এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "tmc mp"

দলীয় মতের বিরুদ্ধে মুখ খুলে জল্পনা বাড়ালেন হেভিওয়েট এই তৃণমূল সাংসদ

সম্প্রতি সংসদের দুই কক্ষের জম্মু কাশ্মীরের 370 ধারা বাতিল করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। আর এরপরই কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের ভূয়শী প্রশংসা করতে দেখা গেছে সাধারণ মানুষকে। তবে সাধারণ মানুষের তরফে যে প্রতিক্রিয়াই দেওয়া হোক না কেন, কেন্দ্রের এহেন পদক্ষেপের পরেই তার বিরোধিতা করতে দেখা যায় বিভিন্ন বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে। কংগ্রেস, তৃণমূল জেডিইউ সহ বেশ

সন্ত্রাসের প্রতিবাদে কেশপুরে বিজেপির মিছিল, উপস্থিত সায়ন্তন বসু,ভারতী ঘোষ

পশ্চিম মেদিনীপুর : কেশপুরকে তৃণমূলের শেষপুর করার জন্য আরো একবার হুমকি দিলেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু । মঙ্গলবার দুপুরে বিজেপি নেত্রী ভারতী ঘোষ কে সঙ্গে নিয়ে কেশপুরের বিভিন্ন এলাকায় মিছিল করেন তিনি। সঙ্গে ছিলেন কেশপুরের বিজেপি নেতা তন্ময় সাহা এবং হাজার খানেক বিজেপি কর্মী সমর্থক । এদিন আরো একবার সায়ন্তন বসু

বিজেপি ছেড়ে ফের কি তৃণমূলে ফিরছেন এই বিধায়ক? অভিষেকের মন্তব্যে নতুন জল্পনা

এই রাজ্য এখন দলবদলের রঙ্গমঞ্চ। এই এক দল ছেড়ে নেতারা আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দিচ্ছেন অন্য দলে কিছুদিনের মধ্যেই তাদের মধ্যে কয়েকজন দলবদল করে ফিরে আসছেন নিজের আগের ডেরায়।গত ২৭ শে মে তৃণমূল থেকে বিজেপিতে গেছিলেন ১৭ জন কাউন্সিলর। দুই ধাপে তাদের মধ্যে ১৪ জনই ফেরত এলেন তৃণমূলে। প্রসঙ্গত, লোকসভা ভোটের পরই কাঁচরাপাড়া

এবার দুর্নীতির অভিযোগ উঠল তৃনমূল কাউন্সিলর, তার স্বামী ও দিব্যেন্দুর বিরুদ্ধে, চাঞ্চল্য শুভেন্দু গড়ে

লোকসভা নির্বাচনে দলের ভরাডুবি পর ফলাফল পর্যালোচনা বৈঠকে দুর্নীতিতে প্রধান ভাবে দায়ী তা বুঝতে পেরেছিলেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তাইতো দলকে স্বচ্ছভাবে এগিয়ে নিয়ে যেতে গত 18 জুন কলকাতার নজরুল মঞ্চে দলীয় কাউন্সিলরদের নিয়ে বৈঠকে এই কাটমানি যাতে না নেওয়া হয়, তার ব্যাপারে সকলকে সতর্ক করে দিয়েছিলেন

কাটমানির বস্তা দিদির খুব প্রিয়, বিস্ফোরক দাবি প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদের

মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পর থেকে রাজ্য রাজনীতিতে তীব্র উত্তেজনা বজায় রয়েছে কাটমানি ফেরত কে কেন্দ্র করে। জেলায় জেলায় সাধারণ মানুষের বিক্ষোভের মুখে পড়ছেন তৃণমূলের ছোটো ও মাঝারি নেতা কর্মীরা ।আবার বিজেপির পক্ষ থেকে কাটমানি প্রসঙ্গে বারবার তৃণমূলের শীর্ষনেতৃত্বের বিরুদ্ধে আঙ্গুল তোলা হয়েছে। এই বিতর্ক নতুন মোড় নিল অধুনা বিজেপি নেতা, প্রাক্তন তৃণমূল

