এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "Online Khabor"

লোকসভায় হারের প্রধান কারণ “মাথা” ঘামিয়ে বের করে ফেলল বামফ্রন্ট! জানলে চমকে যাবেন!

2011 সালে রাজ্যের ক্ষমতা থেকে বিদায় নেওয়ার পরই আলিমুদ্দিন স্ট্রিটের ভবন থেকে ধীরে ধীরে পাথর খসে পড়তে শুরু করে। একের পর এক নির্বাচনে পর্যুদস্ত হতে থাকে বামেরা। সাংগঠনিক ক্ষমতা হ্রাস পেয়ে মানুষের কাছাকাছি পৌঁছনোর চেষ্টা করলেও অনেক নেতাকর্মীদের মধ্যেই সেই সদিচ্ছার অভাব দেখা দিতে শুরু করে। যার জেরে শুরু হয়

শিক্ষকদের ‘অবৈধ’ বদলি নিয়ে একাধিক পদক্ষেপে ঝড় তুলতে চলেছে শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চ

প্রিয় বন্ধু বাংলা এক্সক্লুসিভ - রাজ্যের শিক্ষাঙ্গনে বা শিক্ষকদের উপরে কোনো বঞ্চনা হচ্ছে আর সেখানে গিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ছে না শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চ - এ ঘটনা সাম্প্রতিক অতীতে কেউই মনে করতে পারছেন না। আর এবারও তার ব্যতিক্রম নয় - এবার রাজ্য সম্পাদক মইদুল ইসলামের নেতৃত্বে আবারো শিক্ষকদের 'অবৈধ' বদলি নিয়ে

ঠাকুরনগর থেকেই ‘সিন্ডিকেট-মুক্ত’ বাংলা উপহার দেওয়ার বড় স্বপ্ন দেখালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

যেমনটা আঁচ করা হচ্ছিল, ঠিক তেমনটাই ঘটলো। বঙ্গে পা রেখেই মতুয়া মহাসঙ্ঘের ঠাকুরনগরে নাম না করে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসেকে তীব্র ভাষায় খোঁচা দিতে দেখা গেল বিজেপির পোস্টারবয় তথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। সূত্রের খবর, এদিন ঠাকুরনগরের সভায় বক্তব্য রাখতে উঠে সিন্ডিকেটের প্রসঙ্গ তুলে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসকে কড়া

মুখ্যমন্ত্রীর সাধের তরাই-ডুয়ার্সের ‘ক্ষোভ’ প্রধানমন্ত্রীর মাধ্যমে সমাধানে অভিনব পদক্ষেপ গেরুয়া শিবিরের

মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে রাজ্যের দায়িত্ত্ব নেওয়ার পর তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বান্দ্যোপাধ্যের ঘোষণা ছিল তাঁর 'প্রায়োরিটি লিস্টের' অন্যতম শীর্ষ দুটি বিষয় হল - পাহাড়ের হাসি ফেরানো ও জঙ্গলমহলের হাসি ফেরানো। সেই কাজে তিনি ১০০% সফল বলে দাবি করে থাকেন তাঁর দলের নেতা-কর্মীরা। আর তিনি নিজে, পাহাড়ের পাশাপাশি পাহাড়ের পাদদেশের 'হাসি' ফোটাতেও

৪২ টি লোকসভা কেন্দ্রের বিস্তারিত নিতে রাজ্যে আসছেন অমিত শাহের খাস প্রতিনিধি

তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি বলে পরিচিত এই বাংলায় নিজেদের অস্তিত্ব জানান দিতে লোকসভা নির্বাচনের আগে বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়ে বিভিন্ন সময়ে অবতীর্ণ হচ্ছে বিরোধী দল বিজেপি। বস্তুত, যখন কেন্দ্র থেকে বিজেপিকে উৎখাত করতে বিরোধী মহাজোটের অন্যতম নেতৃত্বের ভূমিকায় রয়েছেন খোদ তৃণমূল সুপ্রিমো তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, ঠিক সেই সময়ই লোকসভা নির্বাচনকে

বেহালা থেকে কোচবিহার – বিজেপির আইন অমান্য কর্মসূচি ঘিরে তুলকালাম, পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি দুই রাজ্য সম্পাদকের

