এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "Pratidin er Sanmbad"

বিধানসভায় ঘুরে দাঁড়াতে হুগলি নিয়ে বিশেষ পরিকল্পনা ফিরহাদের, “কাটমানি” নিয়ে উত্তাল গোটা জেলাই

লোকসভা ভোটের ফলাফল প্রকাশের পর তৃণমূলের ভরাডুবি এবং বিজেপির প্রবল উত্থানে কিভাবে ঘুরে দাঁড়ানো যাবে তা নিয়ে বিশ্লেষণ শুরু করেছে তৃণমূল। ইতিমধ্যেই তৃণমূল ভবনে জেলাওয়ারি বৈঠক শুরু করে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিছুদিন আগেই হুগলি জেলাকে নিয়ে বৈঠক করে দলকে ঘুরে দাঁড় করানোর জন্য কড়া নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। আর এবার বিধানসভা

তৃণমূল পরিচালিত পঞ্চায়েতে প্রধানের হাত ধরেই চরম আর্থিক দুর্নীতি, ক্ষোভে ফেটে পড়ছেন সদস্যরাই

লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন পঞ্চায়েত, পৌরসভায় শাসকদলের প্রতি অনাস্থা দেখিয়ে গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাচ্ছেন শাসকদলের জনপ্রতিনিধিরা। যা নিয়ে তীব্র চাঞ্চল্যেরও সৃষ্টি হয় বঙ্গ রাজনীতিতে। কিন্তু এই ট্র্যাডিশন যে সমানে চলতেই থাকবে তা আন্দাজ করতে পারেননি কেউই। সূত্রের খবর, বুধবার রানাঘাট পরিচালিত কামালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান বীথিকা বিশ্বাসের

আজকের বিজেপির লালবাজার অভিযানের লেটেস্ট আপডেট

রাজ‍্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির সার্বিক অবনতির বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে আজ রাজ‍্য বিজেপি লালবাজার অভিযানের কর্মসূচী নিয়েছে। মূলত সন্দেশখালির ন‍্যাজাট সহ গোটা রাজ‍্য জুড়ে যেভাবে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের ওপর আক্রমণ নেমে আসছে তারই প্রতিবাদে এই পদক্ষেপ বলে জানা যাচ্ছে। সুবোধ মল্লিক স্কোয়ার থেকে শুরু হবে এই মিছিল। ইতিমধ্যেই সেখানে জমায়েত হয়ে স্লোগান দিতে

“পুলিশ আর কথা শুনছে না!” মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ক্ষোভ উগরে দিলেন রাজ্যের একাধিক হেভিওয়েট মন্ত্রী

কথায় আছে, শাসকের ক্ষমতায় যে আসে, পুলিশ তার হয়ে যায়। সে বিগত বাম আমল হোক কিংবা বর্তমান তৃণমূল আমল - তাই প্রতিটা সময়ই শাসকদলের অঙ্গুলিহেলনে পুলিশ প্রশাসন কাজ করছে বলে অভিযোগ তুলতে দেখা যেত বিরোধীদের। কিন্তু এবার লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে শাসক দল তৃণমূলের ভরাডুবি এবং বিজেপির প্রবল উত্থানের পর সেই

তৃণমূল নেত্রীর মহাবৈঠকেও গরহাজির একাধিক তৃণমূল নেতা, বাড়ছে জল্পনা

সারা রাজ্যের পাশাপাশি মালদহ জেলায় তৃণমূলের ভরাডুবি হওয়ার পরই পুরাতন মালদহ পৌরসভার অনেক কাউন্সিলার বিজেপিতে যোগদান করতে পারেন বলে নানা মহলে তীব্র জল্পনার সৃষ্টি হয়। এদিকে পরিস্থিতি পর্যালোচনা করতে ও পৌরসভা যাতে নিজেদের দখলের বাইরে না যায় তার জন্য রবিবারই সেই পুরাতন মালদহ পুরসভার সমস্ত দলীয় কাউন্সিলরদের নিয়ে নূর ম্যানশনে

