এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "bimal gurung"

কাশ্মীরে 370 ধারা বিলোপের পরই বাংলায় পৃথক গোর্খাল্যান্ডের দাবি, জোর চাঞ্চল্য

সম্প্রতি কাশ্মীরে 370 ধারা বিলোপ করে সেই জম্মু-কাশ্মীরকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল বলে সংসদে বিল পাস করা হয়েছে। যে ঘটনায় মোদি সরকারের সাহসিকতাকে ধন্যবাদ জানিয়ে ইতিমধ্যেই দেশের মানুষ প্রবল আনন্দে ভাসতে শুরু করেছেন। তবে কাশ্মীরে কেন্দ্রীয় সরকার এই 370 ধারা বিলোপের পরই পশ্চিমবাংলায় দার্জিলিং, কোচবিহার আলাদা হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ

পাহাড়ে ভোটপ্রচার – বিমল গুরুংয়ের পর বড় ধাক্কা এবার রোশন গিরির, ব্যাকফুটে বিজেপি?

তৃণমূলের সঙ্গে তাদের সম্পর্ক ছিন্ন হওয়ার পর অবশেষে বিমল গুরুঙ্গ, রোশন গিরিরা আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকেই সমর্থন করবে বলে জানিয়ে দিলে পাহাড়ের জটিল রাজনৈতিক সমীকরণ নিয়ে প্রবল জল্পনা তৈরি হয়েছিল। এমনকি বিগত 2014 সালের লোকসভা নির্বাচনের মতো এবারও তাদের দখলে পাহাড় থাকবে বলে যখন আশার আলো দেখতে শুরু করেছিল গেরুয়া

দার্জিলিং আসন নিজেদের দখলে রাখতে বিজেপি প্রার্থীর প্রচারেও ভরসা বিমল গুরুংয়ের “বন্ধুত্ব”

বিগত 2014 সালের লোকসভা নির্বাচনে দার্জিলিং আসনটি নিজেদের দখলে রাখলেও সম্ভাবনাময় আসন বলে পরিচিত আলিপুরদুয়ার লোকসভা কেন্দ্রটিতে হেরে গিয়েছিল তারা। কিন্তু এবারে সেই আলিপুরদুয়ার লোকসভা কেন্দ্রকে পাখির চোখ করেছে গেরুয়া শিবির। এমনকি ভোট প্রচারে আশ্চর্যজনকভাবে গোর্খাবাসী ভোটারদের সামনে নিজেকে বিমল গুরুংয়ের বন্ধু বলে পরিচয় দিতে শুরু করেছেন আলিপুরদুয়ার লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি

পাহাড়ের রাজনীতিতে নতুন মোড়! মুখ্যমন্ত্রীকে লেখা রোশন গিরির চিঠি ঘিরে তীব্র জল্পনা

দীর্ঘ রক্তক্ষয়ী আন্দোলন, অবরোধ ও হিংসার পর সরকারের উদ্যোগে অবশেষে শান্তি ফিরেছে পাহাড়ে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে এখন হাসি ফুটেছে কাঞ্চনকন্যার মুখে বলে দাবি শাসকদলের। অন্যদিকে পাহাড়ের দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক সমীকরণেরও বদল ঘটেছে। একদা গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার ব্যাটন নিজেদের হাতে রাখা বিমল গুরুং, রোশন গিরিরা এখন কার্যত ফেরার হিসেবেই পরিচিত। পাশাপাশি গোর্খা

ফিরছেন কি গুরুং? গোর্খাল্যান্ডের দাবি পূরণে পাহাড়ের সব রাজনৈতিক দলকে একজোট হওয়ার ডাক দিলেন

দীর্ঘদিন যাবত রাজনৈতিক ভাবে নিস্ক্রিয় থাকার পরে আবারও পুরোনো মেজাজে বিমল গুরুং। গোর্খাল্যান্ডের দাবি পূরণে পাহাড়ের সব রাজনৈতিক দলকে একজোট হয়ে আন্দোলনের আহ্বান জানালেন তিনি। এদিন একটি অডিও বার্তায় পাহাড়ের দ্বিতীয় বৃহত্তম দল GNLF, জন আন্দোলন পার্টি, CPRM, কংগ্রেস-সহ প্রতিটি দলকেই জোট গঠনের জন্যে আমন্ত্রন জানান গুরুং। তাঁর প্রশ্ন, বরোল্যান্ড

Top
error: Content is protected !!