এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "cbi"

সারদাকাণ্ডে নয়া মোড়, লাল ডায়েরি রহস্য উদঘাটনে আরও একধাপ এগোলো সিবিআই

শারদোৎসব মেটার সাথে সাথেই আর্থিক কেলেঙ্কারি কাণ্ডে সক্রিয় হতে দেখা গেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআইকে। এবার জেলে গিয়ে সারদা-কর্তা সুদীপ্ত সেনকে জেরা করল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল। কিন্তু ঠিক কী কী বিষয় সুদীপ্তবাবুকে জেরা করা হল, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে জল্পনা। বিশেষ সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে, এদিনের

রোজভ্যালি কাণ্ডে নয়া মোড়, এবার নবান্নে পৌঁছালো সিবিআই

সারদা থেকে নারদা, প্রায় প্রতিটি ঘটনাতেই বিশেষ করে যেখানে আর্থিক কেলেঙ্কারির মতো অভিযোগ রয়েছে, সেখানে রাজ্যের শাসকদলের দিকে অভিযোগ তুলতে শুরু করেছিল বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো। তবে শাসকদলের পক্ষ থেকে বারবার সেই অভিযোগ খারিজ করে দিলেও তদন্তের বিভিন্ন সময়েই দেখা গেছে যে, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এই আর্থিক কেলেঙ্কারির মত ঘটনায় শাসকদলের নেতা-মন্ত্রীদের

মুকুলের নারদ যন্ত্রণা কি বাড়তে চলেছে! ম্যাথু-মির্জাকে নিয়ে সিবিআইয়ের নতুন পরিকল্পনায় জল্পনা

ইতিমধ্যেই রাজ্যের নারদা কেলেঙ্কারি নিয়ে তদন্তে মুখর রয়েছেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই। সরকারের একাধিক হেভিওয়েট নেতা মন্ত্রী থেকে শুরু করে সরকারি পদাধিকারী কেউ বাদ পড়ছে না তদন্তকারী সংস্থার তদন্তের হাত থেকে। আর এই নারদা কেলেঙ্কারিতে বর্তমানে যথেষ্ট অস্বস্তিতে রয়েছেন এককালের তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ তথা বর্তমানে বিজেপির চাণক্য নামে খ্যাত মুকুল

নারদ কান্ড কার্যত মুকুল রায়ের ‘অগ্নিপরীক্ষা’ স্পষ্ট করে দিলেন দিলীপ ঘোষ! বাড়ল আরও জল্পনা

নারদা তদন্তে আইপিএস এস এম এইচ মির্জার গ্রেফতারের ঘটনায় সম্প্রতি বাংলার রাজনীতিতে চলেছে উথাল-পাথাল। নারদ স্টিং অপারেশন হয় 2016 সালে। ম‍্যাথু স‍্যামুয়েলের নেতৃত্বে অপারেশনের ভিডিও ফুটেজ থেকেই জড়িত থাকার অভিযোগে বেরিয়ে পড়ে একের পর এক তৃণমূল নেতা থেকে শুরু করে আইপিএস অফিসারের নাম। রাজনৈতিক ব্যক্তিরা ছাড়া একমাত্র পুলিশ অফিসার এস

নারদ কাণ্ডের পর কি বঙ্গ বিজেপি মুকুল রায়ের সঙ্গে দূরত্ত্ব বাড়াচ্ছে? বাড়ছে জল্পনা

2016 সালের নারদ স্টিং অপারেশনের ভিডিওতে একের পর এক হেভিওয়েট তৃণমূল নেতার মুখ ভেসে উঠেছিল। যদিও প্রিয় বন্ধু বাংলার তরফ থেকে ভিডিওটির সত্যতা যাচাই করা সম্ভব হয়নি। তবে ম্যাথু স্যামুয়েলের স্টিং অপারেশনের ফুটেজের উপর ভিত্তি করে সিবিআই তদন্তে নামে। তদন্তে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসে। সিবিআই এবার নারদা