রাজ্য রাজনীতির মোর ঘোরাতে রাজ্যজুড়ে বিজেপি গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রার পরিকল্পনা করেছিল। কিন্তু, রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা বিঘ্নিত হতে পারে বলে সেই রাজনৈতিক কর্মসূচিতে কিছুতেই অনুমতি দিতে রাজি ছিল না রাজ্য প্রশাসন। ফলে বল গড়ায় আদালতে। সেখানেও, রাজ্য সরকারের কাছে বারবার বাধা প্রাপ্ত হয়ে গেরুয়া শিবির তা টেনে নিয়ে গিয়েছে সুপ্রিম কোর্টে। কিন্তু, দেশের

এনডিএ, ইউপিএ নাকি ফেডারেল ফ্রন্ট – রিপাবলিক টিভির সর্বশেষ সমীক্ষা অনুযায়ী কে করবে বাজিমাত? রাজ্যওয়ারি ফলাফল

গতকাল আসন্ন লোকসভা নির্বাচন উপলক্ষে রিপাবলিক টিভি ও সি-ভোটারের যৌথ জনমত সমীক্ষা প্রকাশিত হয়েছে। সেই সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে ২০১৪ সালের তুলনায় ক্ষমতাসীন এনডিএর আসন-সংখ্যা অনেকটাই কমছে - এমনকি সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকছে না এনডিএ জোটেরও! যদিও ইউপিএর আসন সংখ্যা অনেকটাই বাড়তে চলেছে নতুন জোটসঙ্গীদের দৌলতে। তবুও, সরকার গড়ার চাবিকাঠি থাকছে আঞ্চলিক দলগুলির

বদলে যাচ্ছে মিড-ডে মিলের খোলনলচে, শুধুমাত্র রান্নার গ্যাস সংযোগেই বরাদ্দ কোটি টাকা – জানুন বিস্তারিত

রাজ্যের শিক্ষকদের এক বড়সড় ক্ষোভের জায়গা মিড-ডে মিলের বাজেট। রাজ্যের স্কুল পড়ুয়াদের জন্য যে টাকা বরাদ্দ হয় এবং সেই বাজেটে যে মিল খাওয়ানোর অঙ্গীকার করা হয় তা বাস্তবে রূপায়িত করা যে কি কঠিন তা একমাত্র জানেন ভুক্তভোগীরাই - বলে দাবি শিক্ষক মহলের। আর রাজ্যের শিক্ষকদের সেই ক্ষোভের আঁচ অনুমান করেই এবার

পরপর পাঁচবার জেতা কংগ্রেসের গড় হেলায় ছিনিয়ে নিতেই ২০১৯-এর জন্য আত্মবিশ্বাসী হেভিওয়েট বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী

নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহের গড় বলে পরিচিত গুজরাটে বিজেপি, নির্বাচনে ভালো ফল করতেই আত্মবিশ্বাসী কথা শোনা গেল মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানীর গলায়। ২০১৯ সালের নির্বাচনে ফের জয় হবে বিজেপির, এমনটাই বক্তব্যে জানালেন এদিন। কেন এমন কথা বললেন সে ব্যাখ্যাও দিয়ে দিলেন এই বিজেপির হেভিওয়েট নেতা। দিন কয়েক আগে হওয়া গুজরাটের জশদা কেন্দ্রের

রাহুল গান্ধীকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করায় থানায় অভিযোগ দায়ের, যে কোন মুহূর্তে গ্রেপ্তার হতে পারেন হোটেল মালিক

বিশেষজ্ঞরা বলেন, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট যেমন একদিকে ভালো, তেমনি আর একদিকে অত্যন্ত ভয়ংকর। আর এবারে সেই ভয়ংকরতার চূড়ান্ত নিদর্শন টের পেতে হচ্ছে শিমলা রিসর্টের মালিক রণবীর সিংহ নেগীরকে। অনেকেই হয়ত ভাবছেন, এতো লোক থাকতে কেন হঠাৎ সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের কোপে পড়তে হল এই শিমলা রিসর্টের মালিককে? সূত্রের খবর, ফেসবুকে কংগ্রেসের সর্বভারতীয়

Top
error: Content is protected !!