এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "joining bjp"

তৃণমূল নেতাদের বিজেপিতে যোগদান ঘিরে বিস্ফোরক বিজেপি নেতা

  লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই রাজ্য রাজনীতিতে শাসক বনাম বিরোধীর লড়াই চরম পরিমাণে শুরু হয়েছে। পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছে গিয়েছে যে, পার্টি অফিস থেকে পঞ্চায়েত সমিতি - দখল, পাল্টা দখল নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় উত্তেজনা ছড়াচ্ছে। আর এই দখল, পাল্টা দখলের ঘটনা ঘটাতে গিয়েই শাসক-বিরোধী দুই দলের সংঘর্ষ চরম পরিমাণে প্রত্যক্ষ করছেন

বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন 15 জন বিধায়ক – সামনে এল বড়সড় বিস্ফোরক তথ্য

লোকসভা নির্বাচনে সারা দেশে বিজেপি ঝড় প্রত্যক্ষ করা গেলেও সদ্য অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া মহারাষ্ট্র এবং হরিয়ানায় বিজেপি সেইভাবে ফলাফল করতে পারবে না বলে দাবি করেছিল বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো। কিন্তু তাদের সেই দাবির উপরে উঠে সমস্ত বুথ ফেরত সমীক্ষা সহ গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছিল যে, এখানে ফের ক্ষমতা

বিজেপি যোগের সম্ভাবনা আরও বাড়িয়ে সৌরভের বাড়িতে ফুল-মিষ্টি পাঠালেন বিজেপি নেতা

দীর্ঘদিন ধরেই বাংলার রাজনীতিতে সক্রিয় থাকলেও চিরকালই গ্রহণযোগ্য নেতৃত্বের অভাবে রয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের সম্পর্কে মানুষের মনে নানান অভিযোগ থাকা সত্ত্বেও দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গ্রহণযোগ্যতা এবং জনপ্রিয়তায় বারবার নির্বাচনী বৈতরণী পার হয়ে গেছে তৃণমূল কংগ্রেস বলে মত রাজনৈতিক মহলের। সেক্ষেত্রে ভারতীয় জনতা পার্টির কাছে জনপ্রিয় কোনো

বড়সড় প্রাপ্তি, প্রাক্তন সংসদকে ঘরে তুললো বিজেপি, তীব্র জল্পনা

ভোটের মুখেই বড়সড় প্রাপ্তি ঘটলো গেরুয়া শিবিরে, কংগ্রেসের ঘর ভেঙে প্রাক্তন সাংসদকে ঘরে তুললো বিজেপি। যা ঘিরেই জোর জল্পনা শুরু। জানা যাচ্ছে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের উপস্থিতিতে প্রতাপগড়ের র‍্যালিতে বিজেপিতে যোগ দেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দীনেশ সিং-এর মেয়ে ও প্রাক্তন সাংসদ রত্না সিং। যেহেতু রত্না সিং এর বাবা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

আজই বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন এই তৃণমূল বিধায়ক! জোর জল্পনা

সম্প্রতি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রিয় সঙ্গী হিসেবে পরিচিত শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং তার বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু শোভন এবং বৈশাখী শিবির বদল করলেও তার অনেক আগে থেকেই যে ব্যক্তির বিজেপিতে যোগ নিয়ে সব থেকে বেশি জল্পনা চলছে, তার নাম হল বিধাননগর পৌরসভার সদ্য প্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্ত। কেননা

ফের শক্তি বাড়ালো বিজেপি, কাউন্সিলর তথা সভাপতির যোগ গেরুয়া শিবিরে

লোকসভা ভোটের পর থেকেই রাজ্যে শক্তি বাড়াচ্ছে বিজেপি। ঘাসফুল শিবিরের একের পর এক নেতা, কর্মী, বিধায়ক ,কাউন্সিলররা যোগ দিচ্ছেন গেরুয়া শিবিরে। আর এদিন ফের মহেশতলা পৌরসভার 18 নম্বর ওয়ার্ডের কংগ্রেসের টিকিটে পাঁচবার জয়ী কাউন্সিলর তথা মহেশতলা ব্লকের কংগ্রেস সভাপতি রমণী নস্কর কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন। জানা যাচ্ছে যে, গতকাল রাজ্য

বিজেপিতে যোগ দিলেন রাহুল-মমতা, ছবি ঘিরে জোর শোরগোল রাজ্যে

রাজনীতিতে দলবদল যেন এখন স্বাভাবিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু বিরোধী দলের প্রধান ব্যক্তি, যিনি শাসকের প্রধান ব্যক্তির বিরুদ্ধে প্রায়শই কড়া ভাষায় সমালোচনা করেন, সেই তিনিই যদি শাসকের দলে নাম লেখান, তাহলে কেমন হবে! কথাটা শুনতে জটিল মনে হলেও, বাস্তবটা যখন সামনে আসবে তখন প্রায় চমকে উঠবেন সকলে। বস্তুত, জনসংঘের প্রতিষ্ঠাতা শ্যামাপ্রসাদ

বিজেপিতে যাওয়া নিয়ে মুখ খুলেজল্পনা বাড়ালেন মেয়র, কি বললেন তিনি?

শুরুটা হয়েছিল, বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের তাঁর বাড়িতে গিয়ে লুচি আলুর দম খাওয়াতে কেন্দ্র করে। আর তারপর থেকেই বিভিন্ন দলবিরোধী মন্তব্য বিধাননগর পৌরসভার মেয়র সব্যসাচী দত্তের বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা তৈরি হয়। আর সম্প্রতি তাকে নিয়ে দলে তৈরি বিভ্রান্তি এবং তার বিরুদ্ধে তৃণমূলের তরফে ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি পরও বিধাননগর সুইমিং পুলে সেই

ফের অনুব্রত গড়ে বড়সড় ভাঙ্গন, চাপ বাড়ছে বীরভূমের কেষ্টার

লোকসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 42 এ 42 এর স্লোগান তুললেও তার সৈনিকেরা সেই দায়িত্ব পালন করতে পারেননি। নির্বাচনের মরসুমে বারবারই খবরের শিরোনামে উঠে আসা বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল দাপটের সঙ্গে নকুলদানা দিয়ে ভোট করানোর কথা বললেও তার জেলার দুটি লোকসভা আসনে তিনি দলকে জিতিয়েছেন ঠিকই, কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে ভোট

সব্যসাচীর জল্পনার মাঝেই আর এক হেভিওয়েট নেতার বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা ছড়াল, শোরগোল রাজ্যে

লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর থেকেই তৃণমূলের অনেক বিধায়ক, নেতা, কাউন্সিলররা গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে শুরু করেন। সম্প্রতি বিধাননগরের মেয়র তথা রাজারহাট নিউটাউনের তৃণমূল বিধায়ক সব্যসাচী দত্তের বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জল্পনা তৈরি হয়। আর এই ঘটনা নিয়ে যখন রাজ্য রাজনীতির অন্দরমহলের শোরগোল পড়েছে, ঠিক তখনই এবার উত্তরবঙ্গের এক হেভিওয়েট তৃণমূল

Top
error: Content is protected !!