এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "Aajkaal Khabor"

এনআরএস উপস্থিত হয়েছেন অপর্ণা সেন, ছাড়াও আরো অনেক বুদ্ধিজীবী

এনআরএস উপস্থিত হয়েছেন অপর্ণা সেন |মুখ্যমন্ত্রীকে তার বিনম্ৰ অনুরোধ তিনি সেখানে গিয়ে ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলুন সমস্ত মান অভিমানকে সরিয়ে রেখে |কারণ তিনি তো বয়সে বড় | আন্দোলনকারী ডাক্তারদের পাশে অপর্ণা সেন |আন্দোলনকে পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন তিনি |অপর্ণা সেন এর বক্তব্য, তিনি আন্দোলনকারীদের প্রতিনিধি নন, তিনি সেখানে উপস্থিত হয়েছেন সাধারণ নাগরিক

মমতা সরকার আর বেশিদিন নেই- অভিযান থেকে হুঁশিয়ারি কেন্দ্রীয় নেতার

রাজ‍্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির সার্বিক অবনতির বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে আজ রাজ‍্য বিজেপি লালবাজার অভিযানের কর্মসূচী নিয়েছে। মূলত সন্দেশখালির ন‍্যাজাট সহ গোটা রাজ‍্য জুড়ে যেভাবে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের ওপর আক্রমণ নেমে আসছে তারই প্রতিবাদে এই পদক্ষেপ বলে জানা যাচ্ছে। সুবোধ মল্লিক স্কোয়ার থেকে শুরু হয়েছে এই মিছিল। প্রথম থেকেই মিছিল আটকাতে তৎপর কলকাতা

সন্দেশখালিতে বিজেপি কর্মীরা নাকি নিজেদের গুলিতেই মারা গেছেন! নতুন তত্ত্ব মুখ্যমন্ত্রীর

লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর রাজ্যজুড়ে একের পর এক হিংসার ঘটনা হতবাক করে দিয়েছিল সকলকে।সম্প্রতি সন্দেশখালিতে 2 বিজেপি কর্মীর মৃত্যু রাজ্যের আইনশৃঙ্খলাকে প্রশ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে। আর এদিন এই নিয়ে মুখ খুললেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান। কেননা তিনি মুখ্যমন্ত্রী আবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও বটে। তাই আইন শৃঙ্খলার ব্যর্থ রূপ বেরিয়ে পড়লে তাকে

নিজেদের গরজেই “তৃণমূল বিরোধিতা” থেকে আপাতত শত হাত দূরে থাকবেন সোমেন মিত্ররা!

শ্যাম রাখবেন না কুল রাখবেন! এখন এই প্রশ্নই ঘোরাফেরা করছে রাজ্য প্রদেশ কংগ্রেসের সদর দপ্তর বিধান ভবনের অন্দরমহলের। লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিজেপি ভালো ফল করার পরই শাসক দল তৃণমূল থেকে একাধিক বিধায়ক বিজেপিতে যোগদান করতে শুরু করেন। আর এমত একটা উদ্ভূত পরিস্থিতিতে তারা যাতে বিরোধী দলের তকমা না খোয়ান তার

বাংলার ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে ক্ষুব্ধ ও চিন্তিত কেন্দ্র, কড়া পদক্ষেপ নিতে নবান্নকে কড়া নির্দেশ

কথায় আছে, ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি হয়। লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর থেকে রাজ্যে যে রাজনৈতিক সংঘর্ষ এবং হিংসার খবর পাওয়া যাচ্ছে তা 2011 সালের আগের পরিস্থিতিকে মনে করিয়ে দিচ্ছে। সম্প্রতি সন্দেশখালির ন্যাজাটে তৃণমূল এবং বিজেপির সংঘর্ষে সরকারিভাবে তিনজনের মৃত্যুর ঘটনায় এবার উত্তপ্ত হয়ে উঠল রাজ্য রাজনীতি। পুলিশের পক্ষ থেকে জানা গেছে,

