এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "tmc leader"

সংগঠনকে আরও চনমনে করতে 15 তারিখ বড়সড় পদক্ষেপ তৃণমূল নেত্রীর

লোকসভা নির্বাচনে দলের ভরাডুবির পর দফায় দফায় সমস্ত জেলা নেতৃত্বকে নিয়ে বসে সংগঠনকে সাজানোর চেষ্টা করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভোটগুরু প্রশান্ত কিশোরের পরিকল্পনামাফিক "দিদিকে বলো" কর্মসূচি করে দলের সমস্ত জনপ্রতিনিধি থেকে শুরু করে পদাধিকারীদের সাধারণ মানুষের সঙ্গে জনসংযোগ করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি। সেইমত রাজ্যের প্রতিটি জেলাতেই "দিদিকে

পুজোর মধ্যেই শুভেন্দু-গড়ে পিটিয়ে খুন তৃণমূল কর্মী, অভিযোগের তীর বিজেপির দিকে

মহাষষ্ঠীর দিনে যখন মায়ের বোধনকে কেন্দ্র করে বাঙালির মনে-প্রাণে আনন্দের সঞ্চার সৃষ্টি হয়েছে, ঠিক তখনই পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশপুর রক্তে রঙিন হয়ে উঠল। মায়ের বোধনের দিনই তৃণমূলের এক সক্রিয় কর্মীকে খুন হতে হল। বস্তুত, গত শুক্রবার সকালে কেশপুরের একটা রাস্তাকে কেন্দ্র করে দুই দল তীব্র বচসায় জড়িয়ে পড়ে। আর সেই সময়ই

দাপুটে তৃণমূল নেতার ছায়াসঙ্গী আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ভয় দেখাতে গিয়ে জনরোষের শিকার, পরে গ্রেফতার

কোনো দল ক্ষমতায় আসলে হয়ত বা তারা ভুলে যায়, শাসন ক্ষমতায় থাকতে গেলে কিছু নিয়ম পালন করা অত্যন্ত জরুরি। কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সেই নিয়ম ভাঙতে দেখা যায় শাসক দলের নেতাদেরই। বর্তমানে বাংলায় সেই ঘটনারই পুনরাবৃত্তি হচ্ছে বলে দাবি রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের। সূত্রের খবর, এবার আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ভয় দেখানোর অভিযোগে দাপুটে তৃণমূল

এবার সিভিক পুলিশ পিটিয়ে পুলিশের জালে তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা!

জি বাংলার বিখ্যাত টক-শো "দাদাগিরি" মন জয় করেছে প্রত্যেকেরই। কিন্তু বিখ্যাত ক্রিকেটার সৌরভ গাঙ্গুলীর সঞ্চালনায় সেই "দাদাগিরি" থেকে মানুষ তাদের অজানা অনেক কিছু জানতে পারলেও বর্তমান বঙ্গ রাজনীতিতে যে দাদাগিরি শুরু হয়েছে, তা দেখে রীতিমতো হতচকিত হয়ে উঠছেন সকলে। আইনের রক্ষক হিসেবে আমরা পুলিশকে বিবেচিত করে থাকি। কিন্তু যাদের হাতে আইন

হেভিওয়েট তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে তদন্তে রাজ্যের বিশেষ দল! বাড়ছে জল্পনা

কিছুদিন আগেই মালদহ জেলার ইংরেজবাজার পৌরসভার চেয়ারম্যান নীহাররঞ্জন ঘোষের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও অস্বচ্ছতার অভিযোগ তুলে অনাস্থা এনেছিলেন তৃণমূলের কাউন্সিলররা। তবে কোনো রকমে তা আটকেছে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। কিন্তু তার ফলে অবস্থার কোনো উন্নতি হয়নি। ঘরে-বাইরে ইংরেজবাজার পৌরসভা নিয়ে চরম চাপে রয়েছে রাজ্যের শাসক দল। কেননা দলের কাউন্সিলররা প্রতিনিয়তই এই পুরসভার চেয়ারম্যানের

হেভিওয়েট নেতাকে বহিস্কার করেও রেহাই নেই! আরও চওড়া শাসকদলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফাটল!

