এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "leave party"

তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা বিজেপিতে যোগ দিতেই দলবদল বিজেপি কর্মীদের, সরগরম রাজ্য রাজনীতি

রাজ্যে যখন দলবদলের ব্যাপক হিড়িক চলছে, যখন একের পর এক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করছেন এবং তাকে ঘিরে উৎসাহী হচ্ছে গেরুয়া শিবিরের কর্মী সমর্থকরা, ঠিক তখনই দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় যেন বিপরীত চিত্র লক্ষ্য করা গেল। বস্তুত, কিছুদিন আগেই এই দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা তৃণমূলের প্রাক্তন সভাপতি বিপ্লব মিত্র দিল্লিতে

পাপের প্রায়শ্চিত্ত করতে হচ্ছে তৃণমূল থেকে আসা এই বিজপির এই হেভিওয়েট নেতাকে, কেন! জেনে নিন

এক সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিশ্বস্ত সঙ্গী ছিলেন তিনি। তার চাণক্য বুদ্ধিতেই একের পর এক নির্বাচন বৈতরণী পার করেছে তৃণমূল বলে দাবি বিশ্লেষকদের। আর এহেন মুকুল রায় বেশ কিছুদিন হল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অস্বস্তি বাড়িয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। আর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই তৃণমূলকে কবে এই রাজ্য থেকে গনতান্ত্রিক ভাবে সরানো

মুকুল-অরূপের হাত ধরে দলবদল, সামঞ্জস্য এল তৃণমূল-বিজেপিতে

লোকসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর থেকেই রাজ্যের শাসক দলের অন্দরে ভাঙ্গন ধরতে শুরু করে। একের পর এক কাউন্সিলর, বিধায়ক, নেতারা ঘাসফুল ছেড়ে পদ্মফুলে নাম লেখান। যার জেরে বিভিন্ন পৌরসভায় লাগে গেরুয়া রঙের ছোঁয়া। অন্যদিকে একের পর এক জনপ্রতিনিধি তাদের দল ছেড়ে বিরোধী দল বিজেপিতে নাম লেখানোয় হতাশ হয়ে পড়ে তৃণমূল। সম্প্রতি

“দলের কাছে আমি জঞ্জাল।”একরাশ ক্ষোভ উগরে দিয়ে পদত্যাগ ও দলত্যাগ তৃণমূল সভাপতির

লোকসভা ভোটের মুখে ধ্বস নামল বীরভূমের শাসকদলের সংগঠনে। দলের বিরুদ্ধে বিষোদগার করে পদত্যাগ করলেন বর্ধমানের অঞ্চল সভাপতি সুব্রত পাল। " দলে আমার কোনে গুরুত্ব নেই। দলের কাছে আমি জঞ্জাল" এমনটাই বক্তব্য ছিল সুব্রতবাবুর। তাঁর সঙ্গে জেলার আরো ৫০ জন সদস্যও দল ছাড়লেন। গোটা ঘটনায় রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে শাসক শিবিরে। বর্ধমানের

লোকসভা ভোটের মুখে মোদী শাহকে বড় ধাক্কা দিয়ে দল ছাড়লেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী

শিয়রে লোকসভা ভোট। আর এই মুহূর্তে বিজেপির অস্বস্তিকে দ্বিগুণ বাড়িয়ে ফের দলত্যাগ করলেন অরুণাচল প্রদেশের পাঁচবারের মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপির হেভিওয়েট নেতা গেগং আপাং। জাতীয় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ এবং রাজ্য সভাপতি টাপির গাওকে চিঠি দিয়ে নিজেদের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন তিনি। শুধু তাই নয়,গতকাল ট্যুইট করেও জানিয়ে দিয়েছেন যে তিনি আর বিজেপিতে

এবার মোদী-শাহের চিন্তা বাড়িয়ে দলের বিরুদ্ধে তোপ দেগে দল ছাড়লেন সাংসদ

এবার মোদী-শাহের চিন্তা বাড়িয়ে দলের বিরুদ্ধে তোপ দেগে দল ছাড়লেন সাংসদ সবিত্রীবাই ফুলে। যোগী সরকারের ও বিজেপির বিরুদ্ধে একাধিকবার তিনি এর আগেও মুখ খুলেছেন। মারাত্মক সব অভিযোগ এনেছিলেন তিনি যেমন বিজেপি সরকার পরিকল্পনা করে সংবিধানের সংরক্ষণের বিপক্ষে যাওয়ার কুচক্র তৈরি করছে। আম্বেদকরের সংবিধান অনুযায়ী চলতে হবে বিজেপি ও যোগী সরকারকে। রাম মন্দির

আট বছর তৃণমূল করার পর সঙ্ঘের প্রতি আস্থা দেখিয়ে দল ছাড়লেন হেভিওয়েট নেতা

আট বছর ঘর করার পর ঠিক লোকসভা ভোটের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে তৃণমূল ছাড়লেন কর্নেল সব্যসাচী বাগচি। গত জুলাই মাসেই রাজ্য সরকারের ক্ষুদ্র শিল্প উন্নয়ন নিগমের চেয়ারম্যান পদ ছেড়ে দিয়েছিলেন তিনি। আর এবার দলের প্রাথমিক সদস্য পদ থেকেও অবসর নিলেন তিনি। সপ্তাহ দুয়েক আগে দলের প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে ইস্তফা পত্র পাঠিয়ে

Top
error: Content is protected !!