অস্বস্তি বাড়ল তৃণমূলের, ইডির জেরার মুখে এই হেভিওয়েট তৃণমূল নেতা

সারদা কাণ্ডে দীর্ঘক্ষন জেরার মুখ থেকে শ্রীঘরে যেতে হয় তাকে। রাজনীতির ময়দান থেকে দীর্ঘদিন তার শ্রীঘরে কাটানোর স্মৃতি মাঝে মাঝে আওরেছিলেন নিজেই। কিন্তু বেশ কিছুদিন হল ফের রাজনৈতিক ময়দানে দেখা যেতে শুরু করেছে তাঁকে। আর এহেন হেভিওয়েট তৃণমূল নেতা তথা রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্রকে এবার রোজভ্যালি কাণ্ডে জেরা করার

মহুয়ার প্রথম দিনের ভাষণ নিয়ে বিতর্ক, ভাষণ টুকেছেন – এমনই বিস্ফোরক অভিযোগ সংসদের বিরুদ্ধে

সংসদে তাঁর প্রথম ভাষণেই গোটা দেশের প্রশংসা কুড়িয়েছেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র।তাঁর ঝরঝরে ইংরেজি, প্রতিবাদী বাচনভঙ্গী ও ঝাঁঝালো বক্তব্য আগ্রহ ছড়িয়েছে প্রায় সব মহলের মধ্যেই। বিশেষ করে যুবসমাজের একাংশ তাঁর এই 'প্রাথমিক ফ্যাসিবাদের ৭টি লক্ষণ ' বিষয়ক ভাষণকে বছরের শ্রেষ্ঠ বক্তব্যের তকমা দিতেও কসুর করছেনা।কিন্তু দিন কয়েক কাটতে না-কাটতেই তাঁর

সংসদে তৃনমূলের তরফে প্রথম বক্তৃতাতেই ঝড় তুললেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র

এতদিন পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় তৃনমূলের হয়ে দাপিয়ে বেড়াতে দেখা গেছে তাঁকে। সুবক্তা হিসেবেও তার যথেষ্ট সুনাম রয়েছে। আর এবার সেই তাকেই সংসদে পাঠিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত 2016 সালে করিমপুর বিধানসভার বিধায়ক হিসেবে তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর এবার মহুয়া মৈত্রকে কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী করেন তৃণমূল সুপ্রিমো। আর মহুয়াদেবী জয়লাভের পরই

কর্মীসভায় মহিলা কাউন্সিলরের প্রশ্নবাণে টালমাটাল হেভিওয়েট তৃণমূল সাংসদ, মাইক কেড়েও আটকানো গেল না ক্ষোভ!

এবার প্রচার করতে এসে দলীয় কাউন্সিলারেরই প্রশ্নবাণের মুখে পড়ে তীব্র অস্বস্তিতে পড়তে দেখা গেল উত্তর কলকাতা লোকসভা কেন্দ্রের বিদায়ী সাংসদ তথা তৃনমূল প্রার্থী সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, শনিবার রাতে দেশবন্ধু পার্কের এক সভায় উপস্থিত হন উত্তর কলকাতা লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, এলাকার বিধায়ক তথা মন্ত্রী সাধন পান্ডে সহ

আগামী লোকসভা নির্বাচনে টিকিট না পেলে কি করবেন জানিয়ে দিলেন সেলিব্রিটি তৃণমূল সাংসদ

বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূল সাংসদ সৌমিত্র খাঁর বিজেপিতে যোগদানের পরই তীব্র জলের সৃষ্টি হয়েছিল যে তাহলে এর পরে শাসকদলের কোন নক্ষত্র তারকা গেরুয়া শিবিরের পতাকা নিজেদের হাতে তুলে নেবেন! এমনকি এই জল্পনাকে সত্যি বলে দাবি করে বিজেপির তরফ থেকেও বলা হয়েছে যে "সময় আসছে অপেক্ষা করুন।" আর এই সময়ে বিভিন্ন মহল

Top
error: Content is protected !!