উত্তর দিনাজপুর জেলায় তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব কিছুতেই কমছে না। রায়গঞ্জ সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান মাসুদ মহম্মদ নাসিম এহসানকে দল থেকে বহিষ্কার ইস্যুতে এবার গোয়ালপোখর ব্লকে শাসকদলের গোষ্ঠীকোন্দল প্রকাশ্যে চলে এল। বস্তুত, বর্তমানে রাজ্যের পঞ্চায়েত দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী গোলাম রব্বানির খাসতালুকে খোদ শাসকদলের এই পরিণতি জেলাজুড়ে রাজনৈতিক মহলের তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। সূত্রের খবর, বুধবার

তৃণমূলের প্রতিবাদ মিছিলে পা মেলাচ্ছেন বিজেপি নেতারা! তীব্র চাঞ্চল্য রাজ্য-রাজনীতিতে

আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও তিনি দলে যোগদান করেননি। কিন্তু সোমবার সন্ধ্যায় খানাকুলে শাসক দলের প্রতিবাদ মিছিলে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নিতে দেখা গেল তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়া বেশ কয়েকজন নেতাকে। যা নিয়ে খানাকুলে এখন তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। জানা গেছে, যে সমস্ত নেতারা এদিন মিছিলে হেঁটেছেন, তারা তৃণমূলে ফিরতে চাইছেন। আর তাঁদের দলে ফেরানোর

নিজের গড়ে হেভিওয়েট তৃণমূল নেতাকে দলে নিয়েই বিস্ফোরক দিলীপ ঘোষ

রাজ্য রাজনীতিতে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বিতর্কিত মন্তব্য করে খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। অনেক সময় তার এই মন্তব্য সমাজে নিন্দিত হলেও তিনি তার অবস্থান থেকে সরেননি। আর এবার ফের রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলের উদ্দেশ্যে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। এদিন তিনি বলেন, "কেউ মারতে এলেই পাল্টা

কিছুতেই বাগে আনা যাচ্ছে না “বিদ্রোহী” কাউন্সিলরদের, বেজায় চটেছে তৃনমূলের রাজ্য নেতৃত্ব

বাম আমলেও দীর্ঘদিন ধরে কংগ্রেসের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত ছিল পশ্চিমবাংলার উত্তরের মালদা জেলা। গৌড়বঙ্গে কোনদিনই কাস্তে- হাতুড়ি-তারা সেই ভাবে তাদের প্রতিপত্তি বিস্তার করতে পারেনি। পরবর্তীতে পশ্চিমবাংলার পরিবর্তনের কান্ডারী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একাধিকবার ডাক দিলেও মালদা জেলা কিন্তু কংগ্রেসীদেরই রয়ে গেছিল। কিন্তু গত লোকসভা নির্বাচনের আগের থেকে দল ভাঙিয়ে জেলা পরিষদ দখল থেকে

স্কুল চলাকালীন ক্লাসে ঢুকে ছাত্র পেটালো তৃণমূল নেতা তুলকালাম এলাকায়! জেনে নিন বিস্তারিত

একের পর এক অভিযোগ ওঠায় তৃণমূল দলের অন্দরে অস্বস্তি তুঙ্গে। অভিযোগের ক্রমবর্ধমান আকারে তৃণমূলের অন্দরেই উঠেছে নাভিশ্বাস। এদিন আরো একটি অভিযোগ যুক্ত হলো তৃণমূল দলের বিরুদ্ধে। এবার স্কুল ছাত্রকে মারধরের অভিযোগ হুগলির পুড়শুড়া থানার তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে হুগলি পুড়শুড়া থানার সোদপুর উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে। অভিযোগ, ক্লাস চলাকালীন স্কুলে ঢুকে

Top
error: Content is protected !!