এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "jhargram"

ঝাড়গ্রামকে বিশেষ গুরুত্ব প্রশান্ত কিশোরের, জেনে নিন

2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের অনেক জায়গাতেই অভূতপূর্ব উত্থান ঘটেছে ভারতীয় জনতা পার্টির। আর তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য, আদিবাসী অধ্যুষিত লোকসভা কেন্দ্র ঝাড়গ্রাম। এই লোকসভা কেন্দ্রে এবার ব্যাপক পরিমাণে জনসমর্থন লাভ করতে সক্ষম হয়েছে রাজ্যের গেরুয়া শিবির। শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে যা রীতিমতো রক্তচাপ বাড়ানোর সংকেত দিয়েছে। শুধু তাই নয়, লোকসভা

তৃণমূলের ‘দিদিকে বলো’তে দিলীপ ঘোষ – প্রশান্ত কিশোরের স্ট্র্যাটেজিতে ঘুরলো মোর?

তৃণমূলের 'দিদিকে বলো' কর্মসূচিতে হাজির হলেন দিলীপ ঘোষ আর এই খবর সামনে আসতেই শোরগোল পড়ে গেছিল রাজনৈতিক মহলে ।হ্যাঁ ঠিকই পড়েছেন দিলীপ ঘোষ, তবে পরে জানা যায় তিনি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ নন, তিনি হলেন তৃণমূলের অবিভক্ত মেদিনীপুর জেলা পরিষদের সদস্য তথা ঝাড়গাম জেলা তৃণমূলের কোর কমিটির সদস্য দিলীপ ঘোষ। জানা

ঝাড়গ্রাম পুনরুদ্ধারে দলের এই নেতার ওপরই ভরসা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের, জানুন বিস্তারিত

ক্ষমতায় আসার পর থেকেই জঙ্গলমহলের উন্নয়নে বাড়তি জোর দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেইমতো প্রথমদিকে সেই জঙ্গলমহলের জেলাগুলিতে নির্বাচনে ব্যাপক সাফল্য পেয়েছিল তৃণমূল। কিন্তু গত পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকে এই জঙ্গলমহলে তৃণমূলের ভিত আলগা হতে শুরু করে। যেখানে প্রবল উত্থান ঘটে গেরুয়া শিবিরের। আর এবার লোকসভা নির্বাচনে সেই জঙ্গলমহলের ঝাড়গ্রাম লোকসভা কেন্দ্র হাতছাড়া হয়

ঝাড়গ্রামের জামবনি তে বিজেপি কর্মী খগপতি মাহাতকে লক্ষ্য করে গুলি

ঝাড়গ্রাম,কার্তিক গুহ :- ঝাড়গ্রাম জামবনি তে বিজেপি কর্মী খগপতি মাহাতকে লক্ষ্য করে গুলি। ঝাড়গ্রাম জেলার জাম্বনি ব্লকের বাঘুয়া গ্রামে রাত, ১ টা নাগাদ ঘটনা ঘটেছে।গ্রামের যুবক খগপতি মাহাত (২০),এদিন গ্রামের হরিনাম সংকীর্তন অনুষ্ঠানে মেতে ছিলেন। সেই সময় কয়েক জন দুষ্কৃতী এসে খুব কাছ থেকে বুকে গুলি করে।সাথে সাথে মাটিতে লুটিয়ে

ঝাড়গ্রাম নিয়ে কি আশা ছাড়ছে তৃণমূল? রাজ্য-জেলা নেতৃত্বের প্রচার না করা নিয়ে জল্পনা তীব্র!