একটা-দুটো বিজ্ঞাপন নিতেই সিবিআই- ইডির রোজ ডাক! দলীয় মুখপত্র নিয়ে রাগে ফুঁসছেন তৃণমূল নেত্রী

বর্তমানে রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বিজেপি তো বটেই, বামফ্রন্ট-কংগ্রেসও প্রতিদিনই নিত্য নতুন দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। সারদা-নারদা নিয়ে এমনিতেই তৃণমূল সরকার চরম অস্বস্তিতে। এদিন আবারও সেই অস্বস্তি বাড়লো। সম্প্রতি সিবিআইয়ের অভিযোগের ভিত্তিতে শোনা যাচ্ছে, সারদা চিটফান্ডের টাকা তৃণমূলের মুখপত্র 'জাগো বাংলা' কাজে লাগিয়েছে। আর এই অভিযোগ ওঠার

নারদকান্ডে এখনও বহু ‘রহস্য’ লুকিয়ে আছে ‘অপ্রকাশিত ফুটেজে’! জানাচ্ছেন খোদ ম‍্যাথু

নারদা তদন্তে আই পি এস এস এম এইচ মির্জার গ্রেপ্তারের ঘটনায় সম্প্রতি বাংলার রাজনীতিতে চলছে উথাল-পাথাল। নারদ স্টিং অপারেশন হয় 2016 সালে ম্যাথু স‍্যামুয়েলের নেতৃত্বে। আর সেই স্টিং অপারেশনের ভিডিও ফুটেজ থেকেই ঘুষ কাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে বেরিয়ে পড়ে একের পর এক হেভিওয়েট তৃণমূল নেতা থেকে শুরু করে আই পি

ফ্ল্যাটে মির্জাকে নিয়ে সিবিআই! ‘ষড়যন্ত্র’ জানিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়লেন মুকুল রায়

2016 সালের নারদ স্টিং অপারেশনের ভিডিওতে একের পর এক তৃণমূল নেতার মুখ ভেসে উঠেছিল। যদিও প্রিয় বন্ধু বাংলার তরফ থেকে ভিডিওটির সত্যতা যাচাই করা সম্ভব হয়নি। তবে ছদ্মবেশী সাংবাদিক ম‍্যাথু স্যামুয়েলের দাবি অনুযায়ী, এই ভিডিওর উপর ভিত্তি করেই সিবিআই নারদ স্টিং অপারেশনের তদন্তে নামে। তদন্ত যত এগিয়েছে, ততই একের পর

অবশেষে খোঁজ মিললো রাজীবের? প্রশাসন সিবিআইকে জানালো রাজীবের ঠিকানা

কোনোমতেই কলকাতার প্রাক্তন নগরপাল রাজীব কুমারকে নিজেদের বাগে আনতে পারছে না কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই। আদালতের পক্ষ থেকে সেই রাজীব কুমারকে গ্রেফতারের ব্যাপারে রক্ষাকবচ তুলে নেওয়া হলে সিবিআই এই ব্যাপারে তৎপরতা দেখাতে শুরু করে। কিভাবে রাজ্যের এডিজি সিআইডিকে নিজেদের বাগে নিয়ে আসা হবে, তা নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় অনুসন্ধান চালায় কেন্দ্রীয়

সাঁতরাগাছি থেকে মেচেদা – চরকিপাক খেয়েও রাজীব কুমারের টিকিও ছুঁতে পারলোনা সিবিআই

একি ভোজবাজি! নাকি আলাদিনের আশ্চর্য প্রদীপের জিন এর কারসাজি ? কোথায় গেলেন বর্তমান গোয়েন্দাপ্রধান রাজীব কুমার ? রাজ্যের এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত ছুটে বেরিয়েও কিছুতেই নাগালে পাচ্ছেনা সিবিআই তাঁকে। কোন মন্ত্র বলে তিনি পুরোপুরি ভ্যানিশ হয়ে গেছেন। সিবিআই কোমর বেঁধে নেমেও তাঁর কোন হদিস পাচ্ছে না। সারদা মামলার তথ্য

Top
error: Content is protected !!