এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "social media"

বিজেপির আমলে সংবিধান বিপন্ন! গণতন্ত্র বাঁচাতে সব করবেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় অঙ্গীকার মমতার

পূর্বে একাধিকবার কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদি ওয়ান সরকারের সময় থেকেই দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার অবনতির জন্য বিজেপিকে দায়ী করে এসেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এবার দেশের সুপার এমার্জেন্সি চলছে এবং এর বিরুদ্ধে যতদূর সম্ভব ততদূর লড়ার দাবি জানালেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। রবিবার আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে সোশ্যাল মিডিয়ায় রাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে দেওয়া নিজের বার্তায় নাম

সোশ্যাল মিডিয়ার দাপটে ভোট প্রচারের ধরন-ধারণ পাল্টাচ্ছে দ্রুত, ভোটের অংক মেলাতে হিমশিম কর্মীরা!

এতদিন যে কোনো নির্বাচনের প্রচারের জন্য মাঠ এবং ময়দানকেই বেছে নিতেন সমস্ত রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা। কিন্তু আধুনিক যুগে ইট-কাঠের মধ্যে চলে এসেছে গোটা সমাজ। তাই প্রচারপর্বের কৌশলও অনেকটাই বদলাতে শুরু করা যায়। আগে বিভিন্ন নকল ইভিএম, নকল ব্যালট, সাইকেল রালি, রাতভর তাসের আড্ডা এবং নাটককে হাতিয়ার করে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল

শেষ দফায় ভোট গ্রহণ হলেও পথ থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলছেন দুই কলকাতার সব প্রার্থীই

উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতা এই দুই লোকসভা কেন্দ্রের নির্বাচন হতে এখনও অনেকটা দেরি। আগামী 19 মে একেবারে শেষ দফায় এই দুই কেন্দ্রের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে এখন থেকেই এই দুই লোকসভা কেন্দ্রের শাসক-বিরোধী সমস্ত প্রার্থীরাই মাটি কামড়ে পড়ে থেকে তাদের প্রচার শুরু করে দিয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়া থেকে জনসংযোগ - প্রচারের

সোশ্যাল মিডিয়ায় “ভিডিও সিরিজে” প্রধানমন্ত্রীর কাছে জবাব চেয়ে অভিনব প্রচার শুরু তৃণমূলের

বিজেপি যদি বুনো ওল হয়, তাহলে তৃণমূল বাঘা তেতুল। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস বনাম বিরোধী দল বিজেপির প্রচারের মাধ্যম দেখে এইরকমটা বললে খুব একটা ভুল হবে না। পথসভা থেকে কর্মীসভায় একে অপরের বিরুদ্ধে সুর চড়ানোর পর এবার সোশ্যাল মিডিয়াকেই হাতিয়ার করতে শুরু করেছে দুই পক্ষ। একদিকে কেন্দ্রের

ফ্লেক্স-দেওয়াল লিখন এখন অতীত – তৃণমূল-বামফ্রন্ট-বিজেপি সকলেরই ভরসা এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার!

এতদিন যে কোনো নির্বাচনেই দেওয়াল লিখন কিংবা পোস্টারের উপর ভরসা করেই জোর প্রচারের পক্ষে সওয়াল করত বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলো। কিন্তু মানুষ যত আধুনিক হচ্ছে ততই উন্নত হচ্ছে প্রযুক্তি। আর তাই নব্য যুগের এই নব্য প্রযুক্তিকে হাতিয়ার করে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের কাছে নিজেদের দলীয় প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার আবেদন

লোকসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত তৃণমূলের

রাজনৈতিকভাবে এই রাজ্যে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের দাপট থাকলেও বিরোধী দল বিজেপির থেকে তাঁরা যে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকটাই পিছিয়ে, তা একসময় স্বীকার করে নিয়েছিলেন খোদ দলের সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু লোকসভা নির্বাচনের আগে সেই বিরোধী দল বিজেপিকেও যাতে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে চাপে ফেলা যায় সেজন্য এবার নিজেদের রনকৌশল নিল

মন্দাক্রান্তা সেন বিতর্কে নয়া মোর, বিজেপি-বিতর্কে জল্পনা বাড়িয়ে থানায় গেলেন কবি

এতদিন তাঁকে ঘিরে চলছিল তীব্র সমালোচনা। তিনি কবি মন্দাক্রান্তা সেন। সম্প্রতি সোস্যাল মিডিয়ায় তাঁর একটি পোষ্ট ঘিরে  বিতর্ক  শুরু হয়। বিজেপি বিরোধী সেই পোষ্টে দলের শীর্ষ সারির সকল নেতাকে দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত করা হয়েছে। গোটা ঘটনা অন্য দিকে মোড় নেয় যখন কবি নিজেই থানায় গিয়ে, এফআইআর করে এই ঘটনায় তাঁর

Top
error: Content is protected !!