এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > শিক্ষাক্ষেত্রে নৈরাজ্যের অভিযোগ করে বিজেপিতে যোগ শিক্ষকদের

শিক্ষাক্ষেত্রে নৈরাজ্যের অভিযোগ করে বিজেপিতে যোগ শিক্ষকদের

সাম্প্রতিককালে সারা পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে বিজেপি তে যোগদান পর্ব চলছে।একদিকে যেমন বিভিন্ন দলের রাজনৈতিক কর্মীরা দলে দলে বিজেপিতে যোগদান করছেন অপর দিকে সরকারি কর্মচারী ও কলেজের ছাত্র সংগঠনেও গেরুয়াপন্থীদের শক্তি বৃদ্ধি হয়েই চলেছে, এই ধারা বজায় রেখেই মুর্শিদাবাদে পদ্ম শিবিরে যোগ দিলেন ২৫ জন শিক্ষক।তাঁরা বাহারামপুরের বেলডাঙা চক্রে শিক্ষকতা করেন বলে জানা গেছে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

আজ বহরমপুর শহরের দলীয় কার্যালয়ে বিজেপি সভাপতি গৌরীশংকর ঘোষ তাঁদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন।শিক্ষকদের এই যোগদান পর্বের সময় গৌরীশঙ্করবাবু বলেন, “রাজ্যে যেভাবে একনায়কতন্ত্র চলছে, তা মানতে পারছে না জনসাধারণ। আর সেই অরাজকতা থেকে পরিত্রাণ পেতে একে একে বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষ যোগদান করছে বিজেপিতে।” এছাড়াও তিনি বলেন মোদিজির কাজে অনুপ্রাণিত হয়ে বহু মানুষ বিজেপিতে যোগদান করছে।এভাবেই রাজ্যে বিজেপির ক্ষমতা দিন দিন বাড়ছে।

সদ্য বিজেপিতে যোগদান করা শিক্ষক সন্দীপ মণ্ডল বেতন বৈষম্য ও শিক্ষাক্ষেত্রে নৈরাজ্যের দিকে আঙ্গুল তুলছেন। পাশাপাশি তিনি সাংবাদিকদের জানান, “শিক্ষকদের উপর আক্রমণ নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা।এমন কী শিক্ষকদের কাছ থেকে তোলা আদায়ও হচ্ছে। বর্তমান শাসকদলের এই সব কার্যকলাপে আমরা অসন্তুষ্ট। বারবার রাজ্য সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েও সুবিচার পাইনি। তাই নরেন্দ্র মোদির মতাদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আমরা শিক্ষাক্ষেত্রে নৈরাজ্য যোগ দিলাম।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!