এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "mamata"

মমতার সাধের সংখ্যালঘু ভোট বড়সড় থাবা ! ঘুম উড়তে চলেছে নতুন সমীকরণে ! !

2019 এর লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল বিজেপির থেকে যে চারটি আসন বেশি পেয়েছে, এবং তা পেয়ে যেভাবে তাদের মুখ রক্ষা হয়েছে, তার পেছনে প্রধান কৃতিত্ব রয়েছে বাংলার সংখ্যালঘু সমাজের। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের দাবি, সংখ্যালঘুদের ভোট তৃণমূলের ঝুলিতে গেছে বলেই লোকসভায় তৃণমূল বিজেপির থেকে কিছু আসন বেশি পেয়েছে। এমনকি প্রায় প্রতিটি নির্বাচনেই সংখ্যালঘু

মুকুলকে দিয়ে বিজেপিকে চাপে ফেলতে নয়া পদক্ষেপ তৃণমূলের! জেনে নিন

নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় ইতিমধ্যেই রাজ্যজুড়ে জোর প্রচার করতে শুরু করেছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। তবে তৃণমূলের এই প্রচার যাতে বেশি মাত্রা না পায়, তার জন্য পাল্টা রণকৌশল করছে ভারতীয় জনতা পার্টি। তবে বিজেপি বাড়ি বাড়ি গিয়ে এই নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে সাধারণ মানুষকে বোঝানোর চেষ্টা করলেও, পাল্টা নমঃশূদ্রদের মাঠে নামিয়ে বিজেপির

ভারতী ঘোষকে বড়সড় পুরস্কার দিচ্ছেন মমতা, শোরগোল রাজ্যজুড়ে

  এবার ভারতী ঘোষকে বঙ্গরত্ন সম্মান দিতে চলেছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের সরকার। এক লহমায় প্রত্যেকের এই কথাটি শুনলেই আঁতকে উঠবেন। কেননা এককালের প্রাক্তন আইপিএস অফিসার ভারতী ঘোষ এখন বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন একসময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মা বলা ভারতী ঘোষ এখন উঠতে বসতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তুলোধোনা করেন। আর এবার কি সেই

দিল্লির বৈঠকে না যাওয়া, এনআরসি বিরোধিতা নিয়ে মমতাকে আক্রমণ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর, জোর চাঞ্চল্য!

  নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন লাগু হওয়ার পর থেকেই তার চরম বিরোধিতা করা শুরু করেছেন তৃণমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কোনোভাবেই তিনি বাংলায় এনআরসি হতে দেবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন। পাশাপাশি এই আইন বাতিলের দাবিতে পদযাত্রা সভা-সমিতিতে লাগাতার অংশ নিচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যাকে কেন্দ্র করে বিজেপির তরফ সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে

বড়সড় খেতাব পেলো মমতা সরকার, জেনে নিন

বড়সড় খেতাব পেলো মমতা সরকার ,সদ্য প্রকাশিত ২০১৮ ন্যাশনাল ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর রিপোর্ট অনুযায়ী জানা যাচ্ছে কলকাতাই সবচেয়ে নিরাপদ শহর। জানা যাচ্ছে এই রিপোর্ট অনুযায়ী, অপরাধের সংখ্যা যেখানে কম তার যে তালিকা রয়েছে তাতে প্রথমে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতা। এরপর রয়েছে হায়দরাবাদ, পুনে এবং মুম্বই ও অন্যান্য শহর। তবে সুখবরের পাশাপাশি

বুধবারের বনধ নিয়ে সিপিএম এবং বিজেপির অভিযোগ মমতার দিকে, জোড়া ফাপড়ে তৃণমূল!

  কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বনধ। তাই প্রথম থেকেই এই বনধ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থন করবেন বলে আশা করতে দেখা গিয়েছিল বাম কংগ্রেসের মতো দলগুলোকে। তবে তারা ভালই জানত, 2011 সাল থেকে ক্ষমতায় আসা তৃণমূল কংগ্রেস যেভাবে বন্ধের বিরোধিতা করেছে, তাতে তারা কেউ সমর্থন করবে না। আর শেষ পর্যন্ত তৃণমূল বনধকে সমর্থন না করার কথা

বিজেপি বিরোধিতায় বামেদের ধর্মঘট কি সমর্থন করবেন মমতা! কি বললেন তিনি? জেনে নিন

  বর্তমানে দেশের মধ্যে সবথেকে বেশি বিজেপি বিরোধিতায় নিজের সুর চওড়া করেন তৃণমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমনকি বিজেপির বিরোধিতায় এই দেশের সমস্ত বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে এক ছাতার তলায় আনার চেষ্টাও চালান তিনি। আর সেদিক থেকে বর্তমানে নাগরিকত্ব সংশোধনী ইস্যু সহ দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি সহ বিভিন্ন বিষয়ে কেন্দ্রের বিজেপি

মান্নান সাহেবের প্রস্তাবকে সমর্থন করে মমতাকে পাশে চাইছে বামেরা, জেনে নিন

আগে বহুবার কেন্দ্রে ভারতীয় জনতা পার্টির সরকারের নীতির বিরুদ্ধে এবং কংগ্রেসকে পশ্চিমবঙ্গে রাজ্য সরকারের সঙ্গে একজোট হয়ে লড়াই বার্তা দিতে দেখা গিয়েছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তবে এবার বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সরাসরি প্রস্তাব দেবেন রাজ্যের বিধানসভার বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান। সম্প্রতি কেন্দ্র সরকারের লাগু করা সংশোধিত নাগরিক আইনের

রাজ্যে এসে মমতাকে গদিচ্যুত করার ডাক কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর, জোর শোরগোল

রাজ্যের তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের সঙ্গে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের আদায়-কাঁচকলায় সম্পর্কের কথা কারও অজানা নয়। বর্তমানে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ইস্যুতে সেই সম্পর্ক আরও তলানীতে ঠেকেছে। মাঝেমধ্যেই রাজ্যের শাসকদলের বিভিন্ন নেতার সঙ্গে কেন্দ্রের শাসক দলের বিভিন্ন নেতার তরজা লক্ষ্য করা যায়। তবে সেভাবে রাজ্যের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেসকে উৎখাতের কথা শোনা যায়নি বিজেপির

সিএএর বিরুদ্ধে বক্তব্য দিয়েও মমতাকে কটাক্ষ হেভিওয়েট নেতার, জোর শোরগোল!

  দীর্ঘ 34 বছর ধরে বাংলার শাসন ক্ষমতা সামলেছেন তারা। তবে এখন তাদের বিরোধী আসনেই বসতে হচ্ছে। যত দিন যাচ্ছে, ততই কার্যত অস্তিত্ব হারিয়ে যেতে বসেছে বামেরা। তবে এই পরিস্থিতিতে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর দেশজুড়ে প্রতিবাদ আন্দোলন সংগঠিত করতে শুরু করেছেন সেই বাম শিবিরের নেতা কর্মীরা। কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের

Top
error: Content is protected !!