ এক হতে হবে।
৮। কাগজী টিকিট নয় – যাত্রীরা টিকিটের প্রতিলিপি ছাড়াই সফর করতে পারবে। যদি টিকিট পরীক্ষক টিকিট দেখতে চায় সেক্ষেত্রে যাত্রী তাঁর ফোন অ্যাপের শ্যো টিকিট অপশানের মাধ্যমে তাঁর টিকিট দেখাতে পারবেন।
৯। স্মার্ট ফোন কে কাগজ বিহীন টিকিট পরিষেবা ব্যবহারের জন্যে এক্ষেত্রে গিপিএস সুবিধাযুক্ত হতে হবে।
১০। এই অ্যাপের মাধ্যমে বুকিং করা টিকিট বাতিল করার কোনো সুযোগ থাকছেনা।
১১। কাগজ বিহীন টিকিটের ক্ষেত্রে টিকিট বুকিং এর ৩ ঘন্টা পর যাত্রীকে তাঁর যাত্রা আরম্ভ করতে হবে।
১২। এই অ্যাপ থেকে তৎকাল টিকিট বুকিং এবং তার বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে জানা যাবে। এক্ষেত্রে টিকিট টি বুকিং এর দিন থেকে পরবর্তী দিন অবধি সক্রিয় থাকবে। তৎকাল টিকিটের ক্ষেত্রে টিকিটের অবস্থান এবং অগ্রগতি জানার জিপিএস পরিষেবা থাকার প্রয়োজন নেই।
১৩। প্ল্যাটফর্ম টিকিট কাটা ও এই মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে সম্ভব।
১৪। যদি কোনো সফররত যাত্রী তাঁর ফোনের থাকা টিকিট দেখাতে অসমর্থ হন সেক্ষেত্রে তিনি বিনা টিকিটের যাত্রী হিসেবে গণ্য হবেন।
১৫। অতিরিক্ত তথ্যের জন্যে “https://www.utsonmobile.indianrail.gov.in”. এই ওয়েবসাইট টি দেখুন।

Top
error: Content is protected !!