এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > এবার হাজিরা খাতায় শিক্ষকদের সই না করা বা ভিজিটর বুক না থাকা নিয়ে প্রশ্ন শুরু আধিকারিকদের

এবার হাজিরা খাতায় শিক্ষকদের সই না করা বা ভিজিটর বুক না থাকা নিয়ে প্রশ্ন শুরু আধিকারিকদের

Priyo Bandhu Media


এবার হাজিরা খাতায় শিক্ষকদের সই না করা নিয়ে এক বৈঠকের রাজ্য শিক্ষা দপ্তরের আধিকারিকারিকের তোলা প্রশ্নে তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হল শিক্ষামহলে। সূত্রের খবর, গত মঙ্গলবার পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় আসেন রাজ্য শিক্ষা দপ্তরের জয়েন্ট সেক্রেটারি সুশান্ত অধিকারী এবং ডেপুটি সেক্রেটারি আব্দুর সালাম। আর এরপর বুধবার জেলাশাসকের অফিসে জেলার বিদ্যালয় পরিদর্শকের সাথে একটি বৈঠক করেন। আর এই বৈঠকেই জেলার স্কুলগুলিতে কোনো ভিজিটর বুক না থাকায় আদৌ সেই স্কুলগুলি পরদর্শন হয়েছে কি না তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন এই দুই আধিকারিক।

পাশাপাশি এরপর থেকে জেলার প্রতিটি স্কুলে এসআইদের পরিদর্শন করার নির্দেশ দিয়ে মতামত লিখে আসারও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, এদিন তমলুকের কুলবেড়িয়া ভীমদেব আদর্শ বিদ্যাপীঠ, কুলগেছিয়া প্রাথমিক স্কুল এবং সালগেছিয়া বিদ্যালয় পরিদর্শন করে আধিকারিকেরা দেখতে পান যে, অনেক স্কুলের হাজিরা খাতায় সাদা কালি দিয়ে কিছু মোছা রয়েছে। আবার কোথাও বা এক সপ্তাহের হাজিরা ফাঁকা হয়েছে। এদিনের বৈঠকে সেই ব্যাপারে সঠিক পদক্ষেপ গ্রহনেরও নির্দেশ দিয়েছেন এই শিক্ষা দপ্তরের আধিকারিকেরা।

অন্যদিকে এই শিক্ষা দপ্তরের আধিকারিকদের পেয়ে পরিকাঠামো উন্নয়নের জন্য 40 লক্ষ টাকার প্রোজেক্টও জমা দিয়েছে কুলবেড়িয়া স্কুল কতৃপক্ষ। এদিকে এই বৈঠকের পর পূর্ব মেদিনীপুর জেলার অতিরিক্ত জেলাশাসক (ট্রেজারি) শেখর সেন বলেন, “যে সমস্ত বিদ্যালয়ে সীমানার প্রাটীর নেই সেইখানে বায়ো ফেন্সিং সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অন্যদিকে এই বৈঠকের পরই আধিকারিকদের নির্দেশে তারা তমলুকের কয়েকটি বিদ্যালয়ও পরিদর্শন করেন বলে জানান জেলার বিদ্যালয় পরিদর্শক আমিনুল হাসান। সব মিলিয়ে এবার এবার বিদ্যালয়ে শিক্ষকদের হাজিরা ও ভিজিটর বুক নিয়ে কড়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে শিক্ষা দপ্তর।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!