এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "anubrata mondal"

আবারও গোষ্ঠীদ্বন্দ প্রকাশ্যে, হাল ধরতে মাঠে নামলেন অনুব্রত, শেষ রক্ষা হলো কি? উঠছে প্রশ্ন

লোকসভা নির্বাচনের পর দলের শৃঙ্খলা আনা জরুরি, তা অনুধাবন করতে শুরু করে তৃণমূল কংগ্রেস। আর তারপরেই জেলায় জেলায় দলীয় গোষ্ঠীকোন্দল রোধ করার কড়া বার্তা দেওয়া হয়। তবে বেশ কিছু জেলায় তৃণমূলের নেতারা একত্রিত হয়ে চললেও যে জেলা তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি বলে পরিচিত, যেখানকার নেতা অনুব্রত মণ্ডল সেখানেই এবার প্রকাশ্যে চলে

নাম না করে তোলাবাজির অভিযোগ তুলে তীব্র কটাক্ষ অনুব্রত মন্ডলকে

তৃণমূলের বিরুদ্ধে বলতে গিয়ে এবার নাম না করে বীরভূমের তৃণমূল অধিপতি অনুব্রত মণ্ডলকে টাকা খাওয়ার জন্য আক্রমণ করলেন বিজেপির বীরভূম জেলা সভাপতি শ্যামাপদ মন্ডল। দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় অভিযোগ উঠেছে তোলাবাজি নিয়ে। বিভিন্ন রাজনৈতিক গোষ্ঠী একে অপরের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছে এ ব্যাপারে। এদিন তৃণমূলের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে রীতিমতো নাম

নাগরিকত্ব সংশোধনী নিয়ে ফের হুমকি মন্তব্য, ফের বিতর্কে অনুব্রত

  নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে ইতিমধ্যেই বিজেপি বনাম তৃণমূলের মধ্যে তীব্র দ্বৈরথ শুরু হয়েছে। আর রাজ্যে এই আইন পাস হওয়ার পর তাতে রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষর হয়ে গেলে সারা দেশজুড়ে তা প্রতিষ্ঠিত হয়। আর এই নাগরিকত্ব আইন প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পরেই তার চরম বিরোধিতা করে সরব হতে শুরু করে তৃণমূল কংগ্রেস। ইতিমধ্যেই উত্তরবঙ্গ থেকে দক্ষিণবঙ্গ,

লোহাপুরের প্রতিবাদ সভা থেকে গর্জে উঠলেন অনুব্রত এন আর সির বিরুদ্ধে রীতিমত চ্যালেঞ্জ চুঁড়ে দিলেন কেন্দ্রকে

জাতীয় নাগরিক পঞ্জী আইন নিয়ে ইতিমধ্যে সারা দেশজুড়ে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। এ রাজ্যে প্রথম থেকেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জাতীয় নাগরিকপঞ্জি আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে গর্জে উঠেছেন। পথে নেমে তিনি প্রতিবাদ জানিয়েছেন প্রথম থেকেই। শুধু তাই নয়, জাতীয় নাগরিকপঞ্জি আইনের বিরুদ্ধে দেশের অবিজেপি দলগুলিকে একজোট হওয়ার আবেদন জানান তিনি। পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে এনআরসি

ঝাড়খন্ডে বিজেপির ভরাডুবির “আসল কারণ”বেরিয়ে এলো ! জানলে চমকে যাবেন!

বরাবরই বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত। বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলও নিজের গোটা রাজ্যবাসীর কাছে একটি পরিচিত মুখ হয়ে উঠেছে। রাজ্য এবং দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে তার মন্তব্য যথেষ্ট আগ্রহের সঙ্গে শোনে আমজনতা থেকে শুরু করে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। আর এবার ঝাড়খন্ডে বিজেপির ভরাডুবির আসল কারন বলতে

অনুব্রত-গড়ে বসেই তাঁকে তুলোধোনা কৈলাসের! পাল্টা “মাল” বলে বেসামাল আক্রমণ দিদির “কেষ্টার”!

  প্রায় বিভিন্ন সময়ই বিরোধীদের ধমক-চমক দেওয়ার দিক থেকে শিরোনামে উঠে আসতে দেখা যায় বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে। কখনো চরাম চরাম ঢাকের কথা, আবার কখনও বা গুড় বাতাসার কথা বলে পরোক্ষে তিনি বিরোধীদের হুমকি দিচ্ছেন বলে দাবি করেন বিরোধীরা। আর এই পরিস্থিতিতে বীরভূমের জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে কড়া

মেয়াদ পুরো করতে পারবে না রাজ্য সরকার? জল্পনা বাড়িয়ে দিলেন খোদ অনুব্রত মণ্ডল

  নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন লাগু হবার পর থেকেই বাংলায় বিক্ষোভ ভয়ঙ্কর আকার ধারণ করেছে। উন্মত্ত জনতা কোথাও স্টেশন পুড়িয়ে দিচ্ছে, আবার কোথাও বা রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে পথ অবরোধ করছে। আর এই পরিস্থিতিতে প্রথম থেকেই নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরোধিতা করে আসা রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন।

অনুব্রত মণ্ডলের সামনেই দলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে, তৃণমূল নেতার হুশিয়ারিতে জোর জল্পনা

  লোকসভা নির্বাচনের পর দলে শৃঙ্খলা আনা যে জরুরী, তা অনুধাবন করতে শুরু করে তৃণমূল কংগ্রেস। আর তারপরেই জেলায় জেলায় দলীয় গোষ্ঠী কোন্দল রোধ করার কড়া বার্তা দেওয়া হয়। তবে বেশ কিছু জেলায় তৃণমূলের নেতারা একত্রিত হয়ে চললেও, যে জেলা তৃণমূলের শক্তঘাঁটি বলে পরিচিত, যেখানকার নেতা অনুব্রত মণ্ডল, সেখানেই এবার প্রকাশ্যে

তৃণমূল নেতাদের দুর্নীতি আটকাতে এবার সাধারণের হাতে এফআইআর অস্ত্র তুলে দিলেন অনুব্রত মণ্ডল

  লোকসভা নির্বাচনে সারা রাজ্যে বিজেপি দাপট বাড়ালেও বীরভূম জেলার দুটি লোকসভা কেন্দ্রে তারা পদ্ম ফোটাতে পারেনি। তবে তৃণমূল বীরভূম বোলপুর লোকসভা কেন্দ্র দখল করলেও আশ্চর্যজনকভাবে তাদের ভোট অনেকটাই কমেছে। আর এই পরিস্থিতিতে লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল মেটার সাথে সাথেই বিধানসভাভিত্তিক সম্মেলন করতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। সংগঠন

এবার দলীয় ‘ময়নাতদন্তে’ অনুব্রত মন্ডল, শাস্তির ভয়ে থরহরিকম্প তৃণমূলের নিচুতলার নেতা-কর্মীরা!

2019 এর লোকসভা ভোটের পর তৃণমূল দল যথেষ্ট সাবধানী হয়ে উঠেছে। পরিকল্পনামাফিক তৃণমূল মেপে মেপে রাজনৈতিক ময়দানে পা ফেলছে। ইতিমধ্যে তৃণমূলের সমস্ত রাজনৈতিক খসড়া তৈরি করছে ভোট কৌঁশলী প্রশান্ত কিশোর। আর প্রশান্ত কিশোরের পরিকল্পনা অনুযায়ী তৃণমূল প্রতিটি দায়িত্ব পালন করছে। সেই অনুযায়ী এবার বীরভূম জেলা জুড়ে শুরু হচ্ছে বিধানসভা ভিত্তিক

Top
error: Content is protected !!