এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "Banglar Khonj khabor"

দিলীপ ঘোষের হাত ধরে পাঁচ হাজার অনুগামী নিয়ে বিজেপিতে যোগ তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতার

রাজ্যে লোকসভা ভোটের আগে থেকে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানের পক্রিয়া শুরু হয়েছে। আর ভোট মেটার পর বিজেপি বাংলায় ১৮ টি আসন পেতেই দল বদলের হিড়িক শুরু হয়ে গেছে। রোজি প্রায় ডলাভকরে বিজেপিতে যোগ দিচ্ছে। এদিকে অনেকগুলি পুরোভা থেকে কাউন্সিলররা যোগ দিয়েছেন যার ফলে অনেকগুলি পুরসভা হাতে এসেছে বিজেপি। গতকাল মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জে

রাজ্যে বাকি আসনে পদ্মফুল ফোটানোর লক্ষ্যে দায়িত্ব পেলেন ত্রিপুরায় বিজেপি সরকারের কারিগর এই বিজেপি নেতা

এবারের লোকসভা নির্বাচনে বাংলা থেকে 22 থেকে 23 টি আসন নিজেদের দখলে রাখবার জন্য বহুদিন আগে থেকেই রাজ্য নেতৃত্বকে টার্গেট বেঁধে দিয়েছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। ইতিমধ্যেই তিন তিনটে দফায় মোট দশটি লোকসভা কেন্দ্রের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে এরাজ্যে। আর সেই 10 টি নির্বাচন হওয়া কেন্দ্রের মধ্যে অধিকাংশই বিজেপি তাদের দখলে রাখবে বলে

রবার্ট বঢ়রাকে আর্থিক তছরুপের দায়ে জেরার পেছনেও বিরোধী জোট ভাঙার “চক্রান্ত” দেখছেন তৃণমূল নেত্রী

কেন্দ্রের বর্তমান বিজেপি সরকার উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবেই বিরোধীদের পেছনে সিবিআই লাগিয়ে তাদের হেনস্তা করছে বলে দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ করে আসছে দেশের বিজেপি বিরোধী দলগুলো। সম্প্রতি কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের বাড়িতে সিবিআই হানা নিয়ে সেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে ধর্মতলার মেট্রো চ্যানেলে ধরনায় বসে পড়েন খোদ তৃনমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা

বিরোধীদের উপযুক্ত জবাব দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দাবি-‘তৃণমূলের নয়, গণতন্ত্র রক্ষা জন্য রাজ‍্য সরকারের কর্মসূচি এই ধর্ণা “

এদিন পুলিশ কমিশনারের বাড়িতে সিবিআই এর আধিকারিকের যাওয়া আর জোর করে কেন্দ্রীয় সরকারের সিবিআইকে দিয়ে তৃণমূলকে হেনস্থা করার অভিযোগ এনে মেট্রো চ্যানেলে মুখ্যমন্ত্রী ধরনায় বসেছেন। তাঁর সঙ্গে রয়েছেন ADG, পুলিশ কমিশনার। আর তাই নিয়েই জোর বিতর্ক শুরু হয়েছিল। বিরোধীরা দাবি করেছিলেন যে, রাজীব কুমার কি তৃণমূলের নেতা যে তাঁকে সিবিআই

কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ‘সত্যাগ্রহ’ করতে গিয়ে আদতে কি মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যে ‘প্রশাসনিক সংকট’ তৈরী করছেন? উঠছে প্রশ্ন

গতকাল সন্ধ্যে থেকেই রাজ্য রাজনীতিতে অভূতপূর্ব পরিস্থিতি - দেশের প্রধানমন্ত্রীকে 'পাগল' আখ্যা দিয়ে কার্যত কেন্দ্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে দিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত দুদিন ধরেই জল্পনা চলছিল চিটফান্ড কাণ্ডে তদন্তে সহযোগিতা না করার জন্য গ্রেপ্তার হতে পারেন কলকাতা পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। কিন্তু, কলকাতা পুলিশের তরফে জাভেদ শামীম

প্রধানমন্ত্রী হওয়া নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে চ্যালেঞ্জ জানালেন দিলীপ ঘোষ

ফের তৃণমূল বিরোধীতায় ময়দানে দিলীপ ঘোষ! নিজের চিরাচরিত স্টাইলেই চাঁচাছোলা ভঙ্গিতে রাজ্যের শাসকদলকে আক্রমণ শানালেন রাজ্যের পদ্মবাহিনীর সেনাপতি। গতকাল উত্তর ২৪ পরগনার নৈহাটির গৌরীপুরে দলীয় সভায় উপস্থিত ছিলেন তিনি। সেখান থেকেই গর্জে উঠে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে বললেন,"ওরা ৪২ টা আসন পাওয়ার স্বপ্ন দেখছে। আগে এর অর্ধেক আসন পেয়ে

নিয়মনীতি মেনে ভোট না হলে ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি কমিশনের

লোকসভা নির্বাচনের দিনক্ষণ এখনও ঘোষণা না হলেও দেশের নির্বাচন কমিশনের ফুল বেঞ্চ বঙ্গে এসে যেন সেই নির্বাচনের দামামা বাজিয়ে দিলেন। সূত্রের খবর, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সাথে বৈঠকের পর বৃহস্পতিবার রাজ্যের সমস্ত জেলার জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারদের নিয়ে একটি বৈঠকে বসেন দেশের মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল আরোরা। সকাল সাড়ে 11 টা

লোকসভা ভোটের আগে কি কি চমক রয়েছে বিজেপির বাজেটে? দেখে নিন এক নজরে

আর কদিন পরেই দেশে অনুষ্ঠিত হবে লোকসভা ভোট। আর এই লোকসভা ভোটের আগে জনমানসে নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্রিয় প্রায় সমস্ত রাজনৈতিক দলই। আসন্ন নির্বাচনে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ইস্যু তুলে ধরে ইতিমধ্যেই মাঠে নেমে পড়েছে বিরোধীরা। কৃষক অসন্তোষ থেকে জিএসটি, নোট বাতিল প্রায় প্রতিটি ইস্যুতেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হচ্ছেন তাঁরা।

ছাত্র-ছাত্রীদের মোদির বক্তব্য শোনা উচিত নয় – বলে বিতর্ক বাড়ালেন কংগ্রেস নেতা

লোকসভা নির্বাচনের আগে শিক্ষা থেকে স্বাস্থ্য, কর্মসংস্থান থেকে দুর্নীতি - বিভিন্ন ইস্যুতে শাসক বনাম বিরোধীদের পরস্পরবিরোধী মন্তব্যে জাতীয় রাজনীতিতে ছড়িয়ে পড়ছে প্রবল বিতর্ক। আর এবার সেই বিতর্কের মাত্রাকে সমান জায়গায় রেখে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিলেন প্রবীণ কংগ্রেস নেতা আনন্দ শর্মা। আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুরু

মহাজোটে বড় ধাক্কা দিতে নয়া পদক্ষেপ নিতে চলেছেন মোদি সরকার

রাজনীতির অংক বড়ই কঠিন। কে কাকে কখন কোন দিক দিয়ে টেক্কা দেবে তা নিশ্চিত করে বলতে পারেন না কেউই। আর এবার আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে নিজেদের ভোটব্যাংকে আরও শক্ত করতে এক কৌশলী পদক্ষেপ নিতে চলেছে গেরুয়া শিবির। যে পদক্ষেপের দ্বারা একদিকে সাপও মরবে, আর অন্যদিকে লাঠিও ভাঙবে না বলেই মনে

Top
error: Content is protected !!