এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "arjun sing"

ভাটপাড়ায় মুকুল-অর্জুনের ঘুম ওড়াতে আরও বড় ধাক্কার পরিকল্পনায় ঘাসফুল শিবির

  লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি ফলাফল করার পরেই উত্তর 24 পরগনা জেলায় তৃণমূলের ভাঙ্গন ধরতে শুরু করে। ভাটপাড়া থেকে শুরু করে হালিশহর, নৈহাটি থেকে শুরু করে কাঁচরাপাড়া, একাধিক পৌরসভা বিজেপি নিজেদের দখলে আনতে শুরু করে। তবে বিজেপি এই সমস্ত পৌরসভার তৃণমূল কাউন্সিলরদের নিজেদের দখলে আনলেও কিছুদিন পরেই অবস্থার পরিবর্তন হতে শুরু করে। সম্প্রতি

জোড়া ধাক্কা বিজেপি সংসদ অর্জুন সিং এর, জেনে নিন কারণ

জোড়া ধাক্কা অর্জুন সিং সমেত বিজেপির । জানা যাচ্ছে আজ বিজেপি ছেড়ে ব্যারাকপুর ১ ব্লকের কাউগাছি পঞ্চায়েতের ১৭ জন সদস্য তৃণমূলে যোগ দিলেন। অন্যদিকে আজ ভাটপাড়া পুরসভার ১৭ জন কাউন্সিলর ফিরছেন তৃণমূলে - তৃণমূল ভবনে তাঁরা যোগ দেবেন ।   লোকসভা ভোটের পর কাউগাছি পঞ্চায়েতের পঞ্চায়েত প্রধান সহ ২৪ জন সদস্যই বিজেপিতে যোগ

বড়সড় ধাক্কা খেতে চলেছে মুকুল-অর্জুন, ভাটপাড়া ধরে রাখতে পারলো না বিজেপি?

বড়সড় ধাক্কা খেতে চলেছেন মুকুল রায় এবং অর্জুন সিং সৌজন্যে তৃণমূল। লোকসভা নির্বাচনের পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এককালের একনিষ্ঠ সৈনিক মুকুল রায়ের হাত ধরে হালিশহর, কাঁচরাপাড়া, নৈহাটি, ভাটপাড়া, পৌরসভা দখল করেছিল গেরুয়া শিবির। আর এর পরেই একের পর এক বিধায়ক নেতা নেত্রী তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানের গুঞ্জন চারিদিকে ছেয়ে গিয়েছিল। যার

বড়সড় দাবি তৃণমূল নেতার বাড়লো মুকুল অর্জুন সমেত বিজেপির রক্তচাপ? জেনে নিন

লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির ভাল ফলাফল হওয়ার পরই উত্তর 24 পরগনার নৈহাটি পৌরসভার তৃণমূল কাউন্সিলররা গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে শুরু করেছিলেন। প্রায় 18 জন কাউন্সিলর গেরুয়া জার্সি পড়ে নেওয়ায় এই পৌরসভা বিজেপির দখলে চলে আসে। এদিকে বিরোধীদের দখলে পৌরসভা চলে যাওয়ার পরেই আশ্চর্যজনকভাবে সেইখানে প্রশাসক নিয়োগ করতে দেখা যায় রাজ্য সরকারকে। আর

তৃণমূলে ফিরতে চাইছেন মুকুল রায় ও অর্জুন সিং, বড়সড় দাবি হেভিওয়েট মন্ত্রীর

রাজ্য রাজনীতির প্রেক্ষাপটে বর্তমানের দলবদল আর ঘর ওয়াপসি এই দুটো শব্দই অত্যন্ত পরিচিত হয়ে উঠেছে। প্রত্যেকদিনই দলবদলের একের পর এক ঘটনা সংবাদ শিরোনাম চলে আসছে। জানা যাচ্ছে শনিবার বিকেলে বিজেপির ত্যাগ করে ফের নিজের পুরনো রাজনৈতিক দল তৃণমূলে ফিরে এলেন গারুলিয়া পৌরসভার ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত মুখোপাধ্যায়। আর এই নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে

মধ্যমগ্রাম কাণ্ডে বিজেপিকেই কাঠগড়ায় তুললেন তৃণমূলের মন্ত্রী, জোর গুঞ্জন

লোকসভা নির্বাচনের পরবর্তী সময়ে উত্তর 24 পরগনার বিভিন্ন এলাকা শাসক-বিরোধী সংঘর্ষে উত্তপ্ত হতে শুরু করে। সম্প্রতি মধ্যমগ্রামে শুটআউট কান্ডে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। যেখানে আহত হন তৃণমূলের যুব নেতা। আহত নেতার নাম বিনোদ সিং। আর এই ঘটনা নিয়েই এবার বিজেপিকে কাঠগড়ায় তুলে দিলেন উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলা তৃণমূলের সভাপতি তথা

এবার সরাসরি সিপির বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা করলেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং

নির্বাচনের পরবর্তী সময় থেকেই বিভিন্ন রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হতে দেখা গিয়েছিল ভাটপাড়াকে। তবে সম্প্রতি পার্টি অফিস দখল, পাল্টা দখলের রাজনীতিতে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংহ সেখানে উপস্থিত হলে পুলিশের পক্ষ থেকে মেরে তার মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ ওঠে। যার পড়ি এই গোটা ঘটনায় শাসক দল তৃণমূল

পার্টি অফিস দখল-পুনর্দখল নিয়ে কি ব্যারাকপুরে অশান্তি আরও বাড়বে? ক্রমশ বাড়ছে দুশ্চিন্তা

লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিজেপির উত্থান ঘটার পরে দিকে দিকে রাজনৈতিক সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। এতদিন ক্ষমতার স্বাদ গ্রাস করা তৃণমূল বিজেপিকে এক ইঞ্চি জায়গা ছাড়বে না বলে নিজেদের প্রভাব বাড়াতে শুরু করে। অন্যদিকে ময়দান ছাড়তে নারাজ গেরুয়া শিবিরও। এই পরিস্থিতিতে পার্টি অফিস দখল পাল্টা দখলের রাজনীতিতে বিভিন্ন সময় উত্তপ্ত হতে দেখা

মুখমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন অর্জুন সিং, জেনে নিন

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর থেকেই একেবারে স্বমহিমায় শাসকদলের বিরুদ্ধে গর্জন করেছেন ভাটপাড়া স্বনামধন্য বিজেপি নেতা ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিংহ। শ্যামবাজারের ধর্না মঞ্চ থেকে অর্জুন বাবু অভিযোগ করেন মনোজ ভার্মা একজন সুপারি কিলার। তাকে নিয়োগ করা হয়েছে খুন করার জন্য। এই ষড়যন্ত্রে যুক্ত রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলে ভয়াবহ অভিযোগ

হাসপাতাল থেকে বাড়ি এসেই রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অর্জুন সিং

লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই নানা সময় উত্তপ্ত হয়ে উঠতে দেখা গেছে ভাটপাড়াকে। তবে রবিবারের ঘটনা অতীতের সমস্ত ঘটনাকে ম্লান করে দিয়েছে। যেখানে পার্টি অফিস দখল, পাল্টা দখল কাণ্ডে পুলিশের সাথে সংঘর্ষে মাথা ফেটেছে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংহের। যার জন্য গুরুতর জখম অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন সেই বিজেপি

Top
error: Content is protected !!