এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কেন্দ্রের সঙ্গে চুক্তি ভাঙতেই তাজপুর নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকারের

কেন্দ্রের সঙ্গে চুক্তি ভাঙতেই তাজপুর নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকারের

সম্প্রতি অবশেষে তাজপুর বন্দর রাজ্য সরকার নিজেরাই তৈরি করবে বলে জানিয়ে দিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই এই তাজপুর বন্দরে পিফিজিবিলি স্টাডি রিপোর্ট তৈরি করে এই বন্দরটিকে অনেকটাই লাভজনক করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আর এবারে এই স্টাডি রিপোর্ট হাতে পেয়েই এবার এই তাজপুর বন্দরকে নতুন রূপে সাজাতে উদ্যোগী হয়েছে রাজ্য।

জানা গেছে, এই তাজপুর বন্দরে মাইনর পোর্ট তৈরি করতে উদ্যোগী হচ্ছে রাজ্যের বর্তমান সরকার। আর এই মাইনর পোর্ট তৈরি করতে কোনো অনুমতি লাগবে না। ফলে পরিবেশ মন্ত্রকের সার্টিফিকেট পেলেই সেই কাজ শুরু করা যাবে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, প্রায় তিন বছর আগে এই তাজপুর বন্দর গড়ে তোলার জন্য রাজ্যের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন সরকার একটি পরিকল্পনা গ্রহন করে। যেখানে রাজ্যের সঙ্গে কেন্দ্রীয় জাহাজ মন্ত্রকের একটি চুক্তিও হয়। যে চুক্তিতে কেন্দ্র এবং রাজ্যের শেয়ার ছিল 74:26 শতাংশ।

 

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিকে চুক্তি হয়ে গেলেও দীর্ঘদিন ধরে তা কেন্দ্রের কাছে পড়ে থাকায় অবশেষে সেই চুক্তিভঙ্গের সিদ্ধান্ত নিয়ে রাজ্যের পক্ষ থেকে এই ব্যাপারে কেন্দ্রকে লিখিত ভাবে নিজেদের অবস্থান জানিয়ে দেওয়া হয়। কেন্দ্রকে স্পষ্ট ভাষায় মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দেন যে, এই মাইনর পোর্ট রাজ্য সরকারই তৈরি করবে।

জানা গেছে, ইতিমধ্যেই এই মাইনর পোর্ট তৈরীর ব্যাপারে নবান্নের সঙ্গে বেশ কয়েকটি বেসরকারি সংস্থা আলোচনাও করেছে। অন্যদিকে রাজ্যের তাজপুর বন্দরে এই মাইনর পোর্ট তৈরি করে যে অনেকটাই লাভবান হবে গোটা রাজ্য এদিন সেই ব্যাপারে আশা প্রকাশ করেছেন নবান্নের এক শীর্ষস্থানীয় আধিকারিক। কিন্তু এই মাইনর পোর্ট তৈরি হলে কিভাবে লাভবান হবে বাংলা? একাংশের মতে, বর্তমানে কলকাতা বন্দরটিই হল মেজর পোর্ট।

আর তার অধীনেই হলদিয়া বন্দর রয়েছে। ফলে তাজপুর বন্দরে এই মাইনর পোর্ট হলে হলদিয়া বন্দরের উপর থেকে প্রভাব অনেকটাই কমবে। সব মিলিয়ে এবার কেন্দ্রের সঙ্গে তাজপুর নিয়ে চুক্তি ভাঙতেই তাজপুরে মাইনর পোর্ট তৈরির ব্যাপারে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!