এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > তৃণমূলের উন্নয়নের কেন বিরোধীতা করছে বিজেপি সেই ‘রহস্য’ ফাঁস করলেন হেভিওয়েট মন্ত্রী

তৃণমূলের উন্নয়নের কেন বিরোধীতা করছে বিজেপি সেই ‘রহস্য’ ফাঁস করলেন হেভিওয়েট মন্ত্রী

রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী তথা তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা ফের একবার গর্জে উঠলেন বিজেপির বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলে। করিমপুর বাসস্ট্যান্ডে জনসভায় দাঁড়িয়ে তীব্র বাক্যবাণে বিদ্ধ করলেন রাজ্যের পদ্মশিবিরকে। এদিনের সভায় সুব্রতবাবু ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন করিমপুরের বিধায়ক মহুয়া মৈত্র,তেহট্টের বিধায়ক তথা জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি গৌরীশংকর দত্তের মতো বাঘা বাঘা তৃণমূল নেতৃত্বরা। প্রসঙ্গত, এই বাসস্ট্যান্ডের জনসভায় দাঁড়িয়েই গত সপ্তাহে রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ আক্রমণ শানিয়েছিলেন রাজ্যের শাসকদলকে। উন্নয়ন নিয়ে কটাক্ষ করেছিলেন রাজ্যসরকারকে। এদিন করিমপুরের উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরার পাশাপাশি রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বের কটাক্ষেরই পাল্টা জবাব দিতে স্বমহিমায় দেখা গেলো সুব্রতবাবুকে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

তৃণমূলের দাপুটে এই নেতা মঞ্চে দাঁড়িয়ে বিজেপির দিকে তোপ দেগে জানালেন যে বিজেপি শুধু মামলা করে আর তৃণমূল করে উন্নয়ন। বিজেপি করে জাতপাতের রাজনীত আর তৃণমূল সম্প্রীতির বার্তা ছড়ায়। এ প্রসঙ্গে তিনি আরো জানান যে বিজেপি তাঁদের উন্নয়ন নিয়ে কটাক্ষ করার পর তিনি তিনি নিশ্চিত যে উন্নয়ন কী জিনিস তা বিজেপির বোধের বাইরে। তিনি নিশ্চিত করে এটাও জানান যে, গোটা রাজ্যের যেকোনো বিধানসভা এলাকার থেকে করিমপুরের উন্নয়ন সবথেকে বেশি হয়েছে। এর সঙ্গে বিজেপিকে মাথা খারাপ বলেও ব্যাখ্যা করলেন মন্ত্রী। জানালেন,বিজেপি নাকি বলে বেড়াচ্ছে লোকসভা নির্বাচনে তাঁরা নাকি ২২ টি আসনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে। বিজেপির রাজনৈতিক নেতাদের মাথায় ব্যামো থাকার দরুণ এরকম ভুল বকছেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

করিমপুরের উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরতে তিনি বলেন যে, তিনি নিজে ঘুরে ঘুরে করিমপুরের বিভিন্ন জায়গা পর্যবেক্ষণ করেছেন। দেখেছেন রাজ্যসরকারের তরফ থেকে পঞ্চায়েত গুলোতে টাকা পাঠানো হয়েছে। সেই টাকার মাধ্যমেই হয়েছে উন্নয়ণমূলক কর্মসূচি। এছাড়াও জানান যে, করিমপুরের নাটনা চত্বরে হতে চলেছে ডাক বাংলো সংস্কার কর্মসূচি। সেই কাজ তদারক করার দায়িত্বে রয়েছেন প্রশাসনিক কর্তারা এবং এলাকার বিধায়করা। আগামী ২০ দিনের মধ্যেই এই সংস্কার কর্মসূচি শুরু করা হবে বলেও আশ্বাস দেন মন্ত্রী। এর সঙ্গে কটাক্ষের ভঙ্গিতে বিজেপিকে উদ্দেশ্য করে জানান , রাজ্যের পদ্মবাহিনী বুঝে গেছেন যে এবারের লোকসভা ভোটে তাঁদের পতন অনিবার্য। এবার বিজেপি বিরোধী জোটের প্রতিনিধিত্ব করছেন খোদ এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেজন্য এবার বিজেপি একটি আসনও পাবে না,এমনটাই সদর্পে জানালেন সুব্রতবাবু। উল্লেখ্য, গত লোকসভা ভোটে বিজেপির ঝুলিতে এসেছিলো মাত্র ২ টি আসন। কিন্তু এবার সেটাও জুটবে না তাঁদের। মানুষের ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করার যোগ্য জবাব পাবে তাঁরা। আর কথা শেষে এটাও জানান যে, আগামী দিনগুলোতেও করিমপুরের উন্নয়ন তরতর করে এগোবে। পঞ্চায়েত মন্ত্রীর এদিনের বিজেপি বিরোধী ভাষণে রাজ্যের পদ্মশিবিরের অন্দরে গুঞ্জন শুরু হলেও তা নিয়ে তাঁদের তরফ থেকে এখনো কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!