এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "dilip ghosh"

সৌরভ গাঙ্গুলির বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা বেশ কয়েকগুন বাড়িয়ে দিলেন দিলীপ ঘোষ

বাংলার মহারাজ সৌরভ গাঙ্গুলি আরেকবার বাঙালির গর্বের কারণ হতে চলেছেন। এবার বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট হতে চলেছেন ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। 23 অক্টোবরের বার্ষিক সভায় বোর্ড প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব হাতে নেবেন মহারাজ। আর সৌরভ গাঙ্গুলী যদি এবার বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট হন তাহলে ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাসে তিনি দ্বিতীয় অধিনায়ক যিনি বোর্ডের প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব

দূরত্ত্ব কি আরো বাড়লো, শোভন গড়ের দ্বায়িত্ত্ব অন্য হেভিওয়েটকে – বাড়ছে জল্পনা

শোভন চট্টোপাধ্যায় বিজেপিতে যোগদানের পর থেকেই একের পর এক বিতর্ক চলছে। কখনো দেবশ্রী রায়ের বিজেপিতে যোগদান নিয়ে আপত্তি জানানো কিংবা তাঁর বিশেষ বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপিতে যোগ্য সম্মান পাচ্ছেন বলে দাবি করা। এখানেই শেষ নয়, বিতর্ক বাড়িয়ে তাঁর বিশেষ বান্ধবীর বিজেপি ছেড়ে দেওয়ার কথা বলা- এমনকি তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্ট্যোপাধ্যায়ের

দিলীপ ঘোষ না শুভেন্দু অধিকারী? “পুজোর লড়াইয়ে” জিতলেন কে?

রাজ্যের রাজনৈতিক সমীকরণ অনেকটাই পাল্টে গিয়েছে 2019 সালের লোকসভা নির্বাচন ঘিরে। যে রাজ্যে ভারতীয় জনতা পার্টিকে একসময় আতস কাঁচ দিয়ে খুঁজতে হত, সেই রাজ্যে 18 টি আসন পেয়ে শাসকের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলেছে ভারতীয় জনতা পার্টি। আর বঙ্গ বিজেপির এই জয়যাত্রায় পদাধিকারের দিক থেকে ক্যাপ্টেনের ভূমিকা পালন করেছেন বঙ্গ বিজেপি রাজ্য

দিলীপ ঘোষের হাওয়া কাটতে দশেরাতেও খড়্গপুরে মাটি কামড়ে শুভেন্দু, তবুও সামনে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

আর কিছুদিন পরেই বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা মেদিনীপুরের বর্তমান বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষের ছেড়ে যাওয়া খড়গপুর আসনে বিধানসভা উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।অতীতে এই আসনটি বিজেপি দখল করলে এবার সেই আসনে ঘাসফুল ফোটাতে মরিয়া হয়ে উঠেছে তৃণমূল। যার জন্য এখানকার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তৃণমূলের নেতা তথা রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে। পুজো থেকে

নিজের কাঁধেই দায়িত্ব নিয়ে বঙ্গ-বিজয় পরিকল্পনায় অমিত শাহ

2014 সালের লোকসভা নির্বাচনের সময় ভারতীয় জনতা পার্টি তার কাঁধে উত্তরপ্রদেশে দলের বিজয় সুনিশ্চিত করার দায়িত্ব দিয়েছিলেন। সেই সময় ভারতীয় জনতা পার্টি খুব ভালোমতো জানতেন, দিল্লি যাওয়ার রাস্তা লখনউ হয়েই যায়। দলের আশা ভরসা 100 শতাংশ রক্ষাও করেছিলেন তিনি। উত্তরপ্রদেশ থেকে তদানীন্তন রাজ্যের শাসক দল সমাজবাদী পার্টি, প্রধান বিরোধীদল বহুজন সমাজবাদী

নারদ কান্ড কার্যত মুকুল রায়ের ‘অগ্নিপরীক্ষা’ স্পষ্ট করে দিলেন দিলীপ ঘোষ! বাড়ল আরও জল্পনা

