এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "tmc president"

বিজেপিতে যোগ দিলেও ‘পুরোনো মামলায় প্রাক্তন তৃণমূলীরা’ দলকে পাশে পাবেন না! স্পষ্ট করলেন দিলীপ

তৃণমূল ছেড়ে একের পর এক নেতা যখন বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন, ঠিক তখনই তৃণমূলের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, দুর্নীতিতে জড়িত নেতারাই শ্রীঘরে যাওয়া থেকে বাঁচতে বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন। কিন্তু সত্যিই কি তাই! তাহলে কি বিজেপিতে যোগ দিলেই সমস্ত পাপ ধুয়ে মুছে পরিষ্কার হয়ে যাবে! আর তাই কি তৃণমূলের দুর্নীতির সাথে

পদ পেয়েই তৃণমূলের হাল ধরে ঘরের ছেলেকে ঘরে ফেরালেন হেভিওয়েট নেতা

আজ জলপাইগুড়ির ক্লাব রোডের পূর্ত দপ্তরের পরিদর্শন বাংলোয় দলীয় কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করেন জেলা পর্যবেক্ষক তথা পূর্তমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস । জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ার জেলার লোকসভা ভোটে পরাজয়ের পর আলিপুরদুয়ারের বিধায়ক তথা জলপাইগুড়ি জেলার তৃণমূল সভাপতি সৌরভ চক্রবর্তীকে শিলিগুড়ি-জলপাইগুড়ি উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় । আর এবার সভাপতি

দলীয় প্রার্থীকে পাশে বসিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে বিপাকে তৃণমূলের জেলা সভাপতি

এবার দেবকে পাশে নিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীর হাতচ মুচড়ে দেওয়ার পরামর্শ দিয়ে বিতর্কে জড়ালেন তৃণমূল কংগ্রেসের পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সভাপতি অজিত মাইতি। বাড়িতে গিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনী ধমক দিলে হাত মুচড়ে দিবেন। ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রে দীপক অধিকারী নির্বাচনী প্রচারে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এমনটাই বললেন তৃণমূলের পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা সভাপতি অজিত মাইতি। অজিত বাবু

“দলের কাছে আমি জঞ্জাল।”একরাশ ক্ষোভ উগরে দিয়ে পদত্যাগ ও দলত্যাগ তৃণমূল সভাপতির

লোকসভা ভোটের মুখে ধ্বস নামল বীরভূমের শাসকদলের সংগঠনে। দলের বিরুদ্ধে বিষোদগার করে পদত্যাগ করলেন বর্ধমানের অঞ্চল সভাপতি সুব্রত পাল। " দলে আমার কোনে গুরুত্ব নেই। দলের কাছে আমি জঞ্জাল" এমনটাই বক্তব্য ছিল সুব্রতবাবুর। তাঁর সঙ্গে জেলার আরো ৫০ জন সদস্যও দল ছাড়লেন। গোটা ঘটনায় রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে শাসক শিবিরে। বর্ধমানের

লোকসভার আগে স্বস্তি ফিরিয়ে দ্বন্দ্ব ভুলে ক্রমশ একজোট হচ্ছেন শাসক শিবিরের নেতারা

সম্প্রতি দলের কোর কমিটির এক বর্ধিত সভায় দলনেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে বার্তা দিয়ে বলেছিলেন, 'পুরনো কর্মীদের ফিরিয়ে আনুন। তাদের উপযুক্ত সম্মান দিন। তারা আমাদের সম্পদ।' তবে নেত্রীর সেই বার্তা অনেক জেলার নেতারা এখনও পর্যন্ত না শুনলেও সামনে লোকসভা ভোট থাকার কারণে এখন থেকেই সমস্ত নেতাকর্মীদের এককাট্টা

Top
error: Content is protected !!