এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "India r Rag"

লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ‘সঠিকভাবে’ ব্যবহার করতে বিশেষ পদক্ষেপের পথে নির্বাচন কমিশন

বাংলায় যে কোন নির্বাচন এলেই বিরোধীরা সরব হয়ে ওঠেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর দাবিতে। বিরোধী থাকার সময় তৃণমূল কংগ্রেসও করেছিল, অধুনা বিরোধী দল - বিজেপি, কগ্রেস, বামফ্রন্টও করছে। কিন্তু কেন্দ্রীয় বাহিনী এলেও, বিগতদিনে সেই বাহিনীকে কার্যত বসিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে রাজ্য প্রশাসনের বিরুদ্ধে। আর এবারে যাতে এই অভিযোগ আর কেউ তুলতে না

একদিকে দলে ভাঙ্গন, অন্যদিকে বিজেপি বিরোধী মহাজোটের অনেক শরিকের না, 2019 কি ক্রমশ জটিল হচ্ছে মমতার?

রাজনীতির অংক কখন কোন পর্যায়ে গিয়ে দাঁড়াবে তা নিশ্চিত করে বলতে পারেন না কেউই। আর তাইতো অনিশ্চিত এই রাজনৈতিক পথে চলতে চলতে বর্তমান বাংলা তথা ভারতবর্ষের রাজনীতির জটিল চালচিত্র নিয়ে কোনোরূপ মন্তব্য করতে নারাজ বিশেষজ্ঞদের একাংশ। প্রসঙ্গত, এই 2019 রাজ্য তথা জাতীয় রাজনীতিতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বছর বলেই পরিচিত। কেননা চলতি বছরেই

লাইভ আপডেট : রাত ৮:৩০ টা – বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচনের ফলাফল – কে এগিয়ে, কে পিছিয়ে?

৩০০ আসন বিশিষ্ট বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচনে আজ ভোটগ্রহণ হয়েছে ২৯৯ আসনে। স্থানীয় সময় বিকেল ৪ টের সময় ভোটগ্রহণ পর্ব শেষ হয়েছে। তারপরেই শুরু হয়েছে ভোটগণনা, আশা করা হচ্ছে - আজ মধ্যরাত বা কাল সকালের মধ্যেই চিত্রটা স্পষ্ট হয়ে যাবে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচনের চিত্রটা এইরূপ - গোপালগঞ্জ ৩

লাইভ আপডেট : সন্ধ্যা ৭ টা – বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচনের ফলাফল – কে এগিয়ে, কে পিছিয়ে?

৩০০ আসন বিশিষ্ট বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচনে আজ ভোটগ্রহণ হয়েছে ২৯৯ আসনে। স্থানীয় সময় বিকেল ৪ টের সময় ভোটগ্রহণ পর্ব শেষ হয়েছে। তারপরেই শুরু হয়েছে ভোটগণনা, আশা করা হচ্ছে - আজ মধ্যরাত বা কাল সকালের মধ্যেই চিত্রটা স্পষ্ট হয়ে যাবে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচনের চিত্রটা এইরূপ - খুলনা ৫

বাংলায় বিজেপির ঝুলি ‘শূন্য’? বিজেপির ‘গোপন রিপোর্ট ফাঁস’ করে দিল সংবাদমাধ্যম!

লোকসভা নির্বাচনের আর বেশি দেরি নেই - আর আসন্ন লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে বিভিন্ন জনমত সমীক্ষা সামনে নিয়ে আসছে একের পর এক সর্বভারতীয় ও স্থানীয় সংস্থা। সেখানে কোন সমীক্ষাতেই এবারে বাংলায় বিজেপিকে ৬-১৬ টি আসনের কম দেওয়া হচ্ছে না। এমনকি নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে করা আমাদের শেষ সমীক্ষাতেও উঠে এসেছে

দিনহাটার স্কুলে গুলি চালানোর ভাইরাল ভিডিওর তদন্তে গ্রেপ্তার তৃণমূল যুবর কর্মী, উদ্ধার রিভলভার-গুলি

