এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "India"

এবার কি তার টার্গেট ভারত? উত্তরপ্রদেশের পর কর্নাটকে, নিহতদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা

  নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে ইতিমধ্যেই বিজেপির বিরুদ্ধে কলকাতার রাজপথে নেমেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অবিলম্বে এই আইন বাতিলের দাবি জানিয়েছেন তিনি। বস্তুত, সংসদের দুই কক্ষে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন পাস হয়ে যাওয়ার পরেই তাতে স্বাক্ষর করে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। যার পরেই সেই বিল আইনে পরিণত হয়ে গেলে একাংশ তীব্র প্রতিবাদ জানাতে থাকে। ইতিমধ্যেই

আয়কর নিয়ে বড়সড় ঘোষণা করতে পারে মোদী সরকার, আশায় বুক বাঁধছে মোদী সরকার

দেশের অর্থনীতির বেহাল দশা ফেরাতে আগেই পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মালা সিতারামন। কিছুদিন ধরেই ভারতবর্ষের অর্থনীতির আকাশে কালো মেঘ দেখা দিয়েছে, যার অস্তিত্ব এখনো রয়ে গেছে। অর্থনৈতিক মন্দার ফলে দেশের ছোট বড় মাঝারি শিল্প সংস্থা গুলির অবস্থা অত্যন্ত খারাপ। অর্থনৈতিক অবস্থা খারপের ফলে মানুষ এখন

কংগ্রেস- ভারত সব বাদ! পাক-প্রধানমন্ত্রীর সিধু-প্রেম উপচে পড়ছে! জানুন বিস্তারিত

কিছুদিন আগেই নিজের চেষ্টায় কর্তারপুরের অনুষ্ঠানে গিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ভূয়সী প্রশংসা করে বিতর্ক বাড়িয়ে দিয়েছিলেন কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন ক্রিকেটার নভজ্যোত সিং সিধু। যেখানে তার বক্তব্যের ভিডিও প্রবল ভারতবিদ্বেষী হিসেবে পরিচিত গোপাল সিং চাওলার একটি পোস্টের পরিপ্রেক্ষিতে ভাইরাল হয়ে যায়। যেখানে দেখতে পাওয়া যায়, সিধু তার বক্তব্যে বলছেন, "ইমরানের

পাকিস্তানের আশায় জল ঢালল চীন!খুশির হাওয়া ভারতে

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাত ধরে কাশ্মীর থেকে 370 ধারা অবলুপ্তির ফলে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে প্রবল আপত্তি প্রকাশ পায় পাকিস্তানের। এই ঘটনাকে ইস‍্যু করে চীনের হাত ধরে রাষ্ট্রসঙ্ঘে গিয়ে গর্জন করার দাবি জানিয়েছিল পাকিস্তান। একদা বন্ধু চীন তাঁদের সাহায্য করবে ভারতের বিরুদ্ধে লড়াই করার ক্ষেত্রে, এমনি আশা ছিল পাকিস্তানের। কিন্তু বর্তমানে

অর্থনৈতিক মন্দার মাঝেই আরও বড় দুঃসংবাদ! মোদী-নির্মলার দুশ্চিন্তা বাড়িয়ে কমছে জিএসটি সংগ্ৰহ

বর্তমানে ভারত বর্ষ চরম অর্থনৈতিক মন্দার মুখোমুখি হয়েছে। জিডিপির হার ক্রমশ কমছে। ক্রমাগত বেড়েই চলেছে ছাঁটাইয়ের ভয়। দেশের ছোট ও মাঝারি শিল্পগুলি দেখছে ক্ষতির মুখ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন নিত্যদিন অর্থনীতির হাল ফেরানোর চেষ্টা করে যাচ্ছেন। বিভিন্ন পদ্ধতি অবলম্বন করে বর্তমানে ভারতের উপর এসে পড়া অর্থিক

দীপাবলির আগেই কি বেতন-সাশ্রয় নিয়ে বড়সড় সুখবর পেতে চলেছেন দেশের সমস্ত সরকারি-বেসরকারি কর্মী?

