এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "somen mitra"

রাজীব কুমার-সিবিআই এর টানাপোড়েনের মাঝেই রাজীবকে নিয়ে বড়সড় আশঙ্কা প্রকাশ হেভিওয়েট নেতার

কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার বনাম সিবিআইয়ের লুকোচুরি খেলা চলছে। আদালতের সবুজ সংকেত পেয়ে এখন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা আদাজল খেয়ে রাজীব কুমারকে ধরার জন্য ময়দানে নেমে পড়েছেন। আর এরই মধ্যে এবার সেই রাজীব কুমারকে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করতে দেখা গেল প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি সোমেন মিত্রকে। সূত্রের খবর, এদিন বীরভূমের

কংগ্রেস-বাম জোট কি পাকা? নয়া সিদ্ধান্তে গুঞ্জন

2016 সালে প্রথমবার বাম এবং কংগ্রেস একজোট হয়ে এরাজ্যে লড়াই করেছিল। তারপর সেইভাবে কোনও সাফল্য না মেলায় পরবর্তী নির্বাচনগুলোতে আর তাদের একসাথে লড়তে দেখা যায়নি। তবে সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে সেই বাম এবং কংগ্রেস জোর ধাক্কা খাওয়ায় ফের দুইদল নিজেদের মধ্যে সমঝোতার ব্যাপারে ইচ্ছা প্রকাশ করেছিল। তবে দু'দলের তরফেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত

সোমেন মিত্র বনাম অধীর চৌধুরীর দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে, অস্বস্তিতে কংগ্রেস

অধীর চৌধুরী প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি থাকার সময়ই তাকে সরিয়ে সোমেন মিত্রকে সেই পদে বসায় কংগ্রেস হাইকম্যান্ড। যার পর থেকেই প্রদেশ কংগ্রেস সোমেন বনাম অধীরের দ্বন্দ্ব তীব্র থেকে তীব্রতর হয়ে উঠতে শুরু করে। আর এবার কাশ্মীর ইস্যুতে সংসদে কংগ্রেসের দলনেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরীর বিতর্কিত মন্তব্যে তার পাশে না দাঁড়িয়ে সেই দ্বন্দ্বকে

মালদায় রাহুল গান্ধীর সভায় জনজোয়ার হতেই কংগ্রেসকে বিজেপির “বি-টিম” বলে আক্রমণ শুরু শুভেন্দু-মৌসমের

সম্প্রতি মালদহের চাচোলের নির্বাচনী সভায় এসে কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন। এমনকি মালদহ জেলা কংগ্রেসের প্রাক্তন সভানেত্রী মৌসম বেনজির নূর কিছুদিন আগেই কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে গেলে এবং বর্তমানে তৃণমূলের প্রতীকে উত্তর মালদহ লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী হলে সেই

তৃণমূল নেত্রীর ডাকা ব্রিগেডে কংগ্রেসের উপস্থিতি ও জোট নিয়ে বিস্ফোরক সোমেন মিত্র

কেন্দ্র থেকে বিজেপিকে হটাতে মহাজোটের ডাক দিয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। আর তার জন্য বাংলায় আগামী ১৯ সে জানুয়ারী ব্রিগেডের ডাক দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা সেখানে উপস্থিত থাকবেন বিজেপি বিরোধী সমস্ত দলের প্রতিনিধিরা। বাদ যাবে না কংগ্রেসও। এদিকে প্রদেশ কংগ্রেসের বারবার তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তৃণমূল - কংগ্রেসের ঘর ভাঙছে। সম্পর্কও ভালো

তৃণমূলের ডাকা ব্রিগেড সমাবেশে থাকছেন কি কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বে? কি জানালেন সোমেন মিত্র

