এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > আদালতের নির্দেশে স্বস্তির শ্বাস শিক্ষকদের, বাড়ল বেতন-বৈষম্য ঘোচার আশা

আদালতের নির্দেশে স্বস্তির শ্বাস শিক্ষকদের, বাড়ল বেতন-বৈষম্য ঘোচার আশা

স্নাতক স্তরের শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য দূর করতে বিচারপতি শেখর ববি সারাফ  পে-কমিশনের সেক্রেটারিকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিলেন। প্রসঙ্গত মে মাসে সতীশচন্দ্র মাহাত সহ ৩৪২ জন শিক্ষক এই বেতন বৈষম্যের জটিলতা দূর করতেই কলকাতা হাইকোর্টের শরণাপন্ন হন। এদিন স্নাতক ও স্নাতকোত্তর স্তরের শিক্ষকদের বেতন রোপা ২০০৯ অনুয়াযী মারাত্মকভাবে বেতন বৈষম্য ও বঞ্চনার শিকার হয়েছে জানিয়ে  আবেদনকারী কলেজ শিক্ষকদের আইনজীবি অনিন্দ্য বসু ও মলয় বসু আদালতে অভিযোগ দায়ের করে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তাঁরা আদালতে বিচারককে বলেন ,” স্নাতকস্তরের শিক্ষকদের বেতন কেন্দ্রের প্রশিক্ষিত শিক্ষকদের সমতুল বেতন পরিকাঠামো করতে হবে। পাশাপাশি রাজ্য সরকারি স্কুলের স্নাতকদের মতো ক্যারিয়ার অ্যাডভান্সমেন্ট স্কিম (ক্যাস)-এর সুযোগ-সুবিধা ছাড়াও আর্ন লিভ বেনিফিটও দিতে হবে।” এরপরে  সরকারি আইনজীবী জয়তোষ মজুমদার আদালতে জানান রাজ্য সরকার যেহেতু ষষ্ঠ বেতন কমিশন গঠন করেছে তাই মামলাটি অর্থহীন। এরপরে সরকারী আইনজীবি এবং বিচারকের বাদানুবাদের পরে বিচারপতি ষষ্ঠ বেতন কমিশনের সেক্রেটারিকে বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!