এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "amit shah"

মুখ্যমন্ত্রী-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বৈঠকের পরে কি নতুন সমীকরণ সামনে আসবে? জল্পনা চরমে

প্রধানমন্ত্রীর সাথে বৈঠকের পরই এবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সাথেও বৈঠক করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চূড়ান্ত বিরোধিতা সত্ত্বেও কেন্দ্রীয় বিরোধী নেতৃত্বের সাথে একের পর এক বৈঠক করে ফেলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় সরকারের যাবতীয় নীতির বিরুদ্ধে এতদিন চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। সাথে প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের প্রায় সকলের প্রতি

মুখ্যমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক করলেও, তাঁর হেভিওয়েট মন্ত্রী দিলেন ‘হিটলার’ তকমা!

প্রধানমন্ত্রীর সাথে বৈঠকের পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সাথে বৈঠক করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। চূড়ান্ত বিরোধিতা সত্ত্বেও কেন্দ্র সরকারের ক্ষমতাসীন দলের সাথে একের পর এক বৈঠক করে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রথম থেকেই বিরোধী দলগুলির আক্রমণের ফলা ছিল তীক্ষ্ণ। তীব্র কটাক্ষে ভরিয়ে দিয়েছেন বিরোধীরা। কিন্তু তৃণমূলের তরফ থেকে সেই অর্থে কোন মন্তব্য করা হয়নি -

অমিত শাহ বা রাজ্য নেতারা নন, পুজোর উদ্বোধনে গেরুয়া শিবির চাইছে এই দুই সেলিব্রিটি সাংসদকে

লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় ভালো ফলাফল করার পর বাঙালির আবেগকে উস্কে দিতে শারদোৎসবে নিজেদের দলীয় নেতাদের রাজ্যে এনে সেই দুর্গাপুজোকে নিজেদের আয়ত্তে আনতে চেয়েছিল গেরুয়া শিবির। সেক্ষেত্রে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ, বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাদের মতো হেভিওয়েট নেতৃত্বেরদের নাম সেই তালিকায় ছিল। কিন্তু এবার শহরে দুর্গাপুজোর উদ্বোধনে প্রাক্তন ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর এবং

দুর্গাপুজোয় তৃণমূলকে টক্কর দিতে তৃতীয়াতেই কলকাতায় পা রাখতে চলেছেন অমিত শাহ – জেনে নিন বিস্তারিত

একসময় সপ্তমী থেকে বাংলায় দুর্গাপূজা শুরু হত। কিন্তু কালের নিয়মে এখন সেই পুজো প্রথমা বা দ্বিতীয়া থেকেই শুরু হয়ে যায়। তথ্যপ্রযুক্তি, ইন্টারনেটের যুগে রাজ্যে পরিবর্তন আসার সাথে সাথে প্রথমা, দ্বিতীয়া কিংবা তৃতীয়ার দিন থেকেই বিভিন্ন পূজামন্ডপে উদ্যোক্তারা হেভিওয়েটদের দিয়ে তাদের পুজো উদ্বোধন করাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। ফলে পুজো উদ্বোধন হয়ে

শোভন ও বৈশাখী কি দলে থাকছেন? না ফিরছেন -জানিয়ে দিলেন দিলীপ ঘোষ

পশ্চিম মেদিনীপুর:- ‘জনতার দরবার’ অনুষ্ঠানে পশ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতন ২ নং ব্লকের সাউরী ভোলানাথ বিদ্যামন্দিরে মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ দিলীপ ঘোষ এ দিন এলাকার মানুষের অভাব অভিযোগ শোনেন এবং অভিযোগগুলি সমাধানের চেষ্টা করবেন বলে তিনি জানান । এ দিন তিনি জনতার দরবারে হাজির হয়ে শোভন ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিজেপি থেকে তৃণমূলে

সিবিআই ইস্যুতে রাজীব কুমারকে ঘিরে বড়োসড়ো হুঁশিয়ারি দিলীপ ঘোষের – জেনে নিন বিস্তারিত

রাজীব কুমার এর উপর থেকে হাইকোর্টের রক্ষাকবচ উঠে যাওয়ার পরেই সিবিআই তাঁকে তলব করেছিল হাজিরা দেওয়ার জন্য। কিন্তু রাজীব কুমার সেই তলবে সাড়া দেননি। উপরন্তু একমাস সময় চেয়েছেন ইমেল মারফত। এই প্রসঙ্গে এদিন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বড়োসড়ো হুঁশিয়ারি দিলেন। এদিন কোন্নগরে একটি ফুটবল প্রতিযোগিতার উদ্বোধন এসে রাজ্য বিজেপি সভাপতি

বিধানসভায় বিজেপির “টার্গেট” 200 +, গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব ভুলে সবাইকে নিয়ে চলার বার্তা অমিত শাহের

সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের টার্গেট ছিল বাংলা। রাজ্য নেতৃত্বের বহু চেষ্টা এবং পরিশ্রমে সেই বাংলায় সাফল্য পেয়েছে বিজেপি। কিন্তু লোকসভায় সাফল্য পাওয়া বিজেপির লক্ষ্য নয়, বিজেপির মূল লক্ষ্য আগামী 2021 এর বিধানসভা নির্বাচন। যেনতেন প্রকারেণ সেই বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিকে ভালো ফলাফল করে রাজ্যের ক্ষমতায় আসতে হবে, এই ব্যাপারে

নতুন স্বপ্নের কাশ্মীর নিয়ে বড়সড় দাবি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের – জানুন বিস্তারিত

ক্ষমতায় আসার আগেই নরেন্দ্র মোদী বলেছিলেন, তাদের সরকার ক্ষমতায় এলে ভালোবাসা দিয়ে কাশ্মীরকে জয় করা হবে। 2014 সালে প্রথমবার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর কাশ্মীরের অনেক সমস্যার সম্মুখীন হলেও দ্বিতীয়বারের জন্য 2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে জেতার পর পরই সেই কাশ্মীরের ব্যাপারে ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রের মোদি সরকার। যেখানে সংসদের দুই কক্ষেই 370

রাহুল গান্ধীর বক্তব্য ও পাকিস্তান নিয়ে তীব্র আক্রমন করে কংগ্রেসকে তুলোধোনা অমিত শাহের

সম্প্রতি সংসদের দুই কক্ষেই কাশ্মীরের 370 ধারা বিলোপ করে সেই আইন পাস করিয়েছে কেন্দ্র। যার পরেই দেশের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এর প্রবল বিরোধিতা করা হয়েছিল। কিন্তু এবার এই ইস্যুতে কংগ্রেসের রাহুল গান্ধীকে কড়া ভাষায জবাব দিতে দেখা গেল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে। সূত্রের খবর, রবিবার দাদরা ও নগর হাভেলির

মিশন নবান্নের লক্ষ্যে এবার থেকে প্রতিমাসে অমিত শাহের হাই-প্রোফাইল বৈঠক – জানুন বিস্তারিত

লোকসভায় তারা আশাব্যঞ্জক ফলাফল করেছে। তৃণমূলের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলে আঠারোটা আসন তারা নিজেদের দখলে রেখেছে। কিন্তু লোকসভা তাদের কাছে সেমিফাইনাল হলেও ফাইনাল আগামী 2021 এর বিধানসভা নির্বাচন। আর তাই ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের লক্ষ্যে এবার থেকে প্রতি মাসে একবার করে বঙ্গ বিজেপির ‘কোর কমিটি’র সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করার সিদ্ধান্ত নিলেন

Top
error: Content is protected !!