এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বিজেপির রথযাত্রা ‘আটকালো’ না আদালত, বল গেল শীর্ষ প্রশাসনের কোর্টে – জানুন বিস্তারিত

বিজেপির রথযাত্রা ‘আটকালো’ না আদালত, বল গেল শীর্ষ প্রশাসনের কোর্টে – জানুন বিস্তারিত

রাজ্যের ৪২ টি লোকসভা কেন্দ্র ছুঁয়ে যে রথযাত্রার পরিকল্পনা করেছিল বিজেপি, তার অনুমতি দিল না হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। প্রশাসনের কোর্টেই বল ঠেলে দিলেন বিচারপতি বিশ্বনাথ সমাদ্দারের ডিভিশন বেঞ্চ।

আগামী ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে রাজ্য প্রশাসনের তিন শীর্ষ আধিকারিক অর্থাৎ মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব এবং ডিজির সঙ্গে বৈঠক করতে হবে রাজ্য বিজেপির তিন আধিকারিককে। সেখানে রথযাত্রার বিষয়ে সমস্ত আলোচনা করতে হবে।
দুপক্ষেরই সুবিধা-অসুবিধা পরস্পরকে জানতে হবে। সেই আলোচনার ফলাফল ১৪ ডিসেম্বর আদালতকে জানাতে হবে, এমনটাই এদিন জানিয়ে দিল উচ্চ আদালত।

এছাড়া এদিন সিঙ্গেল বেঞ্চের বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর রায়কে সংশোধনও করেন ডিভিশন বেঞ্চের বিচারপতিরা। এবং সিঙ্গেল বেঞ্চের রায়ের কোনো গ্রহনযোগ্যতা নেই বলেও জানিয়ে দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ।

আদালত সূত্রের খবর থেকে জানা গিয়েছে, এদিন শুনানির শুরু থেকেই বিচারপতিদের প্রশ্নে কোনঠাসা অবস্থা হয় রাজ্যের এজি বা অ্যাডভোকেট জেনারেলের। ৫ নভেম্বর থেকে ৬ ডিসেম্বর এই একমাসের দীর্ঘসময় পেয়েও কেন রাজ্যসরকার বিজেপির রথযাত্রার অনুমতি দিতে পারল না সে প্রশ্ন করা হয়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এমন কোন সমস্যা ছিল যার জন্যে বিজেপিকে ঝুলিয়ে রেখেছে রাজ্যসরকার? প্রথমে এজিকে এই প্রশ্নই করেন বিচারপতি বিশ্বনাথ সমাদ্দার। তবে এ প্রশ্নের যথার্থ উত্তর দিতে ব্যর্থ হওয়ায় বিচারপতি বিশ্বনাথ সমাদ্দার ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘একমাস কি আপনারা শীতঘুমে ছিলেন?’

এক গোয়েন্দা রিপোর্টকে সামনে রেখেই এদিন সিঙ্গেল বেঞ্চে সওয়াল-জবাব করেছিল রাজ্যসরকার। এই রিপোর্টের উপর নিজস্ব মতামতও পেশ করেছেন বিচারপতি বিশ্বনাথ সমাদ্দার। তাঁর বক্তব্য, কেবল আশঙ্কার কারণ দেখিয়ে কোনো রাজনৈতিক দলের কর্মসূচি বাতিল করার অধিকার নেই রাজ্যসরকারের।

উচিৎ ছিল এই আশঙ্কার কথা বিজেপির সঙ্গে আলোচনা করা। যেটা তাঁরা না করে একরকম অন্যায়ই করেছেন বিজেপির প্রতি। ডিভিশন বেঞ্চের এই রায়কে ‘নৈতিক জয়’ বলেই মনে করছে রাজ্যবিজেপি।

এই রায়কে যথার্থ বলেই মনে করেছে বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার। তবে এখন চোখ রয়েছে ১৪ ডিসেম্বরের দিকে। ওদিন আদালতের রায়ের উপরই নির্ভর করছে রাজ্যের মাটিতে বিজেপির রথযাত্রার ভবিষ্যত। এমনটাই মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!