নারদা তদন্তে আইপিএস এস এম এইচ মির্জার গ্রেফতারের ঘটনায় সম্প্রতি বাংলার রাজনীতিতে চলেছে উথাল-পাথাল। নারদ স্টিং অপারেশন হয় 2016 সালে। ম‍্যাথু স‍্যামুয়েলের নেতৃত্বে অপারেশনের ভিডিও ফুটেজ থেকেই জড়িত থাকার অভিযোগে বেরিয়ে পড়ে একের পর এক তৃণমূল নেতা থেকে শুরু করে আইপিএস অফিসারের নাম। রাজনৈতিক ব্যক্তিরা ছাড়া একমাত্র পুলিশ অফিসার এস

এবার এনআরসি নিয়ে সংখ্যালঘুদের জন্যও সুখবর শোনালেন দিলীপ ঘোষ

অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জী হওয়ার পর বাংলায় তা করা হবে বলে দাবি করতে দেখা গিয়েছিল বঙ্গ বিজেপির নেতাদের। তবে বরাবরই বিজেপি নেতাদের এই দাবির বিরুদ্ধে সরব হয়ে বাংলায় তিনি থাকতে কখনই এনআরসি হতে দেবেন না বলে জানিয়ে দেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমনকি নাগরিকপঞ্জির বিরুদ্ধে তৃণমূলের নেতারা বিজেপির বিরুদ্ধে ধর্মীয়

জঙ্গলমহল ফিরে পেতে তৃণমূলের “প্ল্যান ফাঁস” করে বিস্ফোরক দিলীপ ঘোষ

পশ্চিম মেদিনীপুর এলাকায় ঘাসফুল শিবিরকে লোকসভা নির্বাচনে পর্যুদস্ত করে এলাকার দখল নিয়েছে গেরুয়া শিবির। এলাকায় অস্তিত্ব সংকট এসে উপস্থিত হয়েছে ঘাসফুল শিবিরের পক্ষে। যদিও নিজেদের পালে হাওয়া টানতে মরিয়া তৃণমূল কংগ্রেস এবং তার শীর্ষ নেতৃত্ব। মিছিল, মিটিং থেকে শুরু করে সভা-সমিতির মধ্যে দিয়ে এলাকায় নিজেদের জমি ফিরিয়ে পেতে নানানভাবে উদ্যোগ গ্রহণ

এবার বেফাঁস মন্তব্য কেন্দ্রীয় বিজেপি মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র,বাড়লো বিতর্ক

বিতর্কিত মন্তব্য করে কিংবা ইতিহাসের বিকৃতি ঘটিয়ে বারবার সংবাদমাধ্যমের শিরোনামের আসা রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীদের কাছে প্রায় রোজকার ব্যাপার। দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা-নেত্রীদের এমন মন্তব্য বারবার বারবার শোনা গেছে। বাংলায় মুখমন্ত্রী থেকে শুরু করে দলের অন্য নেতা নেত্রী কিংবা বিজেপির রাজ্য সভাপতি কেউই কম জানা। এবার তাদের সাথেই যুক্ত হলো অন্য

জনসংযোগে বেরিয়ে এনআরসি নিয়ে প্রশ্নে বড়সড় অস্বস্তিতে দিলীপ ঘোষ, দিলেন আশ্বাস

2019 এর লোকসভা ভোটে বিজেপি শিবিরের কাছে তৃণমূল দল কিছুটা হলেও কোণঠাসা হয়ে পড়েছে। 2021 এর বিধানসভা ভোটকে মাথায় রেখে বর্তমানে তৃণমূল মেন্টর পিকের কথা অনুযায়ী মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি রাজ্য জুড়ে শুরু করেন 'দিদিকে বল' জনসংযোগ কর্মসূচি। এই কর্মসূচিতে পথে নামে রাজ্যের তৃণমূল নেতা, বিধায়ক, সাংসদরা। জেলায় জেলায় চলে জনসংযোগ। যখন

Top
error: Content is protected !!