এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "abhishek banerjee"

এবার সরাসরি সিপির বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা করলেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং

নির্বাচনের পরবর্তী সময় থেকেই বিভিন্ন রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হতে দেখা গিয়েছিল ভাটপাড়াকে। তবে সম্প্রতি পার্টি অফিস দখল, পাল্টা দখলের রাজনীতিতে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংহ সেখানে উপস্থিত হলে পুলিশের পক্ষ থেকে মেরে তার মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ ওঠে। যার পড়ি এই গোটা ঘটনায় শাসক দল তৃণমূল

দিল্লি হাইকোর্টের মামলায় বড়সড় স্বস্তি অভিষেক ব্যানার্জীর – জানুন বিস্তারিত

তৃণমূলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড বলে পরিচিত অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে ভুল তথ্য দেওয়ার অভিযোগে অনেকদিন আগেই তাঁকে আদালতে তলব করা হয়েছিল। যাকে কেন্দ্র করে রাজ্য রাজনীতিতে তীব্র সোরগোলও উঠেছিল। কিন্তু এবার সেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে বড়সড় স্বস্তি দিয়ে তার ব্যক্তিগত হাজিরায় স্থগিতাদেশ জারি করল জেলা ও দায়রা আদালত। বস্তুত, ডায়মন্ডহারবারের তৃণমূল সাংসদ

অর্জুন-গড়ে ঝামেলার সব দায় বিজেপি সাংসদের ঘাড়েই তুলে দিল পুলিশ!

লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই ভাটপাড়ায় রাজনৈতিক সন্ত্রাস সৃষ্টি হয়। তৃণমূল ছেড়ে লোকসভায় বিজেপির টিকিটে দাঁড়ানো এবং সাংসদ হওয়া অর্জুন সিং বনাম তৃণমূলের লড়াই যেন অন্য আকার ধারণ করেছিল। সম্প্রতি সেই গন্ডগোল রণক্ষেত্রের আকার ধারণ করে। যার ফলে মাথা ফেটে যায় ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংহের। বিজেপির অভিযোগ, এই

কর্মীদের মধ্যে মমতা অভিষেকের থেকেও কি হিট হচ্ছেন ক্রমশ প্রশান্ত কিশোর, জোর জল্পনা

কথায় আছে, "যার বিয়ে তার হুঁশ নাই, পাড়া পড়শীর ঘুম নাই।" এখন যেন ঠিক এইরকমই অবস্থায় রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের। লোকসভা নির্বাচনে দল কিছুটা বিপাকে পড়ায় এবং 34 থেকে 22 টি আসনে নেমে আসার পরই দলকে ঘুরে দাঁড় করানোর জন্য ভোটগুরু হিসেবে পরিচিত প্রশান্ত কিশোরকে দলের প্ল্যানমেকার হিসেবে নিয়োগ

“বিজেপিকে নকল করেই তৃণমূলের কর্মসূচি” বিস্ফোরক কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতা

লোকসভা ভোটে বাংলায় পরাজয়ের পরই জনসংযোগকে প্রধান হাতিয়ার হিসেবে বেছে নেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে ভোট কৌশলী হিসেবে পরিচিত প্রশান্ত কিশোরকে নিজের দলের রণনীতিকার হিসেবে নিয়োগ করে কিভাবে দলকে ঘুরে দাঁড় করিয়ে এগিয়ে যাওয়া যায়, তার সম্পর্কে নানান মতামতও নেন তৃণমূলের সর্বাধিনায়িকা। ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকবার তৃণমূল যুবর সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং

মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকের আগেই পদ ছাড়লেন ‘অভিষেক ঘনিষ্ঠ’হেভিওয়েট নেতা, জোর জল্পনা রাজ্যে

২১ সে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন যে তিনি আগামী ২৬ সে জুলাই মধ্যমগ্রামে প্রশাসনিক সভা করবেন। আর সেই সভার প্রস্তুতি ঘিরে এই মুহূর্তে জেলা তৃণমূলের ব্যস্ততা তুঙ্গে। আর তার মাঝেই ছন্দপতন হলো মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক সভার মুখেই পদত্যাগ করলেন জেলা পরিষদের কৃষি কর্মাধ্যক্ষ বুরহানুল মুকাদ্দিম ওরফে লিটন । এদিকে

অভিষেক নয়, এখন তৃণমূলের সভাপতি অন্যজন, বড়সড় দাবি হেভিওয়েট নেতার

সমালোচকদের একাংশ বলেন, মুকুল রায়ের তৃণমূল ছাড়ার পেছনে অন্যতম কারণ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উত্থান। আর সেজন্যই তিনি তৃণমূল থেকে বেরিয়ে এসে বর্তমানে তার প্রাক্তন দলকে ভাঙতে শুরু করেছেন। লোকসভা নির্বাচনের পরবর্তীকালে বাংলায় দলবদলের হিড়িক পড়ে গিয়েছে। 18 টি আসন নিজেদের দখলে রাখা বিজেপি 22 টি আসন পাওয়ার জন্য তৃনমূলের ঘাড়ে নিশ্বাস

মুকুল রায়কে তীব্র কটাক্ষ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের, জেনে নিন

তৃণমূলে থাকার সময় কে সেকেন্ড ইন কমান্ড হবে, তা নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বনাম মুকুল রায়ের দ্বন্দ্ব প্রায় সকলেরই জানা। যার পরিপ্রেক্ষিতে শেষমেষ তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করতে হয়েছিল রাজনীতির চাণক্য মুকুল রায়কে। আর এরপরই তৃণমূলের ঘর ভেঙে একের পর এক জনপ্রতিনিধিদের বিজেপিতে যোগদান করাতে শুরু করেছিলেন সেই মুকুলবাবু।

সাত আট মাসে পিসি- ভাইপোর প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি উঠে যাবে,ওরাও দেশ ছেড়ে চলে যাবে – তোপ প্রাক্তন সৈনিকের

তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরেই মুকুল রায় তৃণমূলকে লিমিটেড কোম্পানি বলে কটাক্ষ করেছিলেন। বলেছিলেন, "তৃণমূলে আর কেউ শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে পারছে না সবাই বেরিয়ে আসতে চাইছে।" আর নিজের কথাকে বাস্তবে প্রতিফলিত করে তৃণমূলের অনেক হেভিওয়েট নেতা, বিধায়ক, কাউন্সিলার, জেলা পরিষদের সদস্যকে ইতিমধ্যেই গেরুয়া শিবিরে নিয়ে এসেছেন বঙ্গ বিজেপির এই চাণক্য। আর

বিমানবন্দরের সোনা-কাণ্ডে নয়া মোড়, শুল্ক দপ্তরের মামলায় নয়া সিদ্ধান্ত সুপ্রিম কোর্টের

তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায় সাময়িক স্বস্তি পেলেন সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে। জানা যাচ্ছে হাইকোর্টের নির্দেশ এর বিরোধিতা করে শুল্ক দফতর সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল। আর আজ সুপ্রিম কোর্টে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈর বেঞ্চ আজ জানিয়েছে, শীর্ষ আদালত হাইকোর্টের নির্দেশে হস্তক্ষেপ করতে ইচ্ছুক নয়। ফলে স্বস্তি মিলল তৃণমূল সাংসদ অভিষেক

Top
error: Content is protected !!