এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "municipality"

হাওড়া পুরসভা বড়সড় সিদ্ধান্ত মুখ্যমন্ত্রীর অনুমোদনের অপেক্ষায়- জানুন বিস্তারিত?

সকলেই তাকিয়ে রয়েছেন, এন হাওড়া পৌরসভার পুনর্বিন্যাসের জন্য ঠিক কি সিদ্ধান্ত নেয় সরকার! বস্তুত, গত বছর 10 ডিসেম্বর এই হাওড়া পৌরসভার বিগত বোর্ডের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে সেখানকার কমিশনারকে প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ করে পুরসভা চালানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়। পরবর্তীতে রাজ্যের পুর দপ্তরের পক্ষ থেকে জেলার তিন মন্ত্রী, কমিশনার, বিদায়ী বোর্ডের মেয়র

কলকাতাকে “সাজাতে” দুর্গাপ্রতিমা বিসর্জন না করে এবার ঝিলপাড়ে বসাবেন নেতারা!

কিছুদিন আগেই কেন্দ্রের তরফে এক নির্দেশিকা দিয়ে বলা হয়েছিল, এবার প্রতিমা নিরঞ্জন গঙ্গায় দেওয়া যাবে না। সেক্ষেত্রে গঙ্গা দূষণ রোধ করতেই কেন্দ্রের পক্ষ থেকে এরুপ নির্দেশ জারি করা হয়েছিল বলে দাবি বিশ্লেষকদের। যা নিয়ে রাজ্য বনাম কেন্দ্রের মধ্যে চরম পরিমাণে দ্বৈরথ সৃষ্টি হয়েছিল। তবে এবার একদিকে কেন্দ্রের নির্দেশকে পরোক্ষ সমর্থন

এবার তৃণমূল পরিচালিত পুরসভায় “প্রোমোটার রাজের” অভিযোগ! শাসকদলের অস্বস্তি বাড়ছে

ক্ষমতায় আসার পর বেআইনি প্রমোটার রাজ বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু বিভিন্ন সময়ই সেই বেআইনি প্রোমোটার রাজের ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে। এবার তৃণমূল পরিচালিত কোন্নগর পৌরসভার বিরুদ্ধে বহুতলের অনুমোদন দিয়ে বেআইনিভাবে প্রমোটার রাজ করার অভিযোগ উঠতে শুরু করল। , সম্প্রতি এই পৌরসভার বিরুদ্ধে শাসকদলের একাংশ কাউন্সিলার মুখ্যমন্ত্রী এবং পুরমন্ত্রীর

প্রশাসক বসিয়ে পুরসভার “উন্নয়ন” থমকে যেতেই এবার “এন্ট্রি” নিচ্ছেন প্রাক্তন চেয়ারম্যান!

রাজ্যের পৌরসভার নির্বাচনগুলি পিছিয়ে যাওয়া নিয়ে বারবার সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে রাজ্যের বিরোধী দলগুলো। বিজেপি থেকে শুরু করে কংগ্রেস, কংগ্রেস থেকে শুরু করে বামফ্রন্ট, প্রত্যেকেই শাসকের পৌর নির্বাচন স্থগিত রেখে পৌরসভায় প্রশাসক বসিয়ে কার্য পরিচালনাকে সরকারের চাপিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত বলে কটাক্ষ করেছেন। কিন্তু রাজ্য সরকারের তরফ থেকে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম এবং

বেহাল রাস্তা ঠিক করা দূরের কথা, ভালো রাস্তা খুঁড়ে খারাপ করার অভিযোগ তৃণমূল পুরসভার বিরুদ্ধে

শারদোৎসবে যখন বৃষ্টিসুর চোখ রাঙাচ্ছে, আর তাতে যখন সেই অসুরকে বধের প্রার্থনা মা দুর্গার কাছে জানাচ্ছে রাজ্যবাসী, ঠিক তখনই পুজোর মুখে সড়ক ব্যবস্থা নিয়ে বিতর্কের মুখে পড়তে দেখা গেল তৃণমূল পরিচালিত রায়গঞ্জ পৌরসভাকে। একেই বৃষ্টিপাতের দিনে রাস্তার অবস্থা খারাপ হয়ে যায়। যার ফলে দুর্গা প্রতিমা দেখতে গিয়ে অসুবিধার সম্মুখীন হতে পারেন

