এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "ex minister"

পাঞ্জাবি পরে ফেসবুকে ছবি দিয়ে নেতা সাজা যায়! মানুষের সমর্থন নয় – নিদান প্রাক্তন মন্ত্রীর

2011 সালে তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পরই সেই তৃণমূল দলে আদি বনাম নব্যের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকট হতে শুরু করে। যেখানে অনেকে ক্ষমতায় আসার পর তৃণমূলে যারা প্রবেশ করেছে, তারা হাতে সোনার ঘড়ি, গলায় মালা এবং ঝাঁ-চকচকে পাঞ্জাবি পড়ে নেতা বনে গেছেন বলে কৌতুক করেন। অন্যদিকে যারা আদি তৃনমূলী, তারা যে তিমিরে ছিল, সেই

শুভেন্দুর সভায় থাকছেন না প্রাক্তন মন্ত্রী! দলের সঙ্গে “দূরত্ব” নিয়ে জল্পনা সর্বত্র

ছোটগল্পের একটা বৈশিষ্ট্য রয়েছে। শেষ হয়েও হইল না শেষ। তাই উত্তর দিনাজপুর জেলা পরিষদে বিরোধীদেরকে প্রায় নিশ্চিহ্ন করে খোদ বিরোধী দলনেতা শাহিদ সিদ্দিকীকে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করিয়েও সম্পূর্ণ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারছেন না রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী তথা উত্তর দিনাজপুর জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী। যদিও দক্ষিণপন্থীদের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নতুন কোনো ব্যাপার নয়,

প্রাক্তন মন্ত্রী দলে সক্রিয় হতেই গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, জোর জল্পনা

গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব যেন কিছুতেই কমছে না তৃনমূলে। এবার উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুরে তৃণমূল কংগ্রেসের করিম চৌধুরী বনাম কানয়াইয়ালাল আগরওয়ালের দ্বন্দ্ব চরমে উঠল। জানা গেছে, উত্তর দিনাজপুর জেলা তৃণমূল সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়ালের অনুগামী হিসেবে পরিচিত তৃণমূলের ইসলামপুর ব্লক সভাপতি জাকির হুসেনের নিযুক্ত অঞ্চল সভাপতিরা অবৈধ বলে দাবি করলেন তৃনমূল বিধায়ক আবদুল করিম চৌধুরী। বস্তুত,

দলে ফেরত এসেই তীব্র গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে জড়ালেন প্রাক্তন মন্ত্রী, শাসকদলের অস্বস্তি ক্রমশ বাড়ছে

গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব যেন কিছুতেই কমছে না তৃনমূলে। এবার উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুরে তৃণমূল কংগ্রেসের করিম চৌধুরী বনাম কানয়াইয়ালাল আগরওয়ালের দ্বন্দ্ব চরমে উঠল। জানা গেছে, উত্তর দিনাজপুর জেলা তৃণমূল সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়ালের অনুগামী হিসেবে পরিচিত তৃণমূলের ইসলামপুর ব্লক সভাপতি জাকির হুসেনের নিযুক্ত অঞ্চল সভাপতিরা অবৈধ বলে দাবি করলেন তৃনমূল বিধায়ক আবদুল করিম চৌধুরী। বস্তুত,

৮০০ কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ, তলব প্রাক্তন মন্ত্রীকে, জোর শোরগোল

এবার দুর্নীতির অভিযোগ ওঠায় প্রবল অস্বস্তিতে বললেন ত্রিপুরার প্রাক্তন মন্ত্রী তথা বর্তমান সিপিএম বিধায়ক বাদল চৌধুরী। জানা গেছে, ত্রিপুরার বিগত বাম সরকারের আমলে 800 কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে পূর্ত দপ্তরের কাজের ক্ষেত্রে। আর এই ব্যাপারে এবার প্রাক্তন মন্ত্রী তথা বর্তমান সিপিএম বিধায়ক বাদল চৌধুরীকে তলব করেছে ভিজিল্যান্স কমিটি। বস্তুত, এর

“প্রভাবশালী ” শব্দে আতঙ্ক মদনের, বড়সড় ধাক্কা খেলেন প্রাক্তন মন্ত্রী

প্রভাবশালী শব্দটি আর পাঁচ জনের জন গর্বের হলেও মদন মিত্রের জন্য এখন এটা আতঙ্কের শব্দ। কেননা প্রভাবশালী এই শব্দটির জন্য জেল-এ থাকার সময় জামিন চেয়েও জামিন পাননি। অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে তবে জামিন মিলেছে। তৃণমূলের টিকিট-এ লড়েছেন। জিততে পারেননি ঠিক কথা কিন্তু জনপ্রিয়তায় ভাঁটা পড়েনি। আর এদিন সেই 'প্রভাবশালী' টাকমাতেই ধাক্কা খেতে

ফের স্বমহিমায় রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী – কৃষ্ণের আসনে বসালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে

একসময় রাজ্যের দাপুটে মন্ত্রী হিসেবে দেখা গেছে তাঁকে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দীর্ঘদিনের সহকর্মী মদন মিত্র রাজ্যে পালাবদলের পর তৃণমূল সরকার আসলে তার গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রীর দায়িত্ব সামলেছেন ঠিকই, কিন্তু সারদার মত দুর্নীতিমূলক কাণ্ডে শেষ পর্যন্ত মন্ত্রীপদ খুইয়ে শ্রীঘরে কাটাতে হয়েছে তাকে দীর্ঘদিন। তবে শ্রীঘর থেকে এসেও তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুগত সৈনিক বলে

Top
error: Content is protected !!