এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "karnataka"

কথা রাখলেন মমতা, CAA নিয়ে প্রতিবাদে কর্নাটকের মৃতদের পরিবারের হাতে সাহায্য তুলে দিল তৃণমূল!

  এবার নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতায় বিজেপির বিরুদ্ধে গর্জে ওঠার পাশাপাশি বিজেপিকে আরও চাপে ফেলে দিলেন তৃণমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানা গেছে, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন লাগু হওয়ার পর থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আগুন জ্বলতে শুরু করে। যার ফলস্বরুপ গত 19 ডিসেম্বর এই আইনের বিরোধিতা করে বেঙ্গালুরুতে পুলিশের গুলিতে

এবার কি তার টার্গেট ভারত? উত্তরপ্রদেশের পর কর্নাটকে, নিহতদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা

  নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে ইতিমধ্যেই বিজেপির বিরুদ্ধে কলকাতার রাজপথে নেমেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অবিলম্বে এই আইন বাতিলের দাবি জানিয়েছেন তিনি। বস্তুত, সংসদের দুই কক্ষে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন পাস হয়ে যাওয়ার পরেই তাতে স্বাক্ষর করে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। যার পরেই সেই বিল আইনে পরিণত হয়ে গেলে একাংশ তীব্র প্রতিবাদ জানাতে থাকে। ইতিমধ্যেই

বিজেপি ছাড়লেন প্রাক্তন বিধায়ক, উলটপুরান রাজ্যে, জোর জল্পনা

  রাজনীতিতে এক গতিতেই সবকিছু চলবে বলে মনে করে বিভিন্ন মহল। কিন্তু নদীর গতিপথের যেমন মাঝেমধ্যেই পরিবর্তন হয়, ঠিক তেমনই রাজনৈতিক গতিপথেরও বিভিন্ন সময় পরিবর্তন হয় বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের। 2019 এর লোকসভা নির্বাচনে সারা দেশজুড়ে গেরুয়া ঝড় বয়ে যাওয়ার পর বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর অস্তিত্ব কার্যত সংকটের মুখে পড়ে গিয়েছিল। রাজ্যে রাজ্যে

১৭ জন বিধায়ক কি আজ সন্ধ্যেই যোগ দিচ্ছে বিজেপিতে? মন্তব্যে জোর জল্পনা

  মহারাষ্ট্রে নাটকীয় পরিস্থিতি তৈরি হতে না হতেই এবার কর্ণাটকেও অবিস্মরনীয় পরিস্থিতি তৈরি হয়ে গেল। সূত্রের খবর, বুধবারই কর্নাটকে বরখাস্ত হওয়া বিধায়কদের নির্বাচনে লড়ার অনুমতি দেয় দেশের শীর্ষ আদালত। যার ফলে সেই জেডিএস এবং কংগ্রেসের বিধায়কদের নির্বাচনে লড়ার জন্য আর কোনো বাধা রইল না বলে মত বিশেষজ্ঞদের। কিন্তু সকলের মনে একটাই প্রশ্ন

বনধকে ঘিরে বিক্ষিপ্ত উত্তেজনা কর্নাটকে -জেনে নিন বিস্তারিত

পি চিদম্বরমের পর এবার ডি কে শিবকুমার। একের পর এক কংগ্রেস হেভিওয়েট নেতারা সি বি আই ও ইডির হাতে ধরা পড়ায় কংগ্রেস দলে তীব্র চাঞ্চল‍্য দেখা দিয়েছে। সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশের জন‍্য তারা হাতিয়ার করেছে বনধকে। বুধবার কর্ণাটকে বনধ জারি করেছে কংগ্রেস। এবার ইডির হাতে ধরা পড়লেন কংগ্রেস হেভিওয়েট নেতা

নিজেরই সহযোগীকে প্রকাশ্যে চড় কষালেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী, বিতর্ক তুঙ্গে

এবার কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া উঠে এলেন আবার খবরের শিরোনামে। এদিন তাকে ঘিরে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে উঠে। কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কে নিয়ে একটি ভিডিও প্রকাশ পায় সংবাদ সংস্থা এএনআইতে। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, বিমানবন্দরে তিনি তার সহযোগীকে সজোরে চড় মারছেন প্রকাশ্যে। যদিও ভিডিওটিতে ছবি দেখা গেলেও তাদের কথাবার্তা কিছুই স্পষ্টভাবে শোনা

অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে জোটে মত নেই এই নেতার, ভবিষ্যৎ নিয়ে জোর জল্পনা

কোনোক্রমে কংগ্রেসকে সাথে নিয়ে বিজেপিকে রোখবার জন্য কর্নাটকে জোট করে মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন তিনি। সেক্ষেত্রে জেডিএসের কুমারস্বামী মুখ্যমন্ত্রী হলে শরিক কংগ্রেসের চাপে মাঝেমধ্যেই বিড়ম্বনায় পড়তে হত তাকে। সম্প্রতি তার দল এবং শরিক দল ছেড়ে একাধিক বিধায়ক চলে যাওয়ায় প্রবল অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছে তাকে। মুখ্যমন্ত্রী পদও খোয়া গেছে সেই এইচডি কুমারস্বামীর। আর এরপরই

আজকেই কি কর্নাটকে মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিতে চলেছেন ইনি ? জোর জল্পনা

কয়েকদিনের টালবাহানার পর আজকেই কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী পদে বসতে পারেন যেদুরাপ্পা। জল্পনা এমনটাই ছড়িয়েছে রাজ্যে। এমন জল্পনা ছড়ানোর কারণ হলো শোনা যাচ্ছে এদিন কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে কথা বলে সবুজ সঙ্কেত পেয়ে গেছেন তিনি। আর তার পরেই কর্নাটকে সরকার গড়তে মরিয়া বিজেপি রাজ্যপাল বাজুভাই বালার কাছে গিয়ে সরকার গঠনের আর্জি জানিয়েছে। শোনা যাচ্ছে

প্রবল সঙ্কটে কর্নাটক, কি হল আবার! জেনে নিন বিস্তারিত

শেষ পর্যন্ত বিজেপির ইচ্ছা অনুযায়ী কর্নাটকে কংগ্রেস জেডিএস জোট সরকারের পতন হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী পদে ইস্তফা দিয়েছেন জেডিএসের এইচ ডি কুমারস্বামী। আর তারপরই জল্পনা শুরু হয়েছিল যে, তাহলে এবার হয়ত বিজেপি এই কর্নাটকে সরকার গঠনের জন্য আবেদন জানাতে পারে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত বিজেপির বিএস ইয়েদুরাপ্পারা শীর্ষ নেতৃত্বের কাছ থেকে এখানে সরকার গঠনের

কর্নাটকে সাফল্য পেলেও এই রাজ্যে জোর ধাক্কা খেল বিজেপি, জেনে নিন

গেরুয়া শিবিরের আশা ছিল, কর্নাটকে তারা যেভাবে সাফল্য পেয়েছে, ঠিক একইভাবে মধ্যপ্রদেশেও তারা সাফল্য আনবে। কিন্তু সব জায়গায় সব ঘোড়া যে এক নয়, তা স্পষ্ট হয়ে গেল। বস্তুত, গতকাল রাতেই কর্নাটকে কংগ্রেস জেডিএস জোট সরকারের পতন হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী পদ ছাড়তে হয়েছে এইচডি কুমারস্বামীকে। এরপরই মধ্যপ্রদেশে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা শিবরাজ

Top
error: Content is protected !!