এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "trinamool"

বীরভূমে দুধকুমারকে আটকাতে গোবর লেপা থেকে শুরু করে অশ্লীল ভাষার অভিযোগ, মানতে নারাজ তৃণমূল

প্রতি নির্বাচনের আগেই বিতর্কিত মন্তব্য করে খবরের শিরোনামে চলে আসেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। এবারেও তার কোনো ব্যতিক্রম ছিল না। যা নিয়ে বিরোধীদের তরফ সেই অনুব্রত মণ্ডলের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে একাধিক অভিযোগ করা হয়েছিল। কিন্তু এবার সেই অনুব্রত মণ্ডলের দল তৃনমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে বিজেপি সম্পর্কে অশ্লীল ভাষা প্রয়োগের

যাদবপুরে কোন দলের পাল্লা ভারী? কি হতে চলেছে লোকসভা ভোটে

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে মূল লড়াই রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল বনাম বিরোধী দল বিজেপির মধ্যেই যে হবে সেই ব্যাপারে একপ্রকার নিশ্চিত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। আর সেইমতই রাজ্যের প্রতিটি লোকসভা কেন্দ্রে কে কাকে টেক্কা দেবে সেই ব্যাপারে এখন থেকেই নানা সমীকরণ শুরু করে দিয়েছে অভিজ্ঞ মহল। আর এবারে রাজ্যের অন্যান্য লোকসভা কেন্দ্রের সাথে সাথে

গড়বেতার বিজেপি সভাপতিকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধারালো অস্ত্রের কোপ, অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকে

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিভিন্ন ইস্যুতে যখন একে অপরের বিরুদ্ধে সরব হচ্ছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল এবং বিরোধী দল বিজেপির নেতারা, ঠিক তখনই এবার সেই গড়বেতায় বিজেপির বুথ সভাপতিকে মারধরের ঘটনায় শাসক দল তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠায় তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হল। জানা গেছে, ঝাড়গ্রাম লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত গড়বেতার কেশিয়ারি গ্রামের বিজেপির এসটি

অনুব্রত গড়ে তৃণমূলের ঘুম উড়িয়ে দিতে পারে “ফজলি আমরাই” – গভীর শঙ্কায় খোদ দাপুটে নেতারাই!

এবার খোদ বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের গড় তৃণমূল সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে দলেরই একাংশের নাম বলে অভিহিত করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে শিরোনামে উঠে আসলেন নলহাটি বিধানসভার তৃনমূলের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান। সূত্রের খবর, এদিন সোশ্যাল মিডিয়া একটি পোস্ট করতে গিয়ে তিনি বলেন, "বাইরে তৃণমূলের সঙ্গে থেকেও মিটিং মিছিলে গিয়ে বেশ

বাংলা নয়, সূদূর অন্ধ্র থেকে সরাসরি নরেন্দ্র মোদিকে কড়া চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন তৃণমূল নেত্রী

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্রের মসনদ থেকে বিজেপিকে সরানোই তার কাছে মূল চ্যালেঞ্জ বলে বারে বারেই জানিয়ে দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী‌ তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সেইমতো বাংলার গণ্ডি পেরিয়ে জাতীয় নেত্রী হওয়ার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করেছেন তিনি। আর এবার অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডুর আমন্ত্রণে বিরোধী মহাজোটের সভায় উপস্থিত হয়ে সেই অন্ধ

সোশ্যাল মিডিয়ায় “ভিডিও সিরিজে” প্রধানমন্ত্রীর কাছে জবাব চেয়ে অভিনব প্রচার শুরু তৃণমূলের

বিজেপি যদি বুনো ওল হয়, তাহলে তৃণমূল বাঘা তেতুল। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস বনাম বিরোধী দল বিজেপির প্রচারের মাধ্যম দেখে এইরকমটা বললে খুব একটা ভুল হবে না। পথসভা থেকে কর্মীসভায় একে অপরের বিরুদ্ধে সুর চড়ানোর পর এবার সোশ্যাল মিডিয়াকেই হাতিয়ার করতে শুরু করেছে দুই পক্ষ। একদিকে কেন্দ্রের

হেভিওয়েট দক্ষিণ কলকাতা কেন্দ্রে সৌজন্যের আবহে রাজনৈতিক বাতাবরণ তৈরিতে আগ্রহী 4 প্রধান দলই

সারা রাজ্যের মধ্যে দক্ষিণ কলকাতা লোকসভা কেন্দ্রটি বহু রাজনৈতিক উত্থান-পতনের সাক্ষী বলে পরিচিত। এক সময় এই দক্ষিণ কলকাতা লোকসভা কেন্দ্র থেকেই একা সাংসদ হয়ে লোকসভায় গিয়েছিলেন বাংলার বর্তমান শাসক দল তৃণমূল সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বর্তমানে তার দলের বহর অনেকটাই বড়। রাজ্যের রাজনৈতিক পরিস্থিতিও অনেকটাই পরিবর্তন হয়েছে। এখন সেই শাসক

ডায়মন্ডহারবারের কঠিন আসনেও অভিষেককে এক ইঞ্চি জমি ছাড়তে রাজি নয় বিজেপি

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলার 42 টি আসনের মধ্যে 22 থেকে 23 টি আসন নিজেদের দখলে রাখবার জন্য রাজ্য নেতৃত্বকে ইতিমধ্যেই টার্গেট বেঁধে দিয়েছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। আর সেই মতো বেছে বেছে রাজ্যের বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে ভোটার তৎপর হয়েছে গেরুয়া শিবির। আর তার মধ্যে অন্যতম তৃণমূল কংগ্রেসের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড তৃণমূলের সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক

বাম-কংগ্রেস-বিজেপি হাত শক্ত করার চেষ্টা করলেও, বাংলায় আসন পাওয়া দূরের কথা, জামানত খোয়া যাবে বিজেপির: অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

লোকসভা নির্বাচনের দিন যত এগিয়ে আসছে, ততই রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল বনাম বিরোধী দল বিজেপির মধ্যে রাজনৈতিক উত্তাপের পারদ চড়তে শুরু করেছে। আর এরই মধ্যে এবার রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড তথা যুব তৃনমূলের সর্বভারতীয় সভাপতি তথা আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে ডায়মন্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের

তৃণমূল বিধায়ককে ভদ্রলোক বললেন বিমান বসু,- কাকে ,কেন বললেন ? জেনে নিন বিস্তারিত

লোকসভা ভোটের আগে জল্পনা বাড়িয়ে বামেদের গলায় উল্টো সুর! বামফন্ট-তৃণমূল একে অপরের কট্টর দুশমন একথা অজানা নেই রাজনীতি সচেতন মানুষের। টানা ৩৪ বছরের বাম শাসনের ইতি টেনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন ক্ষমতায় এলেন তখন তাঁর গলায় ছিল বাম বিরোধী সুর প্রবল ছিল। বামেরাও একইভাবে তৃণমূল বিরোধীতাতেই সরব হয়েছে বরাবরই। বামেরা এতোটাই মমতা-বিদ্বেষী

Top
error: Content is protected !!