2019 সাল দেশের জন্য একটা উল্লেখযোগ্য বছর। কাশ্মীর থেকে শুরু করে চন্দ্রযান অভিযান সবকিছুই হয়েছে এবছর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির তত্ত্বাবধানে। সব ভালো করলেও এক জায়গায় এসে দেশবাসীর ভুরু কুঁচকেছে। আর তা হল অর্থনৈতিক মন্দা। হঠাৎ আসা এই অর্থনৈতিক মন্দার হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নানান চেষ্টা করে

এবার মোদী-শাহ-দোভালকে প্রাণে মারার পরিকল্পনা পাকিস্তানের? সামনে এল বিস্ফোরক রিপোর্ট

পাকিস্তান বরাবরই সন্ত্রাসের শিরোনামে থাকে। আমেরিকার কালো তালিকায় একেবারে প্রথমে দিকেই রয়েছে যে জঙ্গি সংগঠন তার সঙ্গে পাকিস্তানের সরাসরি সম্পর্কের কথা জানা যায়। আল-কায়দা থেকে আইএসআই সবারই যোগ আছে পাকিস্তানের সঙ্গে। উল্লেখ্য, সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে প্রবল ক্ষোভ প্রকাশ করে পাকিস্তান। ভারতকে কোণঠাসা করতে আন্তর্জাতিক মহলের সব

এবার জিএসটিতে ৪৫ হাজার কোটি টাকার ‘ফ্রডের’ বিস্ফোরক অভিযোগ নিয়ে এলেন অর্থমন্ত্রী

দেশে বর্তমানে প্রবল আর্থিক সঙ্কট চলছে বলে মাঝেমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগতে দেখা গেছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তবে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রী সাথে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকের পর কেন্দ্রের সাথে রাজ্যের দূরত্ব অনেকটাই ঘুচবে বলে রাজনৈতিক মহলের একাংশ মনে করেছিল। কিন্তু বরফ যে তাতেও বিন্দুমাত্র গলেনি, তা ফের দেশের

আরও শক্তিশালী ভারতীয় বায়ুসেনা – অবশেষে হাতে এল রাফালে বিমান

অবশেষে দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান ঘটল। ভারতীয় বায়ুসেনার হাতে এল বহু প্রতীক্ষীত যুদ্ধবিমান রাফালে। বৃহস্পতিবারই ভারতের হাতে প্রথম রাফালে যুদ্ধবিমান তুলে দেয় ফ্রান্সের সংস্থা দাসাল্ট অ্যাভিয়েশন। বৃহস্পতিবার বায়ুসেনার ডেপুটি চিফ মার্শালের হাতে যুদ্ধবিমানটি তুলে দেয় প্রস্তুতকারী সংস্থা। পূর্ব পরিকল্পনা মতো চুক্তি হওয়ার প্রায় ৩ বছর পর যুদ্ধবিমানটি হাতে পেল ভারতীয় বায়ুসেনা। বায়ুসেনা

মোদির বিদেশ নীতির চাপে ব্যাকফুটে চীন ? সামনে আসছে নতুন সমীকরণ – জানুন বিস্তারিত

প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদীর হাত ধরে কাশ্মীর থেকে 370 ধারা অবলুপ্তির ফলে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে প্রবল আপত্তি প্রকাশ করে পাকিস্তানের। এই ঘটনাকে ইস্যু করে চীনের হাত ধরে রাষ্ট্রসঙ্ঘে গিয়ে গর্জন করার দাবি জানিয়েছিল পাকিস্তান। একদা বন্ধু চীন তাদের সাহায্য করবে ভারতের বিরুদ্ধে লড়াই করার ক্ষেত্রে, এমনই আশা ছিল তাঁদের। কিন্তু বর্তমানে

Top
error: Content is protected !!