কিছুদিন আগেই উত্তরবঙ্গের গীতালদহের বিদ্যালয়ে ঢুকে প্রকাশ্যে শিক্ষকদের উপর গুলি চালানোর খবরে রীতিমত শোরগোল পরে গিয়েছিল রাজ্য রাজনীতিতে। নিন্দার ঝড় উঠেছিল শিক্ষক মহলে ও সুধীজন সমাজে। আর তার পরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই ঘটনার ভিডিও বলে একটি পোস্ট রীতিমত ভাইরাল হয়ে যায়। স্বাভাবিকভাবেই, তার পরিপ্রেক্ষিতে তদন্তে নামে দিনহাটা থানার পুলিশ। কিন্তু, তদন্তে

পরপর পাঁচবার জেতা কংগ্রেসের গড় হেলায় ছিনিয়ে নিতেই ২০১৯-এর জন্য আত্মবিশ্বাসী হেভিওয়েট বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী

নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহের গড় বলে পরিচিত গুজরাটে বিজেপি, নির্বাচনে ভালো ফল করতেই আত্মবিশ্বাসী কথা শোনা গেল মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানীর গলায়। ২০১৯ সালের নির্বাচনে ফের জয় হবে বিজেপির, এমনটাই বক্তব্যে জানালেন এদিন। কেন এমন কথা বললেন সে ব্যাখ্যাও দিয়ে দিলেন এই বিজেপির হেভিওয়েট নেতা। দিন কয়েক আগে হওয়া গুজরাটের জশদা কেন্দ্রের

রাহুল গান্ধীকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করায় থানায় অভিযোগ দায়ের, যে কোন মুহূর্তে গ্রেপ্তার হতে পারেন হোটেল মালিক

বিশেষজ্ঞরা বলেন, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট যেমন একদিকে ভালো, তেমনি আর একদিকে অত্যন্ত ভয়ংকর। আর এবারে সেই ভয়ংকরতার চূড়ান্ত নিদর্শন টের পেতে হচ্ছে শিমলা রিসর্টের মালিক রণবীর সিংহ নেগীরকে। অনেকেই হয়ত ভাবছেন, এতো লোক থাকতে কেন হঠাৎ সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের কোপে পড়তে হল এই শিমলা রিসর্টের মালিককে? সূত্রের খবর, ফেসবুকে কংগ্রেসের সর্বভারতীয়

রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা কবে পেতে পারেন বকেয়া ডিএ ও নতুন বেতন কমিশন – জানুন বিস্তারিত

রাজ্যের লক্ষ লক্ষ সরকারি কর্মচারী, শিক্ষক ও সরকারি অনুদান প্রাপ্ত কর্মচারীদের কাছে এখন লাখ থাকার প্রশ্ন দুটি। এক, কবে আইন-আদালতের চক্কর কাটা শেষ করে দিনের আলো দেখবে বকেয়া ডিএ নিয়ে সুষ্ঠু সমাধান? দুই, দীর্ঘসূত্রিতার মায়াজাল ছাড়িয়ে কবে ঘোষিত হবে নতুন বেতন কমিশন? আপাতত, দুটিরই উত্তর অধরা - ফলে ক্রমশ বাড়ছে

কেন্দ্র সরকারের নতুন সিদ্ধান্তে একলপ্তে ৩৩ টি নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য হ্রাস – জানুন বিস্তারিত

কেন্দ্রের ক্ষমতায় বসার পর থেকেই নরেন্দ্র মোদী নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে বিরোধীরা প্রায়শই অভিযোগ তুলেছিলেন যে, বিজেপির আমলে মূল্যবৃদ্ধির জেরে নাভিশ্বাস উঠছে সাধারন মানুষদের। বিরোধীদের আরও দাবি ছিল এই অভিযোগ তাঁদের নিজেদের নয় বরং এই অভিযোগের ভিত্তি দেশের খেটে খাওয়া মানুষের দাবি। বিরোধীদের আরও দাবি ছিল নোটবন্দি ও জিএসটি চালুর

Top
error: Content is protected !!