রাজ্যের 42 টি আসনের মধ্যে 42 টি আসনই তাদের দখলে রাখতে হবে বলে ইতিমধ্যেই প্রায় প্রতিটা লোকসভা কেন্দ্র দখলের জন্য দলীয় নেতৃত্বকে টার্গেট বেঁধে দিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সেইমতো বিভিন্ন লোকসভা কেন্দ্র এবং বিভিন্ন লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত বিভিন্ন বিধানসভায় গিয়ে জেলা এবং রাজ্য স্তরের নেতারা জোর প্রচার চালাতে শুরু করেছেন। কিন্তু

লোকসভা নির্বাচনে ঝাড়গ্রাম ও পুরুলিয়াতে সাম্ভাব্য বিজেপি প্রার্থী ও বর্তমান পরিস্থিতি

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় বিভিন্ন যুযুধান রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে সবথেকে বেশি আগ্রহ, উদ্দীপনা ও কৌতূহল তৈরী হয়েছে বিজেপির প্রার্থী তালিকা নিয়ে। এর অন্যতম প্রধান কারণ বোধহয়, এই প্রথম বাংলায় কোনো নির্বাচনে বিজেপি 'ভালো ফল' করার জন্য নয় - লড়তে নামছে 'জেতার জন্য'। বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ যে হুঙ্কার দিয়ে

ঝাড়গ্রামে ঝড় তুলে তৃণমূল কংগ্রেসকে তীব্র আক্রমন স্মৃতি ইরানির

বাংলায় শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস যতই দাবি করুক আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের ৪২ টি আসনের মধ্যে ৪২ টিতেই জয়ী হবে তারা - বাংলায় পরিবর্তনের পরিবর্তন করতে মরিয়া গেরুয়া শিবির। আর তাই বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ দাবি করেছেন বাংলা থেকে অন্তত ২২-২৩ টি আসন আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে জিতবে গেরুয়া শিবির। সেই

লোকসভার আগেই জনমোহিনী পথে মুখ্যমন্ত্রী – হাজার শবর পরিবারের জন্য সাড়ে দশ কোটির অনুদান

সম্প্রতি ঝাড়গ্রাম জেলার লালগড়ে সাত শবরের মৃত্যুর ঘটনায় তোলপাড় হয়ে উঠেছিল রাজ্য রাজনীতি। যা নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগও তুলেছিল বিরোধীরা। পরে অবশ্য মুখ্যমন্ত্রী পরিষ্কারভাবে জানিয়ে দেন যে, এইখানে কারোরই অনাহারে মৃত্যু হয়নি। এমনকি রাজ্য খাদ্য দপ্তরের পক্ষ থেকেও একটি রিপোর্ট প্রকাশ করে জানানো হয় যে, এখানকার প্রতিটি ব্যক্তিই সরকারের তরফে

সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পরও প্রায় চার মাস হতে চললেও এখনো গড়া যায়নি বেশ কিছু পঞ্চায়েত ও সমিতির বোর্ড – ক্রমশ কড়া হচ্ছে প্রশাসন

এই রাজ্যে পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠন নিয়ে যেন কিছুতেই টালবাহানা কমছে না। গত সেপ্টেম্বর মাসে দেশের শীর্ষ আদালতের পক্ষ থেকে এই রাজ্যের সব পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন করা যাবে বলে নির্দেশ দেওয়া হলেও এখনও পর্যন্ত রাজ্যের বেশ কিছু পঞ্চায়েত বা পঞ্চায়েত সমিতিতে সেই বোর্ড গঠনের কাজ সম্পন্ন হয়নি। ফলে প্রবলভাবে বাধা পাচ্ছে উন্নয়ন।

মুখ্যমন্ত্রীর অনুপ্রেরনায় জঙ্গলমহলে শুরু পরিবেশ বান্ধব ইট প্রকল্প

বিভিন্ন সরকারি কাজে ইট ব্যাবহার করা হয়। এছাড়াও বানিজ্যিকভাবেও ইটের চাহিদা প্রচুর। তাই এবার ঝাড়গ্রাম জেলার নয়াগ্রামের গোষ্ঠীর মহিলাদের স্বনির্ভর করার লক্ষ্যে রাজ্য সরকারের উদ্যোগে চালু হল পরিবেশবান্ধব ইট প্রকল্প। বুধবার এই প্রকল্পের উদ্বোধন করেন রাজ্যের পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দপ্তরের অতিরিক্ত সচিব দিব্যেন্দু সরকার। জানা গেছে, নয়াগ্রামের জঙ্গলকন্যা সেতুর পাশে

Top
error: Content is protected !!