লোকসভা ভোটকে টার্গেট করে দেশের সমস্ত বিজেপিবিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে এক ছাতার তলায় আনার জন্যে ১৯ জানুয়ারী বৃহত্তর ব্রিগেড সমাবেশের ডাক বেশ কয়েক মাস আগেই দিয়ে দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিভিন্ন অবিজেপি রাজনৈতিক দলের শীর্ষকর্তারা বাংলার নেত্রীর আমন্ত্রণে সাড়া দিয়েছেন। তবে জাতীয় কংগ্রেস সুপ্রিমো রাহুল গান্ধী এই সমাবেশে উপস্থিত থাকবেন

কংগ্রেস-তৃণমূল জোটের ভবিষ্যৎ নিয়ে কি হল রাহুল গান্ধী ও সোমেন মিত্রের বৈঠকে? জেনে নিন বিস্তারিত

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে দেশের মসনদ থেকে বিজেপিকে সরাতে ঐকবদ্ধ হয়েছে প্রায় সমস্ত বিরোধী দলগুলো। যেখানে বঙ্গ রাজনীতির একে অপরের বিরোধী শত্রু বলে পরিচিত কংগ্রেস এবং তৃণমূলও রয়েছে। আর তাই এই বিরোধী মহাজোট তৈরির পরেই প্রবল জল্পনার সৃষ্টি হয়েছিল যে, তাহলে সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে বিজেপি বিরোধিতায় কংগ্রেস এবং তৃণমূল হাতে হাত

উলটপুরাণ! তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে সিপিএমে যোগ দিলেন তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা – জানুন বিস্তারিত

রাজ্য-রাজনীতিতে কি এবার উলোটপুরাণের হওয়া বইতে শুরু করল? মুকুল রায় তৃণমূল কংগ্রেস ছাড়ার আগে পর্যন্ত - বিভিন্ন দল ছেড়ে হেভিওয়েট নেতা-নেত্রীরা শাসকদলে নাম লেখাচ্ছেন এটাই ছিল স্বাভাবিক ঘটনা। এরপরে, তিনি বিজেপিতে পা রাখতেই - এই দলবদলের খেলায় আরেকটি 'ডেস্টিনেশন' হতে শুরু করল গেরুয়া শিবির। আর, বিশেষ করে পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর -

সোমেন মিত্রর হাত ধরে কংগ্রেসের ভেঙে পড়া সংগঠনের হাল ফিরছে, তৃণমূলের সংখ্যালঘু ভোট নিয়ে দুশ্চিন্তা বাড়বে?

অধীর চৌধুরীকে সরিয়ে বাংলার প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি পদে সোমেন মিত্রকে বসানোর পর থেকেই এই রাজ্যে ধীরে ধীরে কংগ্রেসের সংগঠনের পালে কিছুটা হলেও হাওয়া লাগতে শুরু করেছে। এমনকি দলের পুরোনো নেতাকর্মীরাও সক্রিয় শুরু করেছেন। দলীয় সংগঠনে ধ্বস নামার সময় রাজ্যের একের পর এক হেভিওয়েট কংগ্রেস বিধায়ক এবং নেতারা যোগ দিয়েছিলেন শাসক দল

গো-বলয়ের জয় অক্সিজেন দিচ্ছে রাজ্য কংগ্রেসকেও, তৃণমূল নেত্রী দিল্লি গেলেও একাই লড়াই চান সোমেন-মান্নানরা

দেশের পাঁচ রাজ্যের মধ্যে প্রায় তিন রাজ্যে ক্ষমতা দখল করেছে কংগ্রেস। আর যার জেরে দেশের প্রায় সমস্ত রাজ্যের কংগ্রেস নেতা কর্মীরা নিজেদের পুরনো অক্সিজেন পেতে শুরু করেছেন। যার প্রভাব এসে পড়েছে এই বাংলাতেও। ছত্রিশগড়, মধ্যপ্রদেশ ও রাজস্থানে তারা যে সরকার গড়ছে এই ব্যাপারে নিশ্চিত হয়েই রাতারাতি কোলকাতার রানী রাসমণি রোডে

Top
error: Content is protected !!