ভোট-পরবর্তী হিংসাতেও বিজেপির আতঙ্ক দেখছেন পার্থ চ্যাটার্জি, জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে অভিযোগ

বাংলা শাসকের ক্ষমতায় যেই আসেন, সেই দল বা প্রশাসক কোনো অশান্তির ঘটনা ঘটলেই বিরোধীদের দিকে অভিযোগের আঙুল তোলেন। কিন্তু নিজেদের রাজনৈতিক স্বার্থসিদ্ধি করতে গিয়ে মিথ্যে অভিযোগের বেসাতির মাধ্যমে রাজ্যের গণতন্ত্র যে বিপন্ন হয়ে যেতে বসেছে, তার দিকে লক্ষ্য থাকে না কোনো শাসকবর্গেরই। তারা একে অপরের দিকে অভিযোগের ডালি সাজিয়ে দোষারোপ

ভুল বোঝাচ্ছে তৃণমূল, তাই এবার কেন্দ্রীয় প্রকল্পের খুঁটিনাটি নিয়ে রাস্তায় নামবে বিজেপি

2011 সালে রাজ্যে পালাবদলের পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার ক্ষমতায় আসলে উন্নয়নের ভিত্তিতেই প্রতিটা নির্বাচনে নিজেদের ভোট বৈতরণী পার হয়েছিল তৃণমূল। কিন্তু একটি রাজ্যের উন্নয়ন শুধুমাত্র সেই রাজ্যের শাসকবর্গের দ্বারা যে নয়, তার সাথে যুক্ত থাকে কেন্দ্রের আর্থিক বরাদ্দ - তা সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরা অপেক্ষা তারাই বাংলার উন্নয়ন ঘটাচ্ছে

ভোট যত এগিয়ে আসছে মেদিনীপুর জুড়ে শাসকদলের বিরুদ্ধে তত সন্ত্রাসের অভিযোগ বাড়ছে বিরোধীদের

ইতিমধ্যেই রাজ্যে চতুর্থ দফার প্রায় 18 টি লোকসভা কেন্দ্রের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। বাকি রয়েছে আরও তিন দফার নির্বাচন। তবে সেই তিন দফায় নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধে পরিণত করতে কমিশনের কাছে আর্জি জানিয়েছে বিরোধীরা। কিন্তু যতই ভোট এগিয়ে আসছে, ততই যেন উত্তাপের পারদ চড়ছে মেদিনীপুরে। আর যাকে ঘিরে এখন শাসক বনাম

আমি ভাবতেই পারছি না, মমতা দিদি এতটা বদলে গিয়েছেন – মন্তব্য প্রধানমন্ত্রীর

তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়ে একদা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছায়াসঙ্গী মুকুল রায় কোলকাতার রানী রাসমনির সভা থেকে মন্তব্য করেছিলেন, "পাল্টে গেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর নেই।" আর মুকুলবাবুর এহেন মন্তব্য নিয়েই তোলপাড় হয়ে ওঠে রাজ্য রাজনীতি। আর এবার বিজেপির সর্বোচ্চ সেনাপতি তথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর গলাতেও সেই একই মন্তব্য শোনা গেল।

রাজ্যে বাকি আসনে পদ্মফুল ফোটানোর লক্ষ্যে দায়িত্ব পেলেন ত্রিপুরায় বিজেপি সরকারের কারিগর এই বিজেপি নেতা

এবারের লোকসভা নির্বাচনে বাংলা থেকে 22 থেকে 23 টি আসন নিজেদের দখলে রাখবার জন্য বহুদিন আগে থেকেই রাজ্য নেতৃত্বকে টার্গেট বেঁধে দিয়েছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। ইতিমধ্যেই তিন তিনটে দফায় মোট দশটি লোকসভা কেন্দ্রের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে এরাজ্যে। আর সেই 10 টি নির্বাচন হওয়া কেন্দ্রের মধ্যে অধিকাংশই বিজেপি তাদের দখলে রাখবে বলে

Top
error: Content is protected !!