এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > স্বাধীনতা দিবসেও মুখ্যমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় দল বদলালেন কয়েক হাজার বিরোধী নেতা-কর্মী

স্বাধীনতা দিবসেও মুখ্যমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় দল বদলালেন কয়েক হাজার বিরোধী নেতা-কর্মী

এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে গোটা রাজ্য জুড়েই শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের জয় পতাকা উড়লেও বেশ কয়েকটি জেলায় বিরোধীরা, বিশেষ করে বিজেপি – রীতিমত থাবা বসিয়েছিল ঘাসফুল শিবিরের ভোটব্যাঙ্কে। আর এই নিয়ে পঞ্চায়েতের ফলাফল ঘোষণার দিন সন্ধ্যাবেলায় নবান্নে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন এই নিয়ে তিনি মোটেই বিচলিত নন।

তৃণমূল নেত্রী সেদিন দৃঢ়তার সঙ্গে জানিয়েছিলেন, গণনার কাজ তখনও শেষ না হলেও, তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা শুরু করে দিয়েছেন জয়ী বিরোধী দলের সদস্যরা। সকলেই নাকি তাঁর উন্নয়নে আস্থা রেখে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করতে চান, যদিও তিনি তাঁদের জানিয়েছিলেন যে এইসব পরে হবে। তবে তাঁর দাবিমত এরপরেই বিভিন্ন দল থেকে জয়ী বিরোধী প্রার্থীরা দলবদল করে তৃণমূলে যোগ দিতে শুরু করেন। অন্যদিকে, বিরোধীদের দাবি জোর করে বা ভয় দেখিয়ে এই দলবদল করানো হচ্ছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

যাইহোক, এই দল পরিবর্তন ক্যালেণ্ডারের যে কোনো তারিখেই সম্ভব হতে পারে। কিন্তু তা দেশের স্বাধীনতা দিবসের দিনে হলে একটা বাড়তি মাত্রা তো নিঃসন্দেহেই যোগ হয়। স্বাধীনতা দিবসের দিনে উত্তর চব্বিশ পরগনার বাদুড়িয়ার বাগজোলা গ্রাম পঞ্চায়েতের ছয় বিরোধী সদস্য তাদের দল পরিবর্তন করে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস দলের সদস্য পদ গ্রহণ করলেন।

ফলে স্বভাবতই ঐ পঞ্চায়েতটি সম্পূর্ণভাবেই বিরোধী শূন্য হয় শাসক দলের ক্ষমতাধীন হয়ে গেলো। প্রসঙ্গত এদিন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নের ওপরে আস্থা রেখে এবং সেই উন্নয়নের কাজের একজন সক্রিয় সদস্য হতে বাদুড়িয়া ব্লকের বাগজোলা গ্রাম পঞ্চায়েতের বাম ও কংগ্রেস জোটের মোট ৬ জন জয়ী সদস্য সহ প্রায় দু হাজার কংগ্রেস ও সিপিএমের নেতা কর্মী ও সমর্থক তৃণমূল কংগ্রেস দলের সদস্যপদ গ্রহণ করলেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!