এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "durgapur"

সাড়ে ৬ কোটি টাকার পিএফ জমায় পরে নি! দপ্তরের কড়া ব্যবস্থা তৃণমূল পরিচালিত পুরসভার বিরুদ্ধে

দুর্নীতি যেন আর পিছু ছাড়ছে না তৃণমূলের। এমনিতেই বিগত কয়েকদিনে একটার পর একটা দুর্নীতির অভিযোগে তৃণমূল দল রীতিমতন চাপে পড়েছে। তার ওপর সিবিআইয়ের কর্মকাণ্ডে দলের হেভিওয়েট নেতা মন্ত্রীরা খানিকটা দিশাহারা। আর এই অবস্থাতেই আরো একবার আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ উঠল তৃণমূল দলের বিরুদ্ধে। বিরোধীদের দাবি, তৃণমূল দলের স্থানীয় স্তরে থেকে উচ্চ

সরকারি জমিতে খেলার মাঠই বিক্রি করে দিলেন তৃণমূল নেতারা! বিক্ষোভে উত্তাল দুর্গাপুর

অদৃষ্টের কি নিষ্ঠুর পরিহাস! শাসকের রোষানলে পড়ে এবার সরকারি খেলার মাঠও বিক্রি হয়ে যেতে বসেছে। সূত্রের খবর, দুর্গাপুরের 16 নম্বর ওয়ার্ডের ধান্দাবাগ এলাকায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে সরকারি জায়গা বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে। যে ঘটনায় এখন প্রবল চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে এলাকায়। জানা গেছে, এদিন এই গোটা ঘটনার প্রতিবাদে স্থানীয় বাসিন্দারা প্রবল বিক্ষোভ দেখান।

কেন্দ্রের বিরুদ্ধে শহরে তৃণমূলের মিছিল, সাংসদকে তীব্র আক্রমণ নেত্রীর

রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থায় বেসরকারি বিলগ্নিকরনের বিরুদ্ধে গতকাল দুর্গাপুরে একটি প্রতিবাদ মিছিলের আয়োজন করে তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠন আইএনটিটিইউসি। কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে হওয়া এই মিছিলকে নেতৃত্ব দেন তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের নেত্রী তথা রাজ‍্যসভার সাংসদ দোলা সেন। মিছিল থেকে তিনি তীব্র আক্রমণ করেন বিজেপি সরকারকে। প্রসঙ্গত, টানা দ্বিতীয়বার দিল্লিতে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই কেন্দ্রীয়

“তুমি বিশ্বাসঘাতক” বিজেপি সাংসদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে পোস্টকার্ড, চাঞ্চল্য রাজ্যে

আবার পোস্টকার্ড পাঠিয়ে প্রতিবাদের রেওয়াজ ফিরল রাজ্যে। এইবার পোস্টকার্ডের প্রেরক পশ্চিম বর্ধমান জেলা সিপিআই(এম)।কার্ড প্রাপকের ঠিকানা- প্রকাশ নিবাস, বি সি রোড(পশ্চিম), পটনা।পোস্টকার্ডের বয়ান, "সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া তুমি বিশ্বাসঘাতক।" একটা দুটো নয় ,প্রায় ২৫০০০ এমন পোস্টকার্ড পেতে চলেছেন দুর্গাপুর-বর্ধমান কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ। প্রসঙ্গত, কেন্দ্রে দ্বিতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় আসার পরেই বিজেপি সরকার গোটা

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সভার অদূরেই পোস্টার ছিঁড়ে দিয়ে বিজেপি কর্মীদের মারধোরের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

লোকসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যে শাসকদল বনাম বিরোধীদলের রাজনৈতিক অভিযোগ পাল্টা অভিযোগে সরগরম বঙ্গ রাজনীতি। একে অপরের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ইস্যুতে সরব হতে দেখা যাচ্ছে তৃণমূল ও বিজেপিকে। কেউ কাউকে এক ইঞ্চি জমি ছাড়তে নারাজ। আর এবারে সেই দখলের রাজনীতি নিয়েই ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল বাংলা। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গতকাল কেন্দ্রীয় বাজেট পেশের

ডিপিএলের পূনর্গঠনের জন্য রাজ্য সরকার আর দেরি করতে রাজি নয়, জারি স্বেচ্ছাবসরের বিজ্ঞপ্তি

গত বৃহস্পতিবারই দুর্গাপুরে প্রশাসনিক বৈঠকে এসে ডিপিএলকে পুনর্গঠন করার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রসঙ্গত, এদিন দুর্গাপুরের বিধায়ক বিশ্বনাথ পাড়িয়াল মুখ্যমন্ত্রীকে বলেছিলেন যে, ডিপিএলের বড়জোড়ায় কয়লা খনি থাকলেও সেখানে কোনোরূপ কয়লা উত্তোলন হয়না। আর এরপরই মুখ্যমন্ত্রী এই বিষয়টি মুখ্যসচিব মলয় দেকে দেখার নির্দেশ দেন। প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, "ডিপিএলের জন্য

স্থায়ী চাকরির দাবিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সামনেই তীব্র বিক্ষোভ, অকাতরে পুলিশের লাঠিচার্জ – উত্তপ্ত শিল্পশহর

এবার নিজেদের দাবি নিয়ে কেন্দ্রীয় ইস্পাত মন্ত্রীর সাথে দেখা করতে চাওয়ায় সিআইএসএফের দ্বারা প্রবল লাঠিচার্জের শিকার হলেন দুর্গাপুর স্টিল প্ল্যান্টের প্রশিক্ষণরত কর্মীরা। সূত্রের খবর, ডিএসপি এবং এএসপি পরিদর্শনের জন্য গত বৃহস্পতিবারই দুর্গাপুরে আসেন কেন্দ্রীয় ইস্পাত মন্ত্রী চৌধুরী বীরেন্দর সিং। আর মন্ত্রী এসেছে খবর পেয়েই ডিএসপিতে প্রশিক্ষণরত প্রায় 300 জন সকাল

Top
error: Content is protected !!