কেন্দ্রীয় সংস্থা ইডিকে আটকাতেই কি রাজ্যের নতুন বিভাগ তৈরির পথে মুখ্যমন্ত্রী? বাড়ছে জল্পনা

কেন্দ্রের অধীনে রয়েছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি। আর এবার সেই এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের ধাঁচেই রাজ্যের অধীনে তৈরি করা হবে ডিরেক্টরেট অব রেভিনিউ ইন্টিলেজেন্স অ্যান্ড এনফোর্সমেন্ট। সূত্রের খবর, শুক্রবার রাজ্য বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই ব্যাপারে একটি প্রস্তাব অনুমোদিত হয়। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এতদিন কেন্দ্রের অধীনে থাকা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটই

টোল আদায়ে জুলুমবাজি রুখতে মুখ্যমন্ত্রীর কড়া নির্দেশ ,’থোড়াই কেয়ার’ তৃণমূল পরিচালিত পুরসভার

গত বুধবারই জেলার প্রশাসনিক কাজকর্ম খতিয়ে দেখতে নদীয়া সফরে এসে টোল ট্যাক্স আদায় বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবু কানে জল ঢুকলো না কৃষ্ণনগর পুরসভার। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অমান্য করে টোল ট্যাক্স আদায় করছে কৃষ্ণনগর পুরসভা। এমন অভিযোগ সামনে আসায় রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে এলাকায়। এ বিষয়ে কৃষ্ণনগর পুরসভার প্রশাসক তথা

ফের অধীর চৌধুরীকে নিয়ে বিস্ফোরক শুভেন্দু, জেনে নিন কি বললেন তিনি?

একদা কংগ্রেসের শাহেনশা বলে পরিচিত মুর্শিদাবাদের অধীর চৌধুরীর বিরুদ্ধে ফের সরব হলেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা মুর্শিদাবাদ জেলার তৃণমূল পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী। প্রসঙ্গত, এই মুর্শিদাবাদ জেলায় ঘাসফুল ফোটাতে শুভেন্দু অধিকারীকে দায়িত্ব দেওয়ার পর থেকেই সেখানে কংগ্রেসের অধীর চৌধুরীর ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলতে সক্ষম হয়েছে শাসক দল। দলীয় পর্যবেক্ষক হিসেবে দায়িত্ব নিয়েই মুর্শিদাবাদ জেলায়

লোকসভার আগে নতুন করে আজ পাঞ্জাবের রায় জানতে মুখিয়ে সব রাজনৈতিক দল – কি হবে শেষ ফলাফল?

লোকসভা নির্বাচনের আর বেশি দেরি নেই - সূত্রের খবর, ফেব্রুয়ারী মাসের শুরুতেই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর বাজেট পেশ হয়ে গেলেই ভোটের দামামা বাজিয়ে দিতে পারে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। ফলে, ভিতরে ভিতরে চূড়ান্ত প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে। প্রসঙ্গত, ২০১৪-এর লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্রের তৎকালীন ক্ষমতাসীন দল কংগ্রেসের আসনসংখ্যা নেমে গিয়েছিল ৪৪-এ। নতুন

দুর্নীতি ও স্বজনপোষন কোনোমতেই বরদাস্ত নয় – অভিযোগ প্রমাণে কড়া শাস্তি, জানালেন হেভিওয়েট তৃণমূল নেতা

মেয়াদ শেষ হওয়ার পরই তৃণমূল পরিচালিত বালুরঘাট পুরসভার বিদায়ী বোর্ডের বিরুদ্ধে একের পর এক অনিয়মের অভিযোগে প্রকাশ্যে আসায় তীব্র অস্বস্তিতে পড়ে ছিল শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। যেখানে খোদ বিদায়ী বোর্ডের শাসক দলের একাধিক কাউন্সিলরদের বিরুদ্ধেই স্বজনপোষণের অভিযোগ উঠেছিল। দেখা গেছে, কোনো কাউন্সিলার নিজের স্ত্রী বা কোনো কাউন্সিলার নিজের জামাইকে পুরসভায় চাকরি

Top
error: Content is protected !!