এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "birbhum"

BIG BREAKING – বীরভূমের জেলা সভাপতির পায়ের কাছে বসে প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি, জোর শোরগোল রাজ্যে

সামনে বিস্ফোরক চিত্র বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের পায়ের কাছে বসে আছে প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি যা নিয়েই জোর শোরগোল রাজ্যে। জানা যাচ্ছে এদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের পায়ের কাছে বসে আছে প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি। শুধু তাই নয়, ফেসবুকে নিজের

অনুব্রতর মাস্টারস্ট্রোকে কুপোকাত বিজেপি? ফের বিজেপির ঘর ভাঙলেন বীরভূমের কেষ্টা ! !

লোকসভা ভোটে বীরভূমের ফলাফলের পর কিছুটা হলেও ঘরে ঢুকে গিয়েছিলেন দিদির প্রিয় ভাই অনুব্রত ওরফে কেষ্ট। এরপর শারীরিক অসুস্থতার কারণে দীর্ঘদিন বাড়ির বাইরে ছিলেন। রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন শুরু হয়ে গিয়েছিল এবার রাজনীতি থেকে বিদায় নিতে চলেছেন অনুব্রত মণ্ডল। কিন্তু সুস্থ হয়ে রাজনীতির ময়দানে নেমে পড়েছেন অনুব্রত মণ্ডল একের পর এক বিতর্কিত

অনুব্রত গড়ে পঞ্চায়েতের বিভিন্ন প্রকল্পের দুর্নীতির অভিযোগে সরব উপপ্রধান, জোর শোরগোল

রাজ্যের শাসক দলের দুর্নীতি নিয়ে আগেই সরব হয়েছিল বিরোধীদলগুলো। দুর্নীতি নিয়ে প্রথম থেকেই তৃণমূল চাপা অস্বস্তির শিকার। 2019 এর লোকসভা ভোটে তৃণমূল সরকারের খারাপ ফলের কারণ বহুলাংশে এই দুর্নীতি। দুর্নীতির কারণেই মানুষ লোকসভা ভোটে তৃণমূলের পাশ থেকে সরে গেছে বলে বিরোধীদের দাবি। তৃণমূলের দুর্নীতি বিশেষ করে স্থানীয় স্তরে লক্ষ্য করা

সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ কেস্টার, অনুব্রত মন্ডলের নতুন ‘তত্ত্বে’ শোরগোল রাজ্যজুড়ে!

ফের বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসলেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। এবার রাখ ঢাক না করে সংবাদমাধ্যমের ওপরই দোষ চাপাতে দেখা গেল তাঁকে। বস্তুত, বীরভূমের লোকপুরে একটি বাড়িতে বোমা বিস্ফোরণ নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে বিতর্কে জড়ালেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি। তাঁর দাবি, ফাঁকা বাড়িতে যে কেউ বোমা রাখতে পারে। সাংবাদিকেরাও খবরের

সাধারনের টাকা লুট করে বিজেপিতে পালিয়ে গেছেন নেতারা! হিসেব বুঝে নিন – নিদান অনুব্রতর

দলে দুর্নীতি জাঁকিয়ে বসেছে, আর সেই কারণেই এবারের লোকসভা নির্বাচনে তৃনমূল খুব একটা ভালো ফল করেনি। কিন্তু সেই দুর্নীতি যাতে বৃদ্ধি না পায়, তার জন্য এবার কড়া বার্তা দিতে দেখা গেল বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে। সূত্রের খবর, সোমবার বোলপুরের বাহিরী হাটতলায় আয়োজিত জনসভায় বক্তব্য রাখেন বীরভূম জেলা তৃণমূল

পদ হারালেন অনুব্রত – ঘনিষ্ঠ হেভিওয়েট নেতা! চাঞ্চল্য শাসকদলের অন্দরেই!

2019 সালে সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে গোটা রাজ্যের বিভিন্ন জেলাতে 42 এ 42 এর স্বপ্ন দেখা তৃণমূল কংগ্রেস মুক্ত করে করলেও নিজের গড় রক্ষা করতে সক্ষম হয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল। এই জেলায় দুটি আসনেই তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন। কিন্তু গোটা রাজ্যে তৃণমূলের এই ভরাডুবির পেছনে কারণ অনুসন্ধান করতে গিয়ে নবনিযুক্ত

অগ্নিগর্ভ অনুব্রত-গড়! প্রবল বিস্ফোরণে কাঁপল লাল মাটির দেশ

ফের বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় আতঙ্ক বাংলায়। এবার বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের গড়ে বোমা বিস্ফোরণে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ল। সূত্রের খবর, এই বোমা বিস্ফোরণে তৃণমুলের পঞ্চায়েত সদস্যের ঘরের চালা উড়ে গেছে। শনিবার খয়রাশোল ব্লকের কাঁকরতলা গ্রামের বড়রা গ্রামের সদস্য শেখ মহিবুলের বাড়িতে ঘটা এই বিস্ফোরণে দুটি ঘরের মাঝে থাকা এজবেস্টসের

অব্যাহত অনুব্রত ম্যাজিক, বীরভূমে বিজেপি ছেড়ে দলে দলে কর্মীরা যোগ দিলেন তৃণমূলে

দলবদলের পাল্টাহাওয়া বীরভূমে।শুক্রবার পুনর্দখল হয়েছিল সিউড়ির কোমা গ্রাম পঞ্চায়েত।শনিবার বোলপুরে বিজেপি থেকে প্রায় ৮০০ কর্মী যোগদান করলেন তৃণমূলে। নেপথ্যে সেই অনুব্রত মন্ডল। লোকসভা নির্বাচনের পরে রাজ্য জুড়ে শুরু হয়েছিল দলবদলের ঝড়। দলে দলে তৃণমূলের নেতা কর্মীরা যোগ দিচ্ছিলেন বিজেপিতে।ভাঙন ধরতে থাকে জোড়াফুলের সংগঠনে। রাজ্য জুড়ে একের পর এক পঞ্চায়েত, পুরসভার দখল

ফের অনুব্রত গড়ে বড়সড় ভাঙ্গন, চাপ বাড়ছে বীরভূমের কেষ্টার

লোকসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 42 এ 42 এর স্লোগান তুললেও তার সৈনিকেরা সেই দায়িত্ব পালন করতে পারেননি। নির্বাচনের মরসুমে বারবারই খবরের শিরোনামে উঠে আসা বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল দাপটের সঙ্গে নকুলদানা দিয়ে ভোট করানোর কথা বললেও তার জেলার দুটি লোকসভা আসনে তিনি দলকে জিতিয়েছেন ঠিকই, কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে ভোট

big breaking, গুরুতর অসুস্থ নেত্রী ঘনিষ্ঠ তৃণমূলের দোর্দণ্ডপ্রতাপ হেভিওয়েট নেতা, ভর্তি হাসপাতালে

গুরুতর অসুস্থ মমতা বান্দ্যোপাধ্যায়ের প্রিয় ভাই 'কেষ্টা'। জানা যাচ্ছে যে,হাইপারটেনশনে ভুগছেন অনুব্রত মণ্ডল।সুগার রয়েছে তাঁর। এদিকে আবার দেখা দিয়েছে কার্বোঙ্কল ,ফলে সব মিলিয়ে বেশ কাবু তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা। লোকসভা ভোটের পর থেকেই শরীর ভালো যাচ্ছিলো না বলে সূত্রের খবর। উচ্চ রক্তচাপ জনিত সমস্যায় ভুগছিলেন।এই নিয়ে রাজনৈতিকমহলের ধারণা তাঁর কারণ অবশ্যই তৃণমূলের

Top
error: Content is protected !!