এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "vote"

নির্বাচনের খসড়া তালিকা প্রকাশ, ময়দানে নেমে পড়ল বিজেপি

  2021 এর বিধানসভা নির্বাচন বিজেপির কাছে মূল টার্গেট। তবে তার আগে মানুষ তাদের সাথে আছে কিনা, তা যাচাই করতে পৌরসভা নির্বাচনকেই পাখির চোখ করেছে বঙ্গ বিজেপি। আর সেদিক থেকে শুক্রবার রাজ্যের বিভিন্ন পৌরসভার ভোটার তালিকা চূড়ান্ত ভাবে প্রকাশ হওয়ার পরেই, এই ব্যাপারে ময়দানে নেমে পড়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। বস্তুত, শুক্রবার

উত্তরবঙ্গের হেভিওয়েট পৌরসভা দখল করতে ঘুটি সাজাচ্ছে বিজেপি, জানুন বিস্তারিত!

  2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা আসন থেকে 50 হাজারেরও বেশি ভোটে এগিয়ে থাকা সত্ত্বেও, কালিয়াগঞ্জ বিধানসভার উপনির্বাচনের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীর কাছে পরাজিত হতে হয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টির প্রার্থীকে। যা নিয়ে রীতিমতো আলোড়ন পড়েছিল ভারতীয় জনতা পার্টির ব্যক্তিত্বদের মধ্যে। কিন্তু আসন্ন 2021 সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে উত্তর দিনাজপুরের তিনটি

পাখির চোখ পুর নির্বাচন, ভোট টানতে জনমোহিনী পদক্ষেপ তৃণমূল পরিচালিত পৌরসভার!

  সামনেই পৌরসভা নির্বাচন। আর তার আগে এবার পৌরবাসীকে বড়সড় সুখবর দিল পুরাতন মালদা পৌরসভা। জানা গেছে, আগামী জানুয়ারি মাস থেকে পুরাতন মালদা পৌরসভা এলাকার বাসিন্দাদের জলকর কমিয়ে অর্ধেক করা হল। পাশাপাশি প্রবীণ নাগরিকদের ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য সিদ্ধান্ত নিতে দেখা গেল তৃণমূল পরিচালিত এই পৌরসভাকে। সাধারণ মানুষের উন্নতিকল্পে তৃণমূল পরিচালিত পৌরসভার উদ্যোগ

পুরভোটে তৃণমূলকে হারাতে অতীতের কথা ধরলেন দিলীপ ঘোষ

লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি বাংলায় ভালো ফল করলেও, যত দিন যাচ্ছে ততই তাদের অবস্থা খারাপ হতে শুরু করেছে। বর্তমানে নাগরিকত্ব সংশোধনী ইস্যু নিয়ে তৃণমূলের প্রচারে বিজেপি কিছুটা হলেও ব্যাকফুটে চলে গিয়েছে। আর এই পরিস্থিতিতে 2021 এ বাংলাকে দখল করার টার্গেট নেওয়া বিজেপিকে পৌরসভা নির্বাচনে ভালো ফল করতেই হবে, তা বুঝতে পেরেছে

পুরসভা নির্বাচন নিয়ে কড়া বার্তা তৃনমূলের, সংশয়ে দলের কাউন্সিলররা!

  2019 এর লোকসভা নির্বাচনে বাংলার ফলাফল ছিল চমকপ্রদ। 42 এ 42 শ্লোগান তুলেছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে সেই শ্লোগানকে দমিয়ে দিয়ে 42 এর মধ্যে 18 টি আসন দখল করে নিতে দেখা গিয়েছিল ভারতীয় জনতা পার্টিকে। অন্যদিকে রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় থাকলেও তাদের দখলে এসেছিল 22 টি আসন। যা

পুরসভার প্রস্তুতিতে প্রশ্নমালা তৈরি টিম পিকের, জোর গুঞ্জন!

  তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি হিসেবেই পরিচিত ছিল কোচবিহার। তবে লোকসভা নির্বাচনে এই কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্র দখল করে নিয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি তারপর থেকেই ক্রমশ কোচবিহারের ব্যাকফুটে চলে গিয়েছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস তবে সম্প্রতিকালে একের পর এক রাজনৈতিক কর্মসূচির মধ্য দিয়ে কোচবিহারে ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে তারা। কিন্তু লোকসভায় কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্র

পুরসভা নিয়ে নয়া আইন আসছে রাজ্যে , সই করলেন রাজ্যপাল

  এতদিন কোনো ব্যক্তি যদি মন্ত্রী হতেন, তাহলে তার আগে নির্বাচনে না দাঁড়ালেও হত। তবে মন্ত্রী হওয়ার ছয় মাসের মধ্যে তাকে কোনো একটি বিধানসভা কেন্দ্র থেকে জিতে আসতে হত। তবে সরকারের একদম শীর্ষ পদের জন্য এই নিয়ম থাকলেও, পৌরসভা বা পঞ্চায়েত স্তরে এরকম কোনো নিয়ম ছিল না। ফলে পৌরসভার চেয়ারম্যান হতে

মহারাষ্ট্রে কি ভাঙতে চলেছে জোট সরকার! মুচকি হাসি বিজেপির মুখে

মহারাষ্ট্রে এবারও ক্ষমতা দখল করতে চেয়েছিল ভারতীয় জনতা পার্টি। কিন্তু শরিক শিবসেনার সঙ্গে মতানৈক্যের জেরে ফিফটি-ফিফটি মন্ত্রিত্বের ফর্মুলা না মেলায়, অবশেষে সরকার গঠন করার স্বপ্ন পূরণ হয়নি গেরুয়া শিবিরের। যার ফলে এনসিপি, শিবসেনা এবং কংগ্রেস জোট বিজেপিকে অস্বস্তিতে ফেলে মহারাষ্ট্রে গঠন করেছে জোট সরকার। তবে প্রথম থেকেই বিজেপি সেই জোট

নাগরিকত্ব আইনের স্বপক্ষে চালু হচ্ছে নির্বাচন, ভোট কিভাবে দেবেন! জেনে নিন

  সংশোধিত নাগরিক আইন নিয়ে ইতিমধ্যেই উত্তাল হয়ে রয়েছে গোটা পশ্চিমবঙ্গ। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্বয়ং জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকারের এই আইন তিনি এবং তার দল মানেন না। পাশাপাশি বাংলায় এই আইন কার্যকর করা হবে না। শুধু তাই নয়, তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে ইতিমধ্যেই রাজ্য স্তর থেকে শুরু করে একেবারে

ঝাড়খন্ডে কার হাতে থাকবে ব্যাটন, জেনে নিন আগাম সমীক্ষা

  2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসে ভারতীয় জনতা পার্টি। আর ভারতীয় জনতা পার্টির 2019 সালের এই ফলাফল সর্বকালের সেরা পারফর্ম্যান্স। কিন্তু লোকসভা নির্বাচনে দ্বিতীয়বারের জন্য জয়যুক্ত হয়ে মোদি 0.2 সরকার গঠন হলেও, সমগ্র দেশে লোকসভা পরবর্তী সবকটি নির্বাচনে ব্যাপক পরিমাণে হতাশ হতে হয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। রাজনৈতিক

Top
error: Content is protected !!