এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "cpim leader"

BIG BREAKING – প্রয়াত বাম আমলের দাপুটে নেতা, শোকের ছায়া রাজনৈতিকমহলে

বাম আমলের দাপুটে নেতা ও প্রাক্তন সাংসদ গুরুদাস দাশগুপ্ত আজ সকাল ছটা নাগাদ নিউটাউনের হাসপাতালে সকাল ছটা নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। যা ঘিরে শোকের ছায়া রাজনৈতিকমহলে। পরিবার সূত্রে জানা যাচ্ছে যে, বাড়িতে পরে গিয়েছিলেন তিনি। তারপর তাঁকে একটি একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল।সেখানে

দাপুটে সিপিএম নেতার নৃশংস হত্যার পিছনে পরকীয়ার “ঢাল” পুলিশের! মানতে নারাজ এলাকাবাসী

রাজ্যের মাটিতে তৃণমূল এবং সিপিএমের সংঘর্ষ নতুন কিছু নয়। এককালে সিপিএমের আমলে যেমন পুলিশকে আলিমুদ্দিনের কথামতো কাজ করার অভিযোগে অভিযুক্ত করেছিলেন তৎকালীন বিরোধী দল তথা আজকের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস, তেমনই তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় আসার পর থেকে বারবার সিপিএমের তরফ থেকে পুলিশকে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়। আর এরকমই একটা

দিদিকে বলোতে অভিযোগের ভিত্তিতে এবার সিপিএমের পার্টি অফিস উদ্ধারে চললেন হেভিওয়েট তৃণমূল মন্ত্রী

গত 2011 সালে রাজ্যে পরিবর্তনের পরেই সিপিএমের অনেক পার্টি অফিস তৃণমূল দখল করেছে বলে অভিযোগ উঠেছিল। তবে এবার সেই সমস্যার সমাধান করতে দেখা গেল খোদ তৃনমূল বিধায়কককেই। বস্তুত, লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল ধাক্কা খাওয়ার পরই দিদিকে বলো প্রকল্প গড়ে সাধারণ মানুষের অভাব অভিযোগ সমস্ত কিছু জমা হচ্ছে তৃণমূল নেত্রীর দরবারে। আর

‘পাপ কখনো বাপকেও ছাড়ে না’ চিটফান্ড কেলেঙ্কারি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ সিপিআইএম নেতার – জেনে নিন

রাজ্যে এক সময় একের পর এক চিটফান্ড কেলেঙ্কারি ধরা পড়ে। আর উঠে আসে একের পর এক তৃণমূল হেভিওয়েট নেতার নাম। সম্প্রতি চিটফান্ড কাণ্ডে একের পর এক তৃণমূল হেভিওয়েট নেতার তলব হচ্ছে সিবিআই দপ্তরে। চলছে ঘণ্টার পর ঘণ্টা জেরা। চলছে তাদের ভয়েস টেস্টিং‌। যদিও তদন্ত এখনো চলছে। তবে এবার চিটফান্ড কেলেঙ্কারি

সিঙ্গুরের চাষীরা কি করছেন না করছেন তার দায়িত্ব আর নিতে রাজি নন মমতা? বিস্মিত রাজনৈতিকমহল

তবে কি এতদিনে সিঙ্গুর নিয়ে ধৈর্যচ্যুতি ঘটল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের? গতকাল বিধানসভায় বিরোধীদের সিঙ্গুর প্রশ্নে মেজাজ হারালেন তিনি।বিরোধীদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান রাজ্যসরকার সিঙ্গুরের চাষিদের সব রকম সাহায্য করেছে। কিন্তু তবুও কেন চাষের পরিমাণ কমেছে, আমি কী করে বলব ? ২০১১ তে এই রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পথে সিঙ্গুর আন্দোলন তাঁর সবচেয়ে বড়

অস্বস্তি বাড়ল তৃণমূলের, ইডির জেরার মুখে এই হেভিওয়েট তৃণমূল নেতা

সারদা কাণ্ডে দীর্ঘক্ষন জেরার মুখ থেকে শ্রীঘরে যেতে হয় তাকে। রাজনীতির ময়দান থেকে দীর্ঘদিন তার শ্রীঘরে কাটানোর স্মৃতি মাঝে মাঝে আওরেছিলেন নিজেই। কিন্তু বেশ কিছুদিন হল ফের রাজনৈতিক ময়দানে দেখা যেতে শুরু করেছে তাঁকে। আর এহেন হেভিওয়েট তৃণমূল নেতা তথা রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্রকে এবার রোজভ্যালি কাণ্ডে জেরা করার

Top
error: Content is protected !!