এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "cpim"

বদলি হওয়া বিভিন্ন রাজ্য কর্মী সংগঠনের পদাধিকারীদের কলকাতায় ফেরানোর প্রক্রিয়া শুরু, জেনে নিন

অবশেষে বিভিন্ন রাজ্য কর্মী সংগঠনের পদাধিকারী, যারা বদলি হয়েছিলেন, তাদের কলকাতার সচিবালয় ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু হল। বস্তুত, গত বছরের নভেম্বর মাসে বর্ধিত হারে ডিএ প্রদান সহ বিভিন্ন দাবিতে রাজ্য সরকারের সদর দপ্তর নবান্নে বিক্ষোভ দেখায় কো-অর্ডিনেশন কমিটি। আর এরপরই কয়েক দিন যেতে না যেতেই এই সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বিজয়শংকর সিংহ

হারানো জমি পুনরুদ্ধারে পিকে এবার তৃণমূলের সংগঠনে ঢুকিয়ে দিলেন সিপিএমের স্ট্র্যাটেজি!

সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় তৃণমূল কংগ্রেস কিছুটা ধাক্কা খাওয়ার পরই হুশ ফেরে তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। সংগঠনকে এবার একটু পরিবর্তন করা দরকার, সেই ব্যাপারে সজাগ হয়ে ভোটগুরু হিসেবে প্রশান্ত কিশোরকে নিজের দলের রণনীতিকার হিসেবে নিয়োগ করেন তৃণমূল সুপ্রিমো। যার পরেই সেই প্রশান্ত কিশোর এবং তার টিমের প্ল্যানে চলতে

সিপিএমের রাজ্য নেতৃত্বে নতুন মুখ, আসছে বদল

2011 সালে রাজ্যের ক্ষমতা থেকে বিদায় নেওয়ার পর থেকেই একের পর এক নির্বাচনে পর্যদুস্ত হয়েছে বামেরা। 2016 বিধানসভা ভোট হোক কিংবা সদ্যসমাপ্ত 2019 এর লোকসভা নির্বাচন, ভোট কমার পাশাপাশি এক সময় দ্বিতীয়স্থান দখল করা বামেরা এখন একদম শেষের সারিতে। আর এই পরিস্থিতিতে এবার আগামী 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনে যাতে ভালো ফল

তৃণমূলে কি হোলটাইমার নিয়োগ! কটাক্ষের সুর বিরোধীদের

লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস খুব একটা ভালো ফল করতে পারেনি। 42 এ 42 এর স্লোগান তুললেও 22 টির বেশি আসন পার করতে পারিনি তারা। অপরদিকে বিজেপি আঠারোটির মত আসন নিজেদের দখলে রেখেছে। আর দলের এই খারাপ ফলাফলের পরই দলীয় সংগঠনকে চাঙ্গা করে আগামী 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনে

সিপিএমের পথেই কি এগোচ্ছে তৃণমূল! গুঞ্জন সর্বত্র

এবারের লোকসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের 42 এ 42 এর স্লোগান কাজে দেয়নি। গেরুয়া শিবিরের উত্থানে তৃণমূল 22 টি আসন পেলেও বিজেপি 18 টা আসন পেয়ে নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করতে শুরু করেছিল। যাতে কিছুটা হলেও চিন্তিত হয়ে পড়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেননা কিছুদিন পরেই 2021 এর বিধানসভা নির্বাচন। তাই

বিজেপিকে ঠেকাতে তৃণমূলের সঙ্গে জোট নিয়ে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করলেন সূর্যকান্ত মিশ্র

লোকসভা নির্বাচনে এবার রাজ্যে বিজেপির উত্থান চোখে পড়ার মত। গত 2014 সালে বিজেপি বাংলা থেকে দুটি আসন পেলেও এবার তাদের দখলে এসেছে প্রায় 18 টি আসন। যা শাসক দল তৃণমূলের ঘাড়ে যেমন নিঃশ্বাস ফেলেছে, ঠিক তেমনই বাম এবং কংগ্রেসের ভোটব্যাংকেও ধ্বস নামিয়েছে। শুধু তাই নয়, কংগ্রেস বাংলা থেকে দুটি আসন পেলেও

ফিরছে বাম, ময়দানে বিজেপিও, ভোটে গোহারা হারলো তৃণমূল, জোর চাঞ্চল্য রাজ্যে

এবারের লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের উত্থানে অনেকটাই বেগ দিয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। 22 টি আসন পাওয়া তৃনমূলের ঘাড়ে 18 টা আসন পাওয়া বিজেপি তুমুলভাবে নিঃশ্বাস ফেলতে শুরু করেছে। আর এরপরই দিকে দিকে বিজেপি তাদের শক্তি বৃদ্ধি করতে শুরু করেছে। আর এবার হলদিয়া বন্দরের পর কোলাঘাট তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের

নির্বাচনে ঘুরে দাঁড়াতে এবার কোন পরিকল্পনা নিচ্ছে সিপিআইএম, জেনে নিন

নেট দুনিয়ার রমরমা বাজারে সোশ্যাল মিডিয়া জনসংযোগের অন্যতম প্রধান মাধ্যম হয়ে উঠেছে |আর এই মিডিয়াকে দলীয় প্রচারে পাখির চোখ করে লোকসভা নির্বাচনে চূড়ান্ত সাফল্য লাভ করেছে ভারতীয় জনতা পার্টি |এ ব্যাপারে অবশ্য পিছপা নয় বাংলায় তাদের অন্যতম প্রতিপক্ষ দল তৃণমূলের কংগ্রেস |রাজ্যস্তরে না হলেও সর্বভারতীয় স্তরে কংগ্রেসও সোশ্যাল মিডিয়াকে রাজনৈতিক

বিজেপির উত্থান ঠেকাতে বাম- তৃণমূলের সমঝোতা! জোর চাঞ্চল্য রাজ্যে

লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির উত্থানের পরেই আতঙ্কিত হয়েছেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দিকে দিকে শক্তি বৃদ্ধি হতে শুরু করে গেরুয়া শিবিরের। আর এরপরই কিছুদিন আগে বিধানসভায় বাম এবং কংগ্রেসের উদ্দেশ্যে জোট বার্তা দিতে দেখা যায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। যা নিয়ে ব্যাপক আলোড়ন পড়ে যায় রাজ্য রাজনীতিতে। তবে এখনও পর্যন্ত তৃণমূলের সঙ্গে

কাটমানি নিয়ে উত্তাল বর্ধমান, তৃনমূল নেতাদের সামাজিক বয়কটের ডাক

লোকসভা নির্বাচনে দলের খারাপ ফলাফল প্রকাশ্যে আসার পরই দুর্নীতি যে দলে জাঁকিয়ে বসেছে, তা ধরতে পেরেছিলেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এরপরই রীতিমতো মাস্টারস্ট্রোক দিয়ে কাউন্সিলরদের নিয়ে বৈঠকে "কেউ কাটমানি খেলে তা তাকেই ফেরত দিতে হবে" বলে জানিয়ে দেন বাংলার প্রশাসনিক প্রধান। আর এরপরই দিকে দিকে তৃণমূল থেকে দুর্নীতিগ্রস্ত

Top
error: Content is protected !!