পুজোতেও ছুটি নেই, তার ওপরে কাজ করতে হবে বিনা পারিশ্রমিকে! ক্ষোভে ফুটছেন কর্মীরা

বাঙালির মন ও প্রাণের সঙ্গে মিশে আছে দুর্গাপুজো। যে যেখানেই থাকুন না কেন, পুজোর দিনে নিজের বাড়িতে এসে ছুটি কাটাতে মন চায় প্রত্যেকেরই। কিন্তু নতুন জামা পড়ে যখন রাজ্যের প্রায় প্রত্যেকেই নিজের কর্মস্থল থেকে ছুটি পেয়ে পুজোর আনন্দে ভাসবে, ঠিক তখনই ছুটির দিনেও বিনা পারিশ্রমিকে কাজ করতে হবে আরামবাগ পৌরসভার

থমকে উন্নয়ন! সময়ে কাজ না করায় 12 কোটি টাকা ফেরত দিতে বাধ্য হল তৃণমূল পরিচালিত পৌরসভা

তিনি কর্মে বিশ্বাসী বলে মাঝেমধ্যেই দলীয় জনপ্রতিনিধিদের আরও বেশি বেশি করে কাজ করার নির্দেশ দেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু তার কথা দলের জনপ্রতিনিধিরা যে এক কান দিয়ে ঢুকিয়ে আরেক কান দিয়ে বের করে দেন, তা প্রায়শই প্রমাণিত হতে দেখা যায়। আর আরও একবার তৃণমূল পরিচালিত পৌরসভার ক্ষেত্রে

হেভিওয়েট তৃণমূল নেতার প্রাসাদপ্রম ‘অবৈধ’ অট্টালিকা তৃণমূল পরিচালিত পুরসভাই ভেঙে গুঁড়িয়ে দিল

2011 সালে রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পরই রাজধর্ম পালনের কথা বলেছিলেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেক্ষেত্রে নিজের দলের কেউ যদি অবৈধ কাজের সঙ্গে জড়িত থাকে, তাহলে তাকেও রেয়াত করা হবে না বলে বারেবারেই জানিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। এমনকি কিছু কিছু ক্ষেত্রে রাজ্যের ক্ষমতায় থাকা শাসকদল নিজের দলের দুর্নীতি ভাঙতে কঠোর

হয়ে গেলো বনগাঁ পুরসভার আস্থা ভোট শেষ হাসি কে হাসলেন দেখে নিন

অনেক টালবাহানার পর অবশেষে আজ বনগাঁ পুরসভার আস্থা ভোট হল. আর সেই আস্থা ভোটে তৃণমূল কংগ্রেস জয় পেল। জানা যাচ্ছে আজ সকালে 13 জন তৃণমূল এবং একজন কংগ্রেস কাউন্সিলর তৃণমূলের পক্ষে ভোট দিয়ে তৃণমূলকে জয়ী করেছেন।এদিকে আস্থা ভোটে এদিন অনুপস্থিত ছিলেন বিজেপি এবং সিপিএম কাউন্সিলরের। যে কারণে উপস্থিত সমস্ত কাউন্সিলরদের ভোট

চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা দেখাতে পারলেন না বিক্ষুব্ধরা – কোন ম্যাজিক জেনে নিন

তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব লেগেই আছে। একের পর এক ঘটনায় তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকট হয়ে উঠছে। এবার গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব ইংরেজবাজার ও পুরনো মালদায়। সেখানকার পৌরসভার চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনে বিক্ষুব্ধ তৃণমূল কাউন্সিলররা। কিন্তু অনাস্থা প্রস্তাব এনেও চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আস্থা প্রস্তাব দিতে হলো বিক্ষুব্ধ চেয়ারম্যানদের। তবে যে চেয়ারম্যানদের দিকে অভিযোগের আঙুল উঠেছে, পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম

Top
error: Content is protected !!