এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "police"

জিয়াগঞ্জ নৃশংস হত্যাকাণ্ডে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে একাধিক প্রশ্ন পুলিশ মহলেই!

একই পরিবারের 3 সদস্য খুনের ঘটনায় জিয়াগঞ্জে এখন শোকের ছায়া। সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে সারা রাজ্য জুড়ে এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। কিন্তু এই নৃশংস খুনের ঘটনায় এক সপ্তাহ পার হতে চললেও এখনও পর্যন্ত সেই খুনের রহস্য উন্মোচন করতে পারেনি পুলিশ। যার জেরে সেই তদন্তকারী পুলিশ

জিয়াগঞ্জ হত্যাকাণ্ডে নয়া মোড়, দফায় দফায় তল্লাশির পর ৪ জনকে আটক পুলিশের

জিয়াগঞ্জে ঘটে গেছে এক চাঞ্চল্যকর হত্যাকান্ড। যা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে তুমুল আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। রাজ্যে একের পর এক হত্যাকাণ্ড ঘটে চলেছে। আর সেই ঘটনাকে অনুসরণ করে এবার শারদ উৎসবের আবহে মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জে এক নৃশংস হত্যাকাণ্ড ঘটে গেছে। দশমীর দিন একই বাড়ির তিন জন মানুষের প্রাণ গেল দুষ্কৃতীর হাতে। অজ্ঞাত পরিচয়

কেমন হল রেড রোডের বহু প্রতীক্ষার দুর্গাপুজোর কার্নিভাল – জেনে নিন

তখন সবে সূর্য অস্ত গেছে। আকাশ কিছুটা লাল। লাল, নীল, সবুজ, হলুদ আলোয় তখন যেন ভেসে যাচ্ছে রেড রোড। গান চলছে, "আমি তোমার ছায়ায় থাকি মা... তোমার চোখের তারায় বাঁচি মা..." এই দৃশ্য আর অন্য কোথাকার নয়। রাজ্য সরকারের উদ্যোগে পালিত হয় দুর্গা কার্নিভালের। ঘোষণা অনুযায়ী 6 নম্বর পুজো নপাড়া

বিজেপি কর্মী “বেশি প্রতিবাদ” করায় বাড়িতে বোমা রেখে পুলিশ দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগ!

রাজ্যে বিরোধীদের কণ্ঠরোধ করা হচ্ছে বলে মাঝেমধ্যেই অভিযোগ তুলে সরব হতে দেখা যায় রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বিজেপিকে। এমনকি অন্যায়ের বিরুদ্ধে বিজেপি নেতা কর্মীরা প্রতিবাদ করলে তাদের মিথ্যে মামলা দিয়ে জেলে পোরা হচ্ছে বলেও অভিযোগ তোলেন বিজেপির ছোটো, বড়, মেজো সমস্ত নেতারা। কিন্তু বিজেপির তরফে এই যাবি তোলা হলেও বারবারই

ঝুঁকির কারণে 40 বছরের পুরোনো রাবণ-দহন বন্ধ করল পুলিশ

অবশেষে এবার বন্ধ হয়ে গেল 40 বছর ধরে পালিত হয়ে আসা রাবন দহনের অনুষ্ঠান। জানা যায়, পুরুলিয়া ঝালদা সার্বজনীন দুর্গাপুজোর উদ্যোগে গত 40 বছরে একাদশীর দিন ঝালদা শহরের প্রাণকেন্দ্র ঝালদা বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় এই রাবণ পালা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। তবে আগে এই অনুষ্ঠান পুরভবনের ছাদে হলেও ঝালদা বাসস্ট্যান্ডে রাবনদহন অনুষ্ঠান

গ্রেফতার অনুব্রতর ভাই, অস্বীকার অনুব্রতর, জোর টালমাটাল বোলপুরে

এবার চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটলো অনুব্রত গড়ে। জানা যাচ্ছে সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া নিজেকে অনুব্রত মণ্ডলেরখুড়তুতো ভাই বলে দাবি করা সুমিত মণ্ডলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আর এই নিয়ে সরব বিজেপির অভিযোগ প্রতিহিংসার রাজনীতি করছে তৃণমূল। যা নিয়ে এখন সরগরম রাজ্য রাজনীতি। যদিও পুলিশের দাবি, পুরনো একটি মামলার অভিযোগে তাঁকে গ্রেফতার করা

পুলিশি রিপোর্টই বলছে বাংলা বর্তমানে মাদক পাচারকারীদের স্বর্গরাজ্য!

আইনশৃঙ্খলায় বাংলা প্রত্যন্ত বাজে জায়গায় রয়েছে বলে মাঝেমধ্যেই সরব হতে দেখা যায় বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে। কিন্তু আইনশৃঙ্খলা অবনতির অভিযোগ তোলার পাশাপাশি এবার ভিন রাজ্যের নিষিদ্ধ মাদক পাচারের অভিযুক্তদের একটা বড় অংশ এই বাংলায় আশ্রয় নিচ্ছে বলে রিপোর্টে প্রকাশ পেল। জানা গেছে, পাঞ্জাবে মাদক পাচারে যে সমস্ত অভিযুক্তদের এখনও হদিশ পাওয়া যায়নি,

একের পর এক জায়গায় আক্রান্ত পুলিশ, অথচ অভিযুক্তরা বেকসুর খালাস? “যোগ্যতা” নিয়েই উঠছে প্রশ্ন

রাজ্যের পুলিশ প্রশাসনের মেরুদন্ড নেই বলে দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ করে আসছে রাজ্যের বর্তমান প্রধান বিরোধী দল ভারতীয় জনতা পার্টি। সিপিএম ও কংগ্রেসের পক্ষ থেকেও মাঝেমধ্যে অভিযোগ করতে দেখা যাচ্ছে যে, যে পুলিশ প্রশাসনের মাথা উঁচু করে চলার কথা, সেই পুলিশ প্রশাসনই এখন দুষ্কৃতীদের দাপটে টেবিলের তলায় লুকিয়ে থাকে। কিন্তু বরাবরই

শ্লীলতাহানির ঘটনাকে কেন্দ্র করে তান্ডব তৃণমূল ছাত্র পরিষদের

এবার আরও একবার বিজয়া দশমীকে কেন্দ্র করে তরুণীর শ্লীলতাহানীকে ঘটে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুলিশ ও তৃণমূল ছাত্র পরিষদের মধ্যে তুমুল অশান্তি বাধে। ঘটনাটি ঘটেছে মালদার রায়গঞ্জ শহরে। পুলিশ ও তৃণমূল ছাত্র পরিষদের অশান্তি এমন জায়গায় পৌঁছায়, যেখান থেকে পুলিশের এক কর্তা অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁকে রায়গঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা

তৃণমূলের “বিরুদ্ধে” কাজ করছে পুলিশের একাংশ! ক্ষোভে ফুটছেন মুখ্যমন্ত্রী!

তিনি রাজ্যের পুলিশ মন্ত্রী। কিন্তু একাধারে তিনি আবার তৃণমূল দলের প্রধানও। ফলে একদিকে দল আর অন্যদিকে প্রশাসনকে চালাতে হয়। এতদিন দলমত নির্বিশেষে যারা অন্যায় করবে, তাদেরকে গ্রেপ্তার করতে হবে বলে প্রকাশ্যে প্রশাসনকে জানাতে দেখা গিয়েছিল সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কিন্তু এবার শুধুমাত্র তার দলের বিরুদ্ধে প্রশাসনের অতিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ প্রকাশ্যে আনলেন তিনি। সূত্রের

Top